logo
  • Thu, 20 Sep, 2018

  অনলাইন ডেস্ক    ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০  

সাক্ষাৎকার

এখন দশর্ক প্রতিক্রিয়া সেভাবে আসে না

জনপ্রিয় অভিনেতা প্রাণ রায়। নাটক ও চলচ্চিত্রে সমানতালে অভিনয় করছেন। সরকারি অনুদানের ছবি ‘মায়া’র কাজ শেষ করে বতর্মানে ব্যস্ত রয়েছেন টিভি নাটকে। অভিনয় ও সমসাময়িক বিষয় নিয়ে কথা হয় তার সঙ্গেÑ

এখন দশর্ক প্রতিক্রিয়া সেভাবে আসে না
প্রাণ রায়
লাইট-ক্যামেরা ...

বাংলাদেশ টেলিভিশনে আবারও নতুন করে শুরু হয়েছে বিশ্বনাটক। এখানে বিদেশি গল্প অবলম্বনে সম্প্রতি ‘বিবাহ’ নামের একটি নাটকে অভিনয় করলাম। চলতি মাসের শেষের দিকে মারুফ মিঠু ও মোস্তফা কামাল রাজের দুটি ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় শুরু করব। এছাড়া কয়েকটি চ্যানেলে প্রচার চলতি ধারাবাহিক নাটকগুলোতে অভিনয় করছি।

প্রচার চলতি ধারাবাহিক ...

বিভিন্ন চ্যানেলে আমার অভিনীত ৫-৬টি ধারাবাহিক নাটক প্রচার হচ্ছে। এরমধ্যে এটিএন বাংলায় মারুফ মিঠুর ‘ভলিউমটা কমান’, বাংলা টিভিতে ‘চোরে না শোনে ধমের্র কাহিনী’, আরটিভিতে ‘নিউটনের তৃতীয় সূত্র’ ও ‘মজনু একজন পাগল নহে’ ধারাবাহিকগুলো প্রচার হচ্ছে। বাকি দু-একটি ধারাবাহিকের নাম মনে নেই। এছাড়া অচিরেই প্রচার শুরু হবে আরটিভিতে সাগর জাহানের ‘টি টুয়েন্টি’, বাংলাভিশনে রনির ‘পাগল হাওয়া’ ও সকাল আহমেদের ‘ভদ্রপাড়া’ ধারাবাহিক।

ঈদের নাটকের প্রতিক্রিয়া ...

চিকিৎসার জন্য দেশের বাইরে থাকায় এবারের ঈদে ৪-৫টি নাটকের বেশি কাজ করা হয়নি। দশর্ক প্রতিক্রিয়াও মনের মতো নয়। হয়তো ইউটিউবে ভিউয়াসর্ বেশি হয়, কিন্তু মানসিকভাবে পরিতৃপ্ত হতে পারি না। আগে ঈদের সময় দশের্ক নাটক দেখে পরিতৃপ্ত হতেন, প্রশংসা করতেন। এখন দশর্কদের কাছ থেকে প্রতিক্রিয়া সেভাবে আসে না। এবারের ঈদে দুয়েকটি নাটক ছাড়া প্রচারিত নাটকগুলোতে আমার কাছে কোনো নতুনত্ব মনে হয়নি। নাটকগুলো ঘুরেফিরে একই ফরমেটে ঘুরপাক খেয়েছে। হাতে গোনা কয়েকজনকেই বারবার দেখা গেছে বিভিন্ন নাটকে। কম সংখ্যক শিল্পী দিয়েই নাটক শেষ হয়েছে। আগে ঈদের নাটকের গল্পের গঁাথুনি ছিল মজবুত। অনেক শিল্পীর অভিনয় থাকত একই নাটকে। এখন সেই অবস্থা নেই। এরজন্য অবশ্য পরিচালকরা দায়ী নন। এখন টিভি নাটক নিয়ন্ত্রণ করে এজেন্সি কিংবা চ্যানেল কতৃর্পক্ষ।

চলচ্চিত্র ...

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত নিমার্তা পথিক মাসুদের পরিচালনায় ‘মায়া’ চলচ্চিত্রের শুটিং শেষ করেছি। সরকারি অনুদানের এ ছবিতে আমার সহশিল্পী জ্যোতিকা জ্যোতি। পরিচালক সূত্রে জেনেছি ছবিটি এ বছরেই মুক্তি পাবে। এরমধ্যে একাধিক ছবির প্রস্তাবও পেয়েছি। কিন্তু চূড়ান্ত না হওয়া পযর্ন্ত এ বিষয়ে কিছু বলতে পারছি না। এছাড়া আরও দুটি চলচ্চিত্র মুক্তির অপেক্ষায় আছে। একটি আশরাফ শিশিরের ‘আমরা একটা সিনেমা বানাব’ অন্যটি ‘রং ডং’। এর আগে ছয়-সাতটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছি। আমার অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র ‘লালসবুজ’। এরপর ‘মোল্লা বাড়ির বউ’, ‘জীবন ঢুলি’, ‘নয়ছয়’, ‘এই তো প্রেম’, হুমায়ূন আহমেদের ‘ঘেঁটুপুত্র কমলা’ এবং আমার স্ত্রী শাহনেওয়াজ কাকলীর ‘নদীজন’ ছবিতে অভিনয় করেছি।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
অাইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

উপরে