logo
বুধবার ১৭ জুলাই, ২০১৯, ২ শ্রাবণ ১৪২৬

  মাসুদুর রহমান   ২২ মার্চ ২০১৯, ০০:০০  

নাটকেই আটক

এইতো কিছুদিন আগেই বাংলা চলচ্চিত্রে দাপিয়ে বেড়িয়েছেন যেসব তারকা, যাদের ছবির জন্য চাতকের মতো মুখিয়ে থাকত দর্শক, তাদের অনেকেই এখন ছিটকে পড়েছেন চলচ্চিত্র থেকে। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে ক্রমশ যেন বেকার হতে থাকেন তারা। বেকারত্ব দূর করতে বিকল্প পথ হিসেবে নাটকে অভিনয় শুরু করে বর্তমানে নাটকেই আটকে রয়েছেন চলচ্চিত্রের বেশ কজন তারকা শিল্পী। ইচ্ছে থাকলেও নিয়মিত হতে পারছেন না চলচ্চিত্রে।

নাটকেই আটক
রিয়াজ
রিয়াজকে দিয়েই শুরু করা যাক। চলচ্চিত্রের একসময়ের ব্যস্ত নায়ক রিয়াজ। যার ছবি মানেই ছিল দর্শকের উপচে পড়া ভিড়। যাকে নিয়ে ছবি বানানোর জন্য মুখিয়ে থাকতেন নির্মাতারা, সেই রিয়াজ এখন ছোটপর্দার ব্যস্ত অভিনেতা। অনেকদিন ধরেই চলচ্চিত্রে নেই এই সুপারস্টার। বর্তমানে টিভি নাটকেই টানা কাজ করছেন রিয়াজ। ঈদের বিশেষ নাটক বা অনুষ্ঠানেও দেখা যাচ্ছে তাকে। বহু নাটকের ভিড়ে রিয়াজের নাটক-টেলিফিল্ম দর্শক মহলে ব্যাপক সাড়া ফেলে। তবে ইদানীং চলচ্চিত্রে অভিনয় করছেন না তিনি।

বাংলা চলচ্চিত্রের আরেক আলোচিত নায়িকা নিপুন। দীর্ঘ এক যুগের অভিনয় ক্যারিয়ার তার। এই সময়ের মধ্যে ৬০টিরও বেশি ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। সেরা সহ-অভিনেত্রী হিসেবে দুইবার জিতেছেন 'জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার'। হালের সবচেয়ে বড় সুপারস্টার শাকিব খান থেকে শুরু করে রিয়াজ, ফেরদৌস, মান্না, আমিন খান, রুবেল, বাপ্পারাজের মতো তারকা অভিনেতাদের সঙ্গে পর্দায় জুটি বেঁধেছেন তিনি। বড় পর্দার একসময়ের হিট নায়িকা নিপুনকে এখন চলচ্চিত্রে দেখা না গেলেও নাটকে কাজ করেন। মাছরাঙা টেলিভিশনে প্রচার চলতি ধারাবাহিক 'ডন' নাটকে অভিনয় করছেন। নিপুন অভিনীত 'ধূসর কুয়াশা' ছবিটি সেন্সরে জমা পড়ে ২০১৭ সালে। নানা ঝক্কিঝামেলা পেরিয়ে গত বছরের ৪ মে ছবিটি মুক্তি পেলেও চিত্রপাড়ায় কোনো সাড়া পড়েনি।

নব্বই দশকে বাংলা চলচ্চিত্র যারা সমৃদ্ধ করেছেন, তাদের মধ্যে আমিন খান একজন। অসংখ্য ব্যবসা সফল ছবির নায়ক তিনি। রোমান্টিক কিংবা অ্যাকশন সব ধরনের চলচ্চিত্রে আমিন খান নিজের জাত চিনিয়েছিলেন। সময়ের পরিক্রমায় ঢালিউডে নতুন মুখের আগমন এবং সিনেমা ব্যবসা মন্দার কারণে ধীরে ধীরে নিজেকে সরিয়ে ফেলেন আমিন খান। একসময় তাকে নিয়মিত পর্দায় দেখা গেলেও, এখন তাকে আর দেখা যায় না। কিন্তু মাঝে মাঝে নাটক-টেলিফিল্মে অভিনয় করে থাকেন তিনি।

চিত্রনায়িকা সুচন্দা পরিচালিত 'হাজার বছর ধরে' ছবির মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অভিষেক হয় শারমীন জোহা শশীর। খিজির হায়াত খান পরিচালিত 'অস্তিত্বে আমার দেশ' চলচ্চিত্রেও অভিনয় করেছেন। তবে 'হাজার বছর ধরে' ছবিতে টুনি চরিত্রটি তাকে সাফল্য এনে দিলেও তিনি চলচ্চিত্রে নেই। এখন ছোটপর্দার ভীষণ ব্যস্ত অভিনেত্রী শশী।

চলচ্চিত্রের গস্নামার নায়িকা পূর্ণিমাও যেন একই পথের যাত্রী। বহু জনপ্রিয় চলচ্চিত্র উপহার দিয়েছেন দর্শকদের। রুপের সৌন্দর্য ধরে রেখেছেন এখনো। দীর্ঘ সময় ধরে তাকে দেখা যাচ্ছে না বড় পর্দায়। তবে বিশেষ দিবসের নাটক অথবা টেলিফিল্মে দেখা মেলে পূর্ণিমার। গত বছরেও ঈদে 'রোদ্দুরে পেয়েছি তোমার নাম' টেলিছবিসহ একাধিক নাটক-টেলিফিল্মে অভিনয় করেছেন তিনি। সম্প্রতি 'জ্যাম' ও 'গাঙচিল' চলচ্চিত্রে অভিনয় করছেন তিনি।

অনেক আশা নিয়ে চলচ্চিত্রে এসেছিলেন লাক্সকন্যা জাকিয়া বারি মম। ২০০৭ সালে তৌকির আহমেদ পরিচালিত দারুচিনি দ্বীপ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে চলচ্চিত্র জগতে তার আবির্ভাব ঘটে। এই চলচ্চিত্রের তার কাজের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন। ২০১৫ সালে 'ছুঁয়ে দিলে মন' ছবিতে অভিনয় করেন। দীর্ঘ সময় পর গত বছরে তার 'দহন' ছবিটি মুক্তি পেলেও তেমন আলোচনায় আসেনি। মম অভিনয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন টিভি নাটকে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে