logo
সোমবার ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

সিমলাকে তিন ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ

সিমলাকে তিন ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ
সিমলা
বিনোদন রিপোর্ট

চট্টগ্রামে বিমান ছিনতাইয়ের ঘটনায় নায়িকা সিমলাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিট। গতকাল বৃহস্পতিবার প্রায় তিন ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় এ নায়িকাকে। এদিন বেলা ১১টায় চট্টগ্রাম কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রাজেশ বড়ুয়া তাকে বিভিন্ন বিষয় জিজ্ঞাসা করেন। যদিও জিজ্ঞাসাবাদে শিমলা কি তথ্য দিয়েছেন সে বিষয় কিছু জানা যায়নি। তবে এ নিয়ে সিমলা কোনো মিডিয়ার সঙ্গে কথা বলতে রাজি হননি।

ঘটনার সূত্রপাত চলতি বছরের ২৪ ফেব্রম্নয়ারি ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম হয়ে দুবাইগামী বাংলাদেশ বিমানের একটি উড়োজাহাজ ছিনতাই ঘটনাকে কেন্দ্র করে। এমন খবরের ভিত্তিতে বিমানটিকে পুলিশ ওর্ যাব ঘিরে রাখে কয়েক ঘণ্টা। পরে কমান্ডো অভিযানে পাইলটকে জিম্মি করে রাখা অস্ত্রধারী পলাশ নামের এক সন্ত্রাসী নিহত হয়। পরে জানা যায়, অস্ত্রধারী নিহত ব্যক্তিটি অভিনেত্রী শিমলার স্বামী। এরপর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শুরু হয় সিমলা ও পলাশকে নিয়ে বিতর্ক। এ বিষয় সে সময় একটি ভিডিও বার্তা পোস্ট করেন সিমলা। এতে তিনি পলাশের সঙ্গে তার সম্পর্কের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। ভিডিও বার্তায় সিমলা বলেন, '২০১৭ সালের ১২ সেপ্টেম্বর পলাশের সঙ্গে পরিচয় হয়। আমি তখন পরিচালক রশিদ পলাশের 'নাইওর' ছবি করেছিলাম। পরে ২০১৮ সালের ৩ মার্চ আমরা বিয়ে করি। ওই বছরেরই নভেম্বরে আমাদের ডিভোর্স হয়েছে।' পলাশকে ডিভোর্স দেয়ার তথ্য জানিয়ে নায়িকা সিমলা আরও বলেন, 'পলাশের মানসিক সমস্যা রয়েছে। ফলে তাকে ডিভোর্স দিতে বাধ্য হয়েছিলাম।' ভিডিওটিতে পলাশের বিমান ছিনতাইয়ের বিষয়ে সিমলা বলেন, আমি ঘটনার সবই শুনেছি। আমার এখন কী করা উচিত। যেহেতু পলাশকে আমি ডিভোর্স দিয়ে ফেলেছি। তারপরেও যেহেতু এত বড় একটা ঘটনা ঘটেছে। সেখানে যদি আমার দেশের স্বার্থের জন্য কোথাও কিছু ফেইস হতে হয়, কোনো প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হয়, নো প্রোবলেম। আমি রেডি, নো প্রোবলেম।' জানা গেছে, পলাশের বাড়ি নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার পিরোজপুরের দুধঘাটা গ্রামে। তার বাবার নাম পিয়ার জাহান সরদার। গ্রামের সবাই তাকে পলাশ নামেই চিনত। আর গ্রামের বাইরে পলাশ নিজেকে মাহাদী নামে পরিচয় দিত।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে