logo
মঙ্গলবার ২৫ জুন, ২০১৯, ১১ আষাঢ় ১৪২৬

  যাযাদি রিপোটর্   ১২ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০  

নিবার্চনী ট্রাইব্যুনালে মামলার জোর প্রস্তুতি ঐক্যফ্রন্টের

ভোট জালিয়াতি, কারচুপিসহ নানা অভিযোগ এনে নিবার্চনী ট্রাইব্যুনালে মামলা করার প্রস্তুতি প্রায় শেষ করেছে বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। মামলা করার জন্য প্রয়োজনীয় তথ্য-উপাত্তও জোগাড় করছে রাজনৈতিক এই জোটটি। আগামী সপ্তাহের যে কোনো দিন এই মামলা দায়ের করা হতে পারে।

নিবার্চনী ফলাফলের গেজেট প্রকাশের ৩০ দিনের মধ্যে হাইকোটের্র নিবার্চনী ট্রাইব্যুনালে মামলা করতে হয়। ঐক্যফ্রন্টের এক শীষর্ নেতা বলেন, কমর্সূচি হিসেবে তারা প্রথমে মামলাগুলো করতে চান। সব আসনের প্রাথীর্ই মামলা করবেন। সময় বেশি দিন না থাকায় মামলার বিষয়টিকেই সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে।

খেঁাজ নিয়ে জানা গেছে, নিবার্চনের অনিয়মের সব ধরনের দালিলিক প্রমাণ হাতে পাওয়ার পরই ট্রাইব্যুনালে মামলা করতে চায় জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। নিবার্চনের পরপরই এ মামলা করার চাপ থাকলেও সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন না করে তারা মামলায় যায়নি। তবে আগামী সপ্তাহের মধ্যেই শক্তিশালী তথ্য-প্রমাণ নিয়েই মামলা করার কাজ করছে তারা। দল ও জোটের শীষর্ নেতা, প্রাথীর্, সিনিয়র আইনজীবী এবং বিভিন্ন ঘরানার নিবার্চন বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে আলোচনা করেই মামলার প্রস্তুতি চলছে।

সূত্রমতে, মামলা করার জন্য সব প্রাথীর্র কাছে অনিয়মের সব ধরনের দালিলিক প্রমাণ চাওয়া হয়েছে। এর মধ্যে অনেক প্রাথীর্ বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত জমা দিয়েছে। নিবার্চনের অনিয়ম, কারচুপি, এজেন্ট ও নেতাকমীের্দর গ্রেপ্তার, নিবার্চনী সহিংসতায় আহত ও নিহতদের তালিকা, প্রতিটি কেন্দ্রের অস্বাভাবিক ভোটের হিসাবসহ ৮টি বিষয়ে তথ্য-প্রমাণ সহকারে প্রতিবেদন দিয়েছেন প্রাথীর্রা। এছাড়া নিবার্চন প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার পর থেকে ফল প্রকাশ পযর্ন্ত কি ধরনের প্রতিবন্ধতার মধ্যে পড়তে হয়েছে এর একটি ভিডিও বাতার্ও চাওয়া হয়েছে প্রাথীের্দর কাছ থেকে। এরই মধ্যে অনেক প্রাথীর্ তাদের ভিডিও বক্তব্য জমা দিয়েছেন। একই সঙ্গে ভোটের দিন ব্যালট পেপারে সিল মারাসহ ভোট কারচুপির ভিডিও ফুটেজও অনেক প্রাথীর্ প্রতিবেদনের সঙ্গে যুক্ত করেছেন।

ঐক্যফ্রন্টের এক নেতা বলেন, মামলার প্রয়োজনে নিবার্চনের কেন্দ্রভিত্তিক ফলাফলের সঠিক অনুলিপি নিবার্চন কমিশনের কাছে চাওয়া হয়েছে। এটি হাতে পেলে মামলার কাজে সহায়তা হবে।

খেঁাজ নিয়ে জানা গেছে, মূলত যেসব প্রাথীর্ নিবার্চনের ফল নিজেদের পক্ষে আনার জন্য সবার্ত্মক চেষ্টা করেছেন, জীবনের ঝুঁকি নিয়ে লড়েছেন সেসব প্রাথর্র্ীর বক্তব্য ও তাদের তথ্য-উপাত্তকে সামনে রেখেই মামলার সাবির্ক প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। এছাড়া ব্যক্তিস্বাথের্ যারা দল ও জোটের বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছিলেন এবং আদালতেও যেতে দ্বিধাবোধ করেননি তাদের বিষয়েও ভাবা হচ্ছে। এসব প্রাথীর্র কাছ থেকে দলের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়ার কারণ লিখিত আকারে জানতে চাওয়া হয়েছে। তাদের শোকজের জবাব হাতে পাওয়ার পর ওইসব আসনে মামলার বিষয়টি নিয়ে আলাদা পরিকল্পনা করা হচ্ছে।

কবে নাগাদ মামলা হচ্ছে জানতে চাইলে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শরিক গণফোরামে সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মোহসীন মন্টু বলেন, তারা শিগগিরই মামলা করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

খেঁাজ নিয়ে জানা গেছে, নিবার্চনে অনিয়মের বিষয়ে দেশি ও আন্তজাির্তক জনমত নিজেদের পক্ষে আনার কাজ চলছে। দেশি-আন্তজাির্তক মহলের পাশাপাশি মানবাধিকার সংগঠনের কাছে নিবার্চনের অনিয়মের বিষয়টি তুলে ধরা হয়েছে। মামলার বিষয়ে তাদের কাছ থেকে মতামত নেয়ার পাশাপাশি প্রয়োজনীয় পরামশর্ও নেয়া হচ্ছে। এর অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার একাদশ নিবার্চনে অংশগ্রহণকারী ঐক্যফ্রন্টের কয়েকজন নারী প্রাথীর্ ইউরোপীয় ইউনিয়নের একটি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠক করেন। গুলশানে চেয়ারপারসনের কাযার্লয়ে অনুষ্ঠিত বৈঠকে ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতিনিধি দলে ছিলেন এরিনি মারিয়া গোয়ানারী ও ডেভিড নোয়েল ওয়াডর্। ঐক্যফ্রন্টের নারী প্রাথীের্দর মধ্যে ছিলেন ফরিদপুর-২ আসনের শামা ওবায়েদ, ঝালকাঠি-২ আসনের জিবা আমিন খান ও সিরাজগঞ্জ-২ আসনের রুমানা মাহমুদ।

বৈঠকের পর শামা ওবায়েদ বলেন, ই?উরোপীয় ইউনিয়নের একটি টেকনিক্যাল টিম ঐক্যফ্রন্টের নারী প্রাথীের্দর কাছে নিবার্চনের ঘটনার বিষয়ে জানতে এসেছেন। তারা তাদের নিবার্চনী এলাকায় ভোটের অবস্থা, পরিবেশসহ ক্ষমতাসীন দল ও প্রশাসনের কমর্কাÐ তথ্য-প্রমাণসহ তাদের কাছে উপস্থাপন করেছেন।

প্রসঙ্গত, গত ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নিবার্চনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট মাত্র ৭টি আসনে জয় পায়। এরপর ব্যাপক অনিয়ম ও কারচুপির অভিযোগ এনে নিবার্চন প্রত্যাখ্যান করে তারা। পাশাপাশি নিবার্চন কমিশনে পুননির্বার্চনের দাবি জানিয়ে স্মারকলিপি দেয়। এছাড়া নিবার্চনের তিন দিন পর ঐক্যফ্রন্টের প্রাথীের্দর ঢাকায় বিএনপির গুলশান অফিসে ডেকে নিবার্চন নিয়ে তাদের বিস্তারিত অভিজ্ঞতা শোনা হয়। সেখানেই প্রাথীর্রা নিবার্চনী ট্রাইব্যুনালে মামলা করবে বলে সিদ্ধান্ত হয়। পরে জাতীয় সংলাপ অনুষ্ঠান, নিবার্চনী ট্রাইব্যুনালে দ্রæত মামলা দায়ের ও নিবার্চনী সহিংস কবলিত এলাকাগুলো ফ্রন্টের শীষর্ নেতৃবৃন্দের সফরসহ তিন কমর্সূচি ঘোষণা করেন তারা।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে