logo
বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর ২০১৯, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

  মো. ফখরুল ইসলাম   ২৪ জুন ২০১৯, ০০:০০  

প্রতিপক্ষ আফগানিস্তান

বাংলাদেশের আজ বাঁচা-মরার লড়াই

বাংলাদেশের আজ বাঁচা-মরার লড়াই
অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে লড়াই করেও হেরেছে বাংলাদেশ। ইনিংস লম্বা করতে পারেন নি আসরে দূর্দান্ত ছন্দে থাকা সাকিব আল হাসানও। আফগানদের বিপক্ষে আজ বাঁচা-মরার ম্যাচে নামার আগে রোববার রোজ বোলে অনুশীলনে বেশ নির্ভারই দেখা গেল সাকিব-রুবেলদের -ওয়েবসাইট
আশার প্রদীপ নিভু নিভু হয়েছে হয়তো আরও; কিন্তু নিভে তো যায়নি পুরোপুরি। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বিশাল রানের পাহাড় তাড়া করতে নেমে লড়াই করে হারের পরও টিকে আছে বাংলাদেশের শেষ চারে খেলার সম্ভাবনা। সে জন্য বাকি তিনটি ম্যাচের প্রতিটিই জিততে হবে। আবার দুই জয়েও একেবারে ফুরিয়ে যাবে না সম্ভাবনা; অন্তত কাগজে-কলমের হিসাবে। তবে সেসব হিসাব-নিকাশ ছেড়ে আজ আফগান বাধা টপকানোই এখন বাংলাদেশের সামনে বড় চ্যালেঞ্জ।

বিশ্বকাপজুড়ে ধুঁকতে থাকা হতোদ্যম আফগানিস্তান যেভাবে শনিবার ভারতের ঘাম ঝরিয়েছে তাতে সহজেই অনুমেয়, হঠাৎ গর্জে ওঠা আফগানদের বিপক্ষে আজ বাংলাদেশও কঠিন পরীক্ষার মুখোমুখি হতে যাচ্ছে। কোহলির টিম ইন্ডিয়ার বিপক্ষে শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে মাত্র ১১ রানে হারার পর স্বাভাবিকভাবেই অনেক বেশি আত্মবিশ্বাস নিয়ে আজ খেলতে নামবে নাইব বাহিনী। এবারও খেলা একই মাঠ সাউদাম্পটনেই, কাজেই গুলবাদিন নাইব সম্ভবত আবারও চেষ্টা করবেন তার স্পিন ত্রয়ী রশিদ-মুজিব-নবীর সাঁড়াশি আক্রমণে তামিম-সৌম্যদের বেঁধে ফেলতে। দেখা যাক কাবুলিওয়ালাদের বিপক্ষে টাইগার বাহিনী গর্জে উঠতে পারে কি-না। বাংলাদেশ সময় বিকাল সাড়ে ৩টায় সাউদাম্পটনের রোজ বোলে দল দুটো একে অপরের মুখোমুখি হবে।

বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে তিন নম্বরে তুলে আনার পর থেকেই একের পর এক বড় স্কোর গড়েছে বাংলাদেশ। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচে বড় রান তাড়া করতে নেমে মোটেও বেগ পেতে হয়নি সাকিব-লিটনদের; তারপর অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে ম্যাচটা শেষ পর্যন্ত জিততে না পারলেও চাপের মধ্যে এদিন নিজেদের ওয়ানডে ইতিহাসের সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড গড়েছে মুশফিক-মাহমুদউলস্নাহরা। প্রতি ম্যাচেই ব্যাটসম্যানরা লড়ছে সাধ্যমতো। বিশ্বকাপ ইতিহাসে এক আসরে রেকর্ড ৩টি সেঞ্চুরি এসেছে এবারই। ৩টি তিনশ' পেরোনো ইনিংস, ৩২২ চেজ করে জয়, সর্বোচ্চ ২টি স্কোর-সবই এসেছে এই বিশ্বকাপে। কিন্তু এ তো গেল ব্যাটিং। গত তিনটি ম্যাচের সব ক'টিতেই ৩২০ এর বেশি রান দিয়েছে বাংলাদেশ। যা এ বিশ্বকাপে বাংলাদেশের বড় দুর্বলতার প্রতিচিত্র। ব্যাটসম্যানদের কাজ হালকা করার দায়িত্ব নিতেই হবে বোলারদের। তা না হলে টিকে থাকার কাজটা কঠিনই হবে মাশরাফিদের।

এদিকে দলের ফিল্ডিং নিয়ে বেশ ভাবাচ্ছে টিম ম্যানজেম্যান্টকে। কারণ দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ওভালের ম্যাচটি বাদ দিলে প্রতি ম্যাচেই ফিল্ডিং ভুগিয়েছে বাংলাদেশ দলকে। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে মুশফিকুরের রান আউট বাংলাদেশের প্রত্যাশিত স্কোরে গড়েছে প্রতিবন্ধকতা। আবার সেই ম্যাচে কেন উইলিয়ামসকে ১০ রানের মাথায় অবধারিত রান আউটে ফিরিয়ে দেয়ার সুযোগ হাতছাড়া করার মাশুল দিতে হয়েছে বাংলাদেশ দলকে। ইংল্যান্ডের বিপক্ষেও ক্যাচ ড্রপ হয়েছে, বাজে ফিল্ডিংয়ে চার রান নেয়ার ঘটনাও ঘটেছে। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ওয়ার্নারের ক্যাচ ফেলে দেয়ার মাশুল দিয়েছে। ব্যাটিং ফ্রেন্ডলি উইকেটে বোলারদের সর্বোচ্চ চেষ্টাটা মাঠে মারা যাচ্ছে বাজে ফিল্ডিংয়ের কারণে। প্রতি ম্যাচেই প্রতিপক্ষ দলকে অতিরিক্ত ৩০-৪০ রান উপহার দিচ্ছে বাংলাদেশ ফিল্ডিংয়ে।

এছাড়া ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে পাওয়া কাঁধের চোটে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচে মোসাদ্দেককে পায়নি বাংলাদেশ। সাইফুদ্দিনও খেলতে পারেননি পিঠের ব্যথায়। সাইফুদ্দিন টুর্নামেন্টে এখনো পর্যন্ত বাংলাদেশের সবচেয়ে বেশি উইকেট শিকারি বোলার। ব্যাটিং-বোলিং মিলিয়ে মোসাদ্দেক খানিকটা অবদান রাখছিলেন। অস্ট্রেলিয়ার টপ অর্ডারে বাঁ-হাতি বেশি বলে এই অফ স্পিনিং অলরাউন্ডারকে সেই ম্যাচে খুব করে চাইছিল দল। তবে আজ আফগানদের বিপক্ষে এ দু'জনের ব্যাপারে টিম ম্যানেজমেন্ট সূত্রে জানা গেছে, মোসাদ্দেক ফিট। একদম ঠিক আছে। খেলার জন্য পুরোপুরি সুস্থ। তবে সাইফুদ্দিনের ব্যাপারে এখনো অনিশ্চয়তা আছে।

বিশ্বকাপে কেনিয়া, কানাডা, আয়ারল্যান্ডের সঙ্গে হারের তিক্ত অভিজ্ঞতা আছে বাংলাদেশের। আজ সাউদাম্পটনের রোজ বোলে টিম টাইগার্সের প্রতিপক্ষ আফগানিস্তান। যদিও শক্তির বিচারে নিচের সারির দল হলেও তাদের নিয়ে বেশ সতর্ক থাকবে বাংলাদেশ। আর তাই আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচের আগে মাশরাফির দলকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালনা বিভাগের প্রধান আকরাম খানও।

অন্যদিকে বিশ্বকাপের আগে নবী-রশীদদের ঘিরে আফগানিস্তান ভালো কিছুর বার্তা দিলেও কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে না পারায় ৬ ম্যাচ খেলে এখনও জয়ের দেখা পায়নি তারা। তবে তাদের এ ব্যর্থতার পেছনে বড় দায় ব্যাটসম্যানদের ওপরও বর্তাবে। বোলাররা তুলনামূলক ভালো করলেও ব্যাটিং ব্যর্থতাই ডুবিয়েছে তাদের। শনিবার ভারতের বিপক্ষে হার দিয়েই আসরের প্রথম দল হিসেবে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে গেছে তারা। তাই এখন তাদের বাকি ৩টি ম্যাচ কেবল আনুষ্ঠানিকতার। তবে জয় খরা কাটাতে তাদের সামনে বড় সুযোগ এই বাংলাদেশই। তাই নির্দ্বিধায় বলা যায়, আজ হাই-ভোল্টেজ একটি ম্যাচ দেখতে যাচ্ছে ক্রিকেট বিশ্ব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে