logo
মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯, ২৮ কার্তিক ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ২৬ জুন ২০১৯, ০০:০০  

সড়ক-রেল সেতুর অবকাঠামো জরিপ করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

সড়ক-রেল সেতুর অবকাঠামো জরিপ করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মঙ্গলবার একনেক সভায় বক্তৃতা করেন

যাযাদি রিপোর্ট প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সারা দেশে সড়ক ও রেলপথের সব সেতু বা কালভার্টের অবকাঠামো জরিপের নির্দেশ দিয়েছেন। বর্ষার আগেই নড়বড়ে সেতু চিহ্নিত করে যেন সংস্কার করা যায়, এ জন্যই এ নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী এই নির্দেশনা দেন। একনেক সভা শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান সাংবাদিকদের জানান, ২৩ জুন রাতে উপবন এক্সপ্রেসের পাঁচটি বগি লাইনচু্যত হয়ে হতাহতের ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী দেশের রেল ও সড়কপথের সব সেতু জরিপ করার নির্দেশ দিয়েছেন রেলপথ এবং সড়ক ও জনপথ বিভাগকে। ঝুঁকিপূর্ণ সেতু চিহ্নিত করে বর্ষার আগেই যেন মেরামত করা যায়, তাই এ নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। পরিকল্পনামন্ত্রী জানান, বিশ্বকাপ ক্রিকেটে আফগানিস্তানকে হারিয়ে বাংলাদেশ দল বিজয় লাভ করায় সাকিব আল হাসান, মোস্তাফিজুর রহমান, মাশরাফি বিন মুর্তজা, মুশফিকুর রহিমসহ সব খেলোয়াড়কে অভিনন্দন জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি টাইগারদের খেলার ভূয়সী প্রশংসা করেন। এ ছাড়া সব পেশাদার খেলোয়াড় যেন \হসব সময় প্রশিক্ষণের সুযোগ পায়, এ জন্য প্রধানমন্ত্রী বিশেষ প্রশিক্ষণ তহবিল গঠনের জন্য অর্থ ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দিয়েছেন। এম এ মান্নান জানান, প্রধানমন্ত্রী বলেছেন কোনো খেলোয়াড় অবসর গ্রহণের পরও যেন প্রশিক্ষণের সুযোগ পায়, এ জন্য প্রশিক্ষণ তহবিল গঠন করতে হবে। এতে তারা শরীরের ফিটনেস ধরে রাখতে পারবেন। ফিটনেস ঠিকঠাক থাকলে তাদের অন্য কাজেও লাগানো যাবে। ফলে তারা অবসর গ্রহণের পর অর্থকষ্টে ভুগবেন না।



রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে বেইজিং গঠনমূলক ভূমিকা রাখবে



যাযাদি রিপোর্ট

বাংলাদেশে চীনের রাষ্ট্রদূত ঝ্যাং জুয়ো বলেছেন, রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধানে তার দেশ গঠনমূলক ভূমিকা পালন করবে। তিনি বলেন, ‘দীর্ঘ রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধানে আমরা গঠনমূলক ভূমিকা পালন করব।’

চীনের রাষ্ট্রদূত ঝ্যাং জুয়ো মঙ্গলবার সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে তার জাতীয় সংসদ ভবনের কার্যালয়ে এক সৌজন্য সাক্ষাতে এ কথা বলেন।

বৈঠকের পরে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের অবশ্যই বাংলাদেশ থেকে তাদের নিজ মাতৃভূমিতে ফেরত যেতে হবে এবং এই বিষয়ে মিয়ানমারকে বোঝানোর জন্য তিনি চীনের প্রতি আহ্বান জানান।

প্রেস সচিব বলেন, প্রধানমন্ত্রী এবং চীনের রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আসন্ন চীন সফরের বিষয়েও আলোচনা করেন।

এ প্রসঙ্গে শেখ হাসিনা বলেন, জুলাইয়ের প্রথম সপ্তাহে তার চীন সফরের সময় দুই দেশের দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ককে আরও বিকশিত করার অংশ হিসেবে দুই দেশের মধ্যে চারটি চুক্তি সই হবে।

বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী এবং চীনের রাষ্ট্রদূত দুই দেশের মধ্যে বিদ্যমান দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কে সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং এই সম্পর্ক আগামী দিনগুলোতে আরও শক্তিশালী হবে মর্মে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

চীনের রাষ্ট্রদূত বলেন, ২০১৬ সালে চীনের প্রেসিডেন্ট সি চিন পিংয়ের বাংলাদেশ সফরের পর থেকে ঢাকা এবং বেইজিং সম্পর্ক একটি নতুন উচ্চতায় অধিষ্ঠিত হয়।

ঢাকা-বেইজিং দ্বিপক্ষীয় সহযোগিতা সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রী বলেন, চীনের সহযোগিতায় চট্টগ্রামে কর্ণফুলী টানেলের নির্মাণকাজ চলছে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের চীন সফরের ওপর একটি বই প্রকাশনার বিষয়ে জানতে পেরে চীনা রাষ্ট্রদূত বইটি চীনা ভাষায় অনুবাদের বিষয়ে তার দেশের আগ্রহ ব্যক্ত করেন।

এ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী তাদের কাছে সংরক্ষিত থেকে থাকলে বঙ্গবন্ধুর চীন সফরের সময়কালীন আলোকচিত্র প্রদানের জন্যও চীনের রাষ্ট্রদূতের প্রতি অনুরোধ জানান।

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান এ সময় উপস্থিত ছিলেন।



 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে