logo
মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ৬ কার্তিক ১৪২৬

  যাযাদি ডেস্ক   ১২ জুলাই ২০১৯, ০০:০০  

প্রথমবার শান্তিরক্ষা মিশনের গুরুত্বপূর্ণ পদে বাংলাদেশ

প্রথমবারের মতো জাতিসংঘ সদর দপ্তরে শান্তিরক্ষা মিশনের ফোর্স জেনারেশন প্রধানের পদ পেয়েছে বাংলাদেশ; যাতে সেনাবাহিনীর কর্নেল পদমর্যাদার কর্মকর্তা দায়িত্ব পালন করবেন।

মঙ্গলবার নিউ ইয়র্কে মিশনের সামরিক উপদেষ্টা লেফটেন্যান্ট জেনারেল কর্লোস উমবার্তো লতে সফররত সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদের হাতে এর নিয়োগপত্র তুলে দেন বলে আইএসপিআরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে।

এতে বলা হয়, শান্তিরক্ষা মিশনে অংশগ্রহণের ৩১ বছরে এই গুরুত্বপূর্ণ পদে প্রথম বাংলাদেশকে নির্বাচন করা হলো। সেনাবাহিনীপ্রধান বাংলাদেশ থেকে একজন ফোর্স কমান্ডার নিয়োগের প্রস্তাব দিলে সামরিক উপদেষ্টা অতি শিগগরিই নিয়োগের আশ্বাস দেন।

রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে বাংলাদেশ সরকার ও জনগণ যে উদারতা ও মানবিকতা দেখিয়েছে, তার প্রশংসা করেন শান্তিরক্ষা মিশনের উপদেষ্টা।

এরপর সেনাবাহিনীপ্রধান অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি জেনারেল ডিপার্টমেন্ট অফ অপারেশনাল সাপোর্ট লিসা এম বুটেনহেইমের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে জাতিসংঘ সদর দপ্তরের কাছে সরকারের পাওনা ৬০ মিলিয়ন ডলার (আনুমানিক ৫০০ কোটি টাকা) পরিশোধের অনুরোধ করেন।

বিজ্ঞপিতে বলা হয়, লিসা এম বুটেনহেইম তৎক্ষণাৎ আড়াইশ কোটি টাকা পরিশোধের অঙ্গীকার করেন এবং বাকি অর্থ স্বল্প সময়ের মধ্যে পরিশোধের আশ্বাস দেন।

পরে সেনাবাহিনীপ্রধান আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল (পিস অপারেশনস) জঁ্য পিয়েরে ল্যাক্রুয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে ফরাসি ভাষাভাষী দেশগুলোতে বাংলাদেশি সেনা মোতায়েনে সক্ষমতা অর্জনে সরকারের প্রচেষ্টা সম্পর্কে জানান।

জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে দ্বিতীয় বৃহত্তম সেনা প্রেরণকারী দেশ হিসেবে বাংলাদেশ বিশ্বশান্তি রক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে। সেনাবাহিনীপ্রধানের এই পরিদর্শন জাতিসংঘ মিশনে বাংলাদেশের অংশগ্রহণ বৃদ্ধিতে তাৎপর্যপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়।

জাতিসংঘের এসব পদস্থ কর্মকর্তাকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানান জেনারেল আজিজ আহমেদ। জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনের প্রতিরক্ষা উপদেষ্টা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল খান ফিরোজ আহমেদ ও সেনাপ্রধানের সহকারী একান্ত সচিব কর্নেল কায়সার রশিদ এসব বৈঠকে তার সঙ্গে ছিলেন।

এর আগে সেনাপ্রধান জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনে পৌঁছালে স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন তাকে স্বাগত জানান এবং শান্তিরক্ষা কার্যক্রমের বিভিন্ন দিকসহ জাতিসংঘে বাংলাদেশের অংশগ্রহণের নানা দিক এবং ভবিষ্যৎ কর্ম-পরিকল্পনা অবহিত করেন।

জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর অংশগ্রহণ বৃদ্ধিসহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা ও বৈঠকে অংশ নিতে সেনাবাহিনীপ্রধান সরকারি সফরে যুক্তরাষ্ট্র অবস্থান করছেন।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে