logo
বুধবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ৭ ফাল্গুন ১৪২৬

  যাযাদি রিপোর্ট   ২৫ জানুয়ারি ২০২০, ০০:০০  

বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা

মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করাই আমাদের লক্ষ্য : প্রধানমন্ত্রী

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে শুক্রবার পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পরে ফাতিহা পাঠ ও মোনাজাত করেন

মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করাই আমাদের লক্ষ্য : প্রধানমন্ত্রী
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শুক্রবার বিকালে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ার বাসভবনে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভায় বক্তৃতা করেন -ফোকাস বাংলা

মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করাটাই সরকারের মূল লক্ষ্য বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, আমরা এই লক্ষ্য নিয়েই কাজ করে যাচ্ছি। মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনে আওয়ামী লীগ কাজ করে যাবে। শুক্রবার বিকালে গোপালগঞ্জে প্রধানমন্ত্রীর টুঙ্গিপাড়াস্থ বাসভবনে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সভায় সভাপতির বক্তব্য দেয়ার সময় তিনি এসব কথা বলেন। বঙ্গবন্ধুর নাম কেউ কখনো মুছে ফেলতে পারবে না উলেস্নখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আমরা আজকে যে প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছি, সে অর্জনের সুফল একেবারে তৃণমূল পর্যায়ের গ্রামের মানুষ যেন পায়, সেই লক্ষ্য নিয়ে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের প্রত্যেকটা নেতাকর্মীকেই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ নিয়ে চলতে হবে। এই বাংলাদেশকে আমরা জাতির পিতার ক্ষুধামুক্ত, দারিদ্র্যমুক্ত স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলব। প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, 'আমরা সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত রেখেছি। আমাদের সব অর্জনের সুফল তৃণমূলে মানুষ যেন পায়, গ্রামের মানুষ যেন পায়। সে লক্ষ্য নিয়ে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।' নতুন কমিটির শ্রদ্ধা : এদিকে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। শুক্রবার দুপুর ১টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতির পিতার সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানান। পরে ফাতেহা পাঠ ও বিশেষ মোনাজাত করে বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জানান। এ সময় সশস্ত্র বাহিনী কর্তৃক অনার গার্ড প্রদান করা হয়। পরে প্রধানমন্ত্রী নবগঠিত কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে নিয়ে বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ, ফাতেহা পাঠ ও বিশেষ মোনাজাতে অংশ নেন। নবগঠিত আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের মধ্যে সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি, প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম, মাহবুব উল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, শাজাহান খান, মতিয়া চৌধুরী, কাজী জাফর উলস্নাহ, সাহারা খাতুনসহ নবগঠিত কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ, জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতারা উপস্থিত ছিলেন। জুমার নামাজের পর বঙ্গবন্ধুর সমাধি সৌধ কমপেস্নক্স মসজিদে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে কেন্দ্রীয় নেতারা অংশ নেন। এর আগে, বেলা ১১-১০ মিনিটে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা টুঙ্গিপাড়া উপজেলা কমপেস্নক্স মাঠে নির্মিত হেলিপ্যাডে অবতরণ করেন। এ সময় হেলিপ্যাডে কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা তাকে স্বাগত জানান। পরে প্রধানমন্ত্রী বেলা ১১-২০ মিনিটে সড়কপথে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধি সৌধ কমপেস্নক্সে পৌঁছেন। বিকাল পৌনে ৪টার দিকে প্রধানমন্ত্রী হেলিকপ্টারে ঢাকার উদ্দেশে টুঙ্গিপাড়া ত্যাগ করেন। এদিকে, প্রধানমন্ত্রী ও কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের আগমনকে কেন্দ্র করে টুঙ্গিপাড়াসহ জেলার সর্বত্র তিনস্তরবিশিষ্ট নিরাপত্তা বলয় গড়ে তোলা হয়।



 



মোবাইলে পদ্মা সেতুর ছবি 

তুললেন প্রধানমন্ত্রী



যার একান্ত প্রচেষ্টায় খরস্রোতা পদ্মার ওপর সেতু হচ্ছে, স্বপ্ন বাস্তবের খুব কাছে; সেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আকাশ থেকে নিজ হাতেই মোবাইল ফোন দিয়ে ছবি তুললেন পদ্মা সেতুর।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরসহ নবগঠিত কমিটির শীর্ষ নেতাদের নিয়ে টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতার সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে ঢাকায় ফেরার পথে পদ্মার ওপর হেলিকপ্টার থেকে ছবি তোলেন দলটির সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া একটি ভিডিওতে দেখা যায় প্রধানমন্ত্রী নিজে হেলিকপ্টারের জানালা দিয়ে মোবাইলে ছবি ধারণ করছেন। এ সময় তাকে বেশ হাস্যোজ্জ্বল দেখা যায়।

প্রধানমন্ত্রীর এমন একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন তার উপ প্রেস সচিব আশরাফুল আলম খোকন।

ভিডিও শেয়ার করে তিনি লিখেছেন- ‘স্বপ্নের পদ্মা ব্রিজ আজ বাস্তবে রূপ নিচ্ছে। গভীর মমতায় পদ্মা ব্রিজ নির্মাণের অগ্রগতি দেখছেন এই স্বপ্নের স্বপ্নদ্রষ্টা ও বাস্তবায়নের কারিগর আমাদের পরম শ্রদ্ধা ও ভালোবাসার  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।’

প্রধানমন্ত্রীর আকাশ পথে পদ্মা পাড়ির হেলিকপ্টারের কিছু ছবিও ফেসবুকে ভাসছে।

প্রধানমন্ত্রীর আকাশপথে যাওয়ার ছবি ফেসবুকে দিয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের নির্বাহী প্রকৌশলী (মূল সেতু) দেওয়ান মোহাম্মদ আব্দুল কাদের।

তিনি লিখেছেন, ‘নিয়মিত পরিদর্শনের মাধ্যমে আমাদের উৎসাহিত করার জন্য প্রধানমন্ত্রী আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ। তিনি (প্রধানমন্ত্রী) টুঙ্গিপাড়া থেকে ফেরার পথে আকাশ থেকে পদ্মা সেতুর অগ্রগতি প্রত্যক্ষ করেছেন। নদীতে কর্তব্যরত ছিলাম, আমি গর্বিত।’

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার ২২তম স্প্যান বসানোর মধ্য দিয়ে ৩ হাজার ৩শ মিটার (৩.৩ কিলোমিটার) দৃশ্যমান হলো পদ্মা সেতুর।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে