logo
রোববার ১৮ আগস্ট, ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৬

  চিলমারী (কুড়িগ্রাম) সংবাদদাতা   ১৫ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০  

ব্রহ্মপুত্র তীরে দর্শনার্থীর ঢল

ব্রহ্মপুত্র তীরে দর্শনার্থীর ঢল
বিনোদনের খোঁজে চিলমারীর ব্রহ্মপুত্র নদের তীরে দর্শনার্থীদের পদচারণায় মুখরিত -যাযাদি
কুড়িগ্রামের চিলমারীতে ব্রহ্মপুত্র নদের তীরে দর্শনার্থীদের পদচারণায় মুখরিত। ঈদের দিন ও ঈদের পরেরদিন বিনোদনের খোঁজে ভিড় করছেন সাধারণ মানুষ। সব বয়সী নারী-পুরুষ, বিশেষ করে শিশুদের ভিড়ে চলছে উৎবের আমেজ।

চিলমারী নদীবন্দর ও ব্রহ্মপুত্র নদের ডানতীর রক্ষা প্রকল্পের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, হাজারও বিনোদনপ্রেমীদের উপচেপড়া ভিড়। অনেকেই তাদের আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু-বান্ধবসহ ঘুরতে এসেছেন।

দর্শনার্থী মিজানুর রহমান, এরশাদুল করিম রাজু ও ইউনুছ আলী বলেন, প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যের কেন্দ্রভূমি চিলমারী। চিলমারীজুড়েই নানা রকম দৃষ্টিনন্দন সৌন্দর্য্য ছড়িয়ে-ছিটিয়ে আছে। বিশেষ দিনগুলোতে চিলমারীবাসী ছাড়াও পার্শ্ববর্তী উপজেলার অনেক মানুষ ব্রহ্মপুত্র নদের তীরে বেড়াতে আসেন। এটাকে কাজে লাগিয়ে চিলমারীকে পর্যটন এলাকা হিসেবে গড়ে তোলা এখন সময়ের দাবি।

রুকুনুজ্জামান মানু বলেন, ব্রহ্মপুত্র নদের ডানতীর এবং নদীবন্দর এলাকায় পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে ওঠার অপার সম্ভাবনা রয়েছে। নিরাপত্তাব্যবস্থা, পাবলিক টয়লেট, কংক্রিটের বেঞ্চ নির্মাণসহ বিভিন্ন বিষয়ে পদক্ষেপ নেয়া প্রয়োজন।

এ ব্যাপারে চিলমারীর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মামুন অর রশিদ বলেন, চিলমারী উপজেলা ব্রিটিশ আমল থেকে নানা কারণে গুরুত্বপূর্ণ। সে সময় গড়ে ওঠে নদীবন্দর। গুরুত্বপূর্ণ এই বন্দরটি ফের সচলের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, চিলমারী ব্রহ্মপুত্র নদের পরিপূর্ণ সম্ভাবনা কাজে লাগাতে হলে ব্রহ্মপুত্র নদকে ঘিরে সুপরিকল্পিত কিছু পদক্ষেপ নেয়ার পাশাপাশি অবকাঠামোগত বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা বাড়ানো প্রয়োজন।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে