logo
বৃহস্পতিবার ২০ জুন, ২০১৯, ৬ আষাঢ় ১৪২৬

  যাযাদি ডেস্ক   ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০  

গণপূতর্মন্ত্রী ১ ঘণ্টা হঁাটলেন জাম্বুরি পাকের্!

কাউকে না জানিয়ে গণপূতর্মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন সাড়া জাগানো জাম্বুরি পাকের্ সারপ্রাইজ ভিজিট করলেন। কথা বললেন শরীরচচার্ করতে আসা বিভিন্ন বয়সী মানুষের সঙ্গে। জানতে চাইলেন, পাকের্ আর কী কী সংযোজন করা যায়।

দিকনিদের্শনা দিলেন গণপূতর্ বিভাগের কমর্কতাের্দর। শুধু আকস্মিক পরিদশর্ন আর দিকনিদের্শনা নয়, পাক্কা এক ঘণ্টা হঁাটলেন পুরো পাকের্।

শুক্রবার সকালে নন্দনকাননের বাসা থেকে চালককে নিয়ে বেরিয়ে পড়েন মন্ত্রী। সোজা আগ্রাবাদের জাম্বুরি পাকের্। খবর পেয়ে পড়িমরি করে ছুটে যান গণপূতর্ বিভাগের নিবার্হী প্রকৌশলী আহমেদ আবদুল্লাহ নূরও।

প্রকৌশলী নূর বলেন, ৮ দশমিক ৫৫ একর জমির ওপর সাড়ে ১৮ কোটি টাকা ব্যয়ে আট হাজার রানিং ফুটের পাকর্ এবং ৫০ হাজার বগর্ফুটের জলাধার পরিচ্ছন্ন রাখতে মন্ত্রী গুরুত্বপূণর্ নিদের্শনা দিয়েছেন। ফোয়ারার পাইপগুলোতে (নজল) যাতে বাদামের খোসা, পলিথিন, প্লাস্টিক ঢুকে নষ্ট না হয়, সে জন্য ফোয়ারা বরাবর জাল (নেট) বসাতে বলেছেন। আধঘণ্টা পরপর পাকের্ আসা লোকজনকে পরিচ্ছন্নতার ব্যাপারে সচেতন করতে মাইকে ঘোষণা দিতে বলেছেন। পাকের্ কিছু কবুতর পোষার জন্য পরামশর্ দিয়েছেন।

যারা পাকর্ অপরিচ্ছন্ন করবে, ময়লা ফেলবে সিসিটিভিতে নজরদারির মাধ্যমে তাৎক্ষণিকভাবে তাদের দিয়ে পরিচ্ছন্ন করানোর জন্য বলেছেন মন্ত্রী।

এক প্রশ্নের উত্তরে প্রকৌশলী নূর বলেন, প্রতিদিন ভোর সাড়ে ৫টা থেকে ১০টা পযর্ন্ত এবং বিকাল ৩টা থেকে রাত ৮টা পযর্ন্ত পাকর্ খোলা রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এই প্রকল্পের উদ্দেশ্য হচ্ছে শরীরচচার্র জন্য প্রশস্ত ও দীঘর্ জগিং ট্র্যাক, বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের মানসিক প্রশান্তির জন্য উন্মুক্ত উদ্যান এবং নিমর্ল বাতাসের জন্য জলাধার স্থাপন।

গত ৮ সেপ্টেম্বর জাম্বুরি পাকের্র আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন গণপূতর্মন্ত্রী।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে