logo
বুধবার ২১ আগস্ট, ২০১৯, ৬ ভাদ্র ১৪২৬

  যাযাদি রিপোর্ট   ১৪ মে ২০১৯, ০০:০০  

মৎস্যজীবী দলের নেতাদের নিয়ে রিজভীর ঝটিকা মিছিল

মৎস্যজীবী দলের নেতাদের নিয়ে রিজভীর ঝটিকা মিছিল
রাজধানীর নয়াপল্টনের বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে সোমবার দলের সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর নেতৃত্বে মৎস্যজীবী দলের নেতারা বিক্ষোভ মিছিল করে -যাযাদি

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে ঝটিকা বিক্ষোভ মিছিল করেছে জাতীয়তাবাদী মৎস্যজীবী দলের নেতারা। আজ সোমবার সকালে অনুষ্ঠিত এ মিছিলে নেতৃত্ব দেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী আহমেদ। বিএনপির সহ-দপ্তর সম্পাদক মুহাম্মদ মুনির হোসেন স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে আজ সকাল সাড়ে ১০টায় বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী মৎস্যজীবী দলের একটি বিক্ষোভ মিছিল নয়াপল্টনের বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে শুরু হয়ে নাইটিঙ্গেল মোড় ঘুরে ফের দলীয় কার্যালয়ের কাছে এসে শেষ হয়। মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে রিজভী আহমেদ বলেন, সরকারপ্রধান এখন সেরা ডিক্টেটর হিসেবে সারা দুনিয়ায় পরিচিতি লাভ করেছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও প্রশাসন যন্ত্রকে কব্জায় নিয়ে তিনি ইচ্ছা-অনিচ্ছায় দেশ শাসন করছেন। বিএনপির এই নেতার ভাষ্য, দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে দেশের জনগণ যাতে বর্তমান অবৈধ সরকারের এই জুলুমের শাসনের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে না পারে সেজন্য গণতন্ত্র মুক্তি আন্দোলনের আপসহীন নেত্রী খালেদা জিয়াকে ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনের ১০ মাস আগেই মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে কারান্তরীণ করা হয়েছে। মধ্যরাতের ভোটের সরকার বলেই বর্তমান অবৈধ শাসকগোষ্ঠী জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকারকে মাটিচাপা দিয়ে বিএনপিসহ সকল বিরোধী দলকে নিশ্চিহ্ন করার লক্ষ্যে একদলীয় বাকশালী শাসন প্রতিষ্ঠা করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। কিন্তু জনগণ আওয়ামী শাসকগোষ্ঠীর এই স্বপ্ন কোনোদিনই বাস্তবায়িত হতে দেবে না। তিনি অবিলম্বে দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে তার পছন্দের হাসপাতালে সুচিকিৎসার সুযোগ প্রদানসহ নিঃশর্ত মুক্তির জোর দাবি জানান। মিছিলে বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ, মৎস্যজীবী দলের আহ্‌বায়ক রফিকুল ইসলাম মাহতাব, সদস্য সচিব আব্দুর রহিম, যুগ্ম আহ্‌বায়ক জাকির হোসেন খান, ফরিদ আহমেদ মানিক, কবির উদ্দিন মাস্টার, তারিকুল ইসলাম মধু, জহিরুল ইসলাম বাশার, এ কে এম ওয়াজেদ, সাইদুল ইসলাম টুলু, সাইফুল ইসলাম রাশেদ, এম এ হান্নান, সদস্য হেমায়েত উদ্দিন হিমু, শরীফুল ইসলাম রিপন, শাহীন উদ্দিন স্বপন, ইসমাইল হোসেন সিরাজী প্রমুখ অংশগ্রহণ করেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে