logo
বৃহস্পতিবার, ২৩ জানুয়ারি ২০২০, ৯ মাঘ ১৪২৬

  যাযাদি রিপোর্ট   ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

'যুদ্ধাপরাধীকে শহিদ বলার মানে দেশকে অস্বীকার করা'

শহিদ বুদ্ধিজীবী ডা. আলীম চৌধুরীর মেয়ে ডা. নুজহাত চৌধুরী বলেছেন, যুদ্ধাপরাধের দায়ে ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত আসামিকে 'শহিদ' বলার মানে বাংলাদেশকে অস্বীকার করা।

শনিবার শহিদ বুদ্ধিজীবী দিবসে মিরপুরের রায়েরবাজার শহিদ বুদ্ধিজীবী সমাধিসৌধে শ্রদ্ধা জানাতে এসে তিনি এ মন্তব্য করেন।

নুজহাত চৌধুরী বলেন, যুদ্ধাপরাধের দায়ে ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত আসামি কাদের মোলস্নাকে 'শহিদ' বলা মানে বাংলাদেশকে অস্বীকার করা। আমার বাবার হত্যাকারীরা যদি শহিদ হন, তাহলে আমার বাবাসহ অন্য শহিদদেরা কী রাজাকার বলতে চান?

ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি বলেন, যারা রাজাকারদের 'শহিদ' বলেন তাদের বাংলাদেশের নাগরিকত্ব থাকার অধিকার নেই। দৈনিক সংগ্রামের প্রকাশক ও সম্পাদককে গ্রেফতার করে রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলা করে বিচার করতে হবে।

শহিদ সাংবাদিক-সাহিত্যিক শহীদুলস্নাহ কায়সারের মেয়ে শমী কায়সায় বলেন, শহিদ বুদ্ধিজীবীদের সঠিক তালিকা করতে হবে। একই সঙ্গে রাজাকারদের সঠিক তালিকাও করতে হবে। আমরা যারা শহিদ পরিবারের সন্তান এবং মুক্তিযুদ্ধের সঠিক চেতনায় বিশ্বাসী আমাদের সংঘবদ্ধ হতে হবে।

সকাল থেকেই সর্বস্তরের মানুষ শ্রদ্ধার ফুল নিয়ে ভিড় জমাতে শুরু করেন রায়েরবাজার শহিদ বুদ্ধিজীবী সমাধিসৌধে। তারা বিনম্র শ্রদ্ধা জানাচ্ছেন দেশের শ্রেষ্ঠ সন্তানদের।

এর আগে বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) যুদ্ধাপরাধের দায়ে ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত আসামি কাদের মোলস্নাকে 'শহিদ' আখ্যায়িত করে প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এর পর থেকেই বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে