logo
সোমবার, ২০ জানুয়ারি ২০২০, ৭ মাঘ ১৪২৭

  যাযাদি রিপোর্ট   ১৫ জানুয়ারি ২০২০, ০০:০০  

২৪ ঘণ্টাই নাগরিক সেবা: তাপস

২৪ ঘণ্টাই নাগরিক সেবা: তাপস
রাজধানীর কামরাঙ্গীরচর থানার ঝাউচরের বড় মসজিদসংলগ্ন সড়কে নির্বাচনী পথসভায় বক্তৃতা করেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস -যাযাদি

মেয়র নির্বাচিত হলে প্রতিদিন ২৪ ঘণ্টাই নাগরিক সেবায় নিয়োজিত থাকবেন বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) নৌকা মার্কার মেয়রপ্রার্থী ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস। মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টায় রাজধানীর কামরাঙ্গীরচর থানার ঝাউচরের বড় মসজিদসংলগ্ন সড়কে নির্বাচনী পথসভায় তিনি এ কথা বলেন। শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন, 'অবহেলিত এ কামরাঙ্গীরচর যেন আধুনিক ঢাকার রূপ পায়, আমরা সে লক্ষ্যে কাজ করব। আমি নৌকা মার্কার প্রার্থী হিসেবে আপনাদের কাছে এসেছি। আপনারা সুযোগ দিলে আমরা আমাদের প্রাণের, ভালোবাসার ঢাকাকে উন্নত ঢাকা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে কাজ করে যাবো।' ব্যারিস্টার তাপস তার উন্নয়ন পরিকল্পনা প্রসঙ্গে বলেন, 'ঢাকাকে উন্নত করতে আমরা পাঁচ ধাপের মহাপরিকল্পনা নিয়েছি। প্রথমত আমাদের ঐতিহ্য ঢাকা, দ্বিতীয়ত আমাদের সুন্দর ঢাকা, তৃতীয়ত সচল ঢাকা, চতুর্থত সুশাসিত ঢাকা এবং সর্বশেষ উন্নত ঢাকার করা পরিকল্পনা রয়েছে।' গত কয়েক দিনে নির্বাচনী প্রচারণার কথা উলেস্নখ করে তিনি বলেন, চার দিন ধরে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের আওতায় বিভিন্ন জায়গায় নির্বাচনী প্রচারণায় স্বতঃস্ফূর্তভাবে জনগণ এগিয়ে এসেছে এবং আমাদের পরিকল্পনায় ব্যাপক সাড়া দিয়েছে। তিনি বলেন, 'বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলার মানুষ আমরা যারা ঢাকায় বসবাস করি, এ ঢাকা আমাদের সবার। আমরা সবাই ঢাকাবাসী। এ আমাদের প্রাণের শহর। আমরা সবাই মিলে এ শহর আধুনিক এবং উন্নত করব। সে অঙ্গীকার নিয়ে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মাধ্যমে উন্নত ঢাকা গড়ে তুলতে চাই। আমি বিশ্বাস করি আমাদের এ যাত্রায় ঢাকাবাসী ৩০ জানুয়ারি স্বতঃস্ফূর্তভাবে সমর্থন দেবেন।' নৌকা মার্কার প্রার্থী ব্যারিস্টার তাপস বলেন, আমরা নির্বাচিত হলে পাঁচ বছরের মধ্যে বছরের ৩৬৫ দিন, সপ্তাহের সাত দিন, ২৪ ঘণ্টা, প্রতিদিনের ৮৬ হাজার ৪০০ সেকেন্ড নাগরিক সেবায় নিয়োজিত থাকব। নগরবাসীর জন্য নগরভবন ২৪ ঘণ্টাই সেবা দেওয়ার জন্য খোলা থাকবে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য মুকুল বোস এবং হাজী আবুল হাসনাত, কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আফম বাহাউদ্দীন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, ঢাকা দক্ষিণের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক অপু উকিলসহ স্থানীয় নেতাকর্মীরা।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে