logo
শনিবার, ০৮ আগস্ট ২০২০, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৬

  ক্রীড়া প্রতিবেদক   ০৭ জুলাই ২০২০, ০০:০০  

করোনাকাল

হঠাৎ মিরপুরে মুশফিক

মিরপুর ঘুরে যাওয়ার পর কিছুটা হলেও চাঙা থাকবেন মুশফিক। ব্যাটিং-কিপিং অনুশীলনটা না হলেও প্রিয় মাঠটিতো দেখা হলো। সেটাই-বা কম কীসে!

হঠাৎ মিরপুরে মুশফিক
১১২ দিন পর সোমবার মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে পা রাখলেন মুশফিকুর রহিম -ফেসবুক
বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমী তো বটেই, সারাবিশ্বের ক্রিকেটপ্রেমীদের কাছেই পরিচিত একটি ভেনু্য মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়াম। সারাবছরই বিভিন্ন ধরনের ক্রিকেট ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয় এই মাঠে। তবে করোনাভাইরাসের কারণে দীর্ঘদিন ধরেই এখানে খেলা বন্ধ। এমনকি ঘরে বন্দি থাকায় জাতীয় দলের ক্রিকেটাররাও এখানে আসতে পারেননি।

অন্যান্য সময় ঐচ্ছিক অনুশীলনের দিনগুলোতে সবার আগে মাঠে উপস্থিত হতে দেখা যেত মুশফিকুর রহিমকে। সেই মুশফিকই গত চার মাস ধরে গৃহবন্দি। তবে সেখানেও বসে থাকেননি। বাসা, গ্যারেজ, বাড়ির সামনের রাস্তাকে রীতিমতো অনুশীলন কেন্দ্র বানিয়ে ফেলেছেন। তাতেও অবশ্য মন ভড়ছে না তার। অবশেষে প্রায় চার মাস পর মুশফিকুর রহিম সোমবার দুপুরে হঠাৎ করেই মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে হাজির হয়ে গেছেন। সেটা আবার ফেসবুকের মাধ্যমে ভক্তদেরও জানিয়ে দিয়েছেন। জানালেন, মিস করছেন এই ভেনু্যকে।

সোমবার নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে একটি ছবি পোস্ট করেন মুশফিক। সেখানে মুখে মাস্ক পরিহিত অবস্থায় তাকে মিরপুর স্টেডিয়ামে দেখা যায়। ছবির ক্যাপশনে লেখেন, 'সবাইকে সালাম। আমি এই অসাধারণ মাঠটি অনেক বেশি মিস করছিলাম। একমাত্র আলস্নাহই জানেন আমরা আবার কবে এখানে অনুশীলন শুরু করতে পারব!'

এই সময়ে ক্রিকেটাররা পুরোপুরি গৃহবন্দি। বিসিবির দেওয়া রুটিন মেনে ফিটনেস নিয়েও কাজ করছেন তারা। জানা গিয়েছিল, গত মাসে নিজ উদ্যোগে মিরপুরে অনুশীলন করার অনুমতি চেয়েছিলেন মুশফিক। কিন্তু বিসিবি তার আবেদনে সাড়া দেয়নি। করোনাকাল হওয়াতেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছিল বিসিবি। তবে ক্রিকেট ফেরাতে প্রস্তুতি নিচ্ছে ক্রিকেট বোর্ডও। তবে অনুশীলনের আনুষ্ঠানিক অনুমতি না মিললেও সোমবার হোম অব ক্রিকেটের সবুজ ঘাস মাড়িয়ে গেলেন মুশফিক।

স্মৃতির পাতা ঘুরে দেখা যায় চলতি বছরের ১৫ মার্চ শেষবারের মতো এই মাঠে খেলেছিলেন মুশফিক। প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে সেদিন আবাহনী লিমিটেডের হয়ে মাঠে নেমেছিলেন তিনি। এরপর করোনাভাইরাসের কারণে বন্ধ হয়ে যায় সবকিছু। দিনের হিসেবে ১১২ দিন পর বহু স্মৃতিবিজড়িত এই স্টেডিয়ামে পা রাখলেন তিনি। অবশ্য করোনাভাইরাসের এই সময়ে বাসায় থেকেই নিয়মিত ফিটনেস চর্চা করেছেন মুশফিক। এছাড়া দেশের নানা প্রান্তের মানুষদের জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন তিনি।

ক্রিকেটের প্রতি মুশফিকের এই আবেগ-ভালোবাসা সতীর্থদের সবারই জানা। তাইতো তামিমের লাইভ আড্ডায় মুশফিককে নিয়ে মাশরাফি মজা করেই বলেছিলেন, 'মাঠ এবং অনুশীলন ছাড়া তো মুশফিক বেশিদিন থাকতে পারবে না। দম বন্ধ হয়ে মারা যাবে।'

গতকাল মিরপুর ঘুরে যাওয়ার পর কিছুটা হলেও চাঙা থাকবেন মুশফিক। ব্যাটিং-কিপিং অনুশীলনটা না হলেও প্রিয় মাঠটিতো দেখা হলো। সেটাই-বা কম কীসে!
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে