logo
মঙ্গলবার, ০৪ আগস্ট ২০২০, ২০ শ্রাবণ ১৪২৬

  ক্রীড়া ডেস্ক   ১১ জুলাই ২০২০, ০০:০০  

জিতেই চলেছে ম্যানইউ

জিতেই চলেছে ম্যানইউ
ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে বৃহস্পতিবার অ্যাস্টন ভিলার বিপক্ষে গোল করায় পল পগবাকে ঘিরে সতীর্থরা উচ্ছ্বাস করছেন। শেষ পর্যন্ত বড় জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড -ওয়েবসাইট
ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ভক্তদের হাসি যেন থামতে চাইছেই না। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা জেতা হবে না নিশ্চিত। তবুও লিগের শেষ প্রান্তে রেডডিভিলরা যেভাবে একের পর এক ম্যাচ জিতছে, তাতে আগামী মৌসুমের জন্য বড় কিছুর প্রত্যাশা করতেই পারেন ভক্তরা। বৃহস্পতিবার রাতেও প্রিমিয়ার লিগে জয়ের ধারা ধরে রেখেছে ম্যানইউ। প্রতিপক্ষের মাঠে ব্রম্ননো ফার্নান্দেসের নৈপুণ্যে অবনমন অঞ্চলের দল অ্যাস্টন ভিলাকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে টানা চতুর্থ জয় পেয়েছে ওলে গুনার সুলশারের দল। রাতের অপর দুই ম্যাচে বোর্নমাউথের মাঠে টটেনহাম হটস্পার গোলশূন্য ড্র আর এভারটন নিজেদের মাঠে সাউদাম্পটনের সঙ্গে ১-১ ড্র করে মাঠ ছেড়েছে।

ব্রম্নরো ফার্নান্দেসকে নিয়ে দারুণ আশাবাদী সবাই। বৃহস্পতিবার ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের জয়ে সেই তিনিই কলকাঠি নেড়ে আশাটা আরও বড় করেছেন। নিজে গোল করেছেন। আবার সতীর্থকে দিয়ে করিয়েছেন গোল। এদিন রাতে অ্যাস্টন ভিলাকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে রেডডেভিলরা। সব ধরনের প্রতিযোগীতা মিলিয়ে ১৭ ম্যাচ অপরাজিত তারা। এ বছরের জানুয়ারিতে শেষ হেরেছিল ম্যানইউ। এরপর তাদের জয়রথ ছুটছেই। বিশেষ করে করোনা পরবর্তীকালে ফিরে এসে দুর্দান্ত খেলছে রেড ডেভিলরা।

১৯৮৭ সালের পর প্রিমিয়ার লিগের প্রথম দল হিসেবে টানা চার ম্যাচে ৩ গোলের ব্যবধানে ম্যাচ জিতল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ৩৩ বছর আগে এমন কীর্তি গড়েছিল লিভারপুল। প্রতিপক্ষের মাঠে বৃহস্পতিবার রাতে রেড ডেভিলদের হয়ে হয়ে একটি করে গোল করেন ব্রম্ননো ফার্নান্দেস, ম্যাসন গ্রিনউড ও পল পগবা। ৩৪ ম্যাচে এটি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ১৬তম জয়। ১০ ম্যাচ তারা ড্র করেছে, হেরেছে আটটি। ৫৮ পয়েন্ট নিয়ে এখনো রয়েছে লিগের পঞ্চম স্থানে আছে ওলে গুনার সুলশারের দল। সমান ম্যাচে লেস্টার সিটি ৫৯ পয়েন্ট নিয়ে চারে, চেলসি ৬০ পয়েন্ট নিয়ে তিনে, ম্যানচেস্টার সিটি ৬৯ পয়েন্ট নিয়ে দুই নম্বরে আছে। চ্যাম্পিয়ন লিভারপুলের পয়েন্ট ৯২।

করোনাভাইরাস বিরতির পর পুনরায় শুরু হওয়া লিগের এই পর্বে প্রথম ম্যাচে টটেনহাম হটস্পারের মাঠে ১-১ ড্র করেছিল তারা। এরপর জিতেই চলেছে। সব প্রতিযোগিতা মিলে এই নিয়ে টানা ১৭ ম্যাচ অপরাজিত রইল রেকর্ড ২০ বারের লিগ চ্যাম্পিয়নরা। ম্যাচের প্রথম 'কুলিং ব্রেক' এর পরপরই অবশ্য গোল খেতে বসেছিল ইউনাইটেড। অ্যাস্টনের ডাচ মিডফিল্ডার আনোয়ার এল গাজির শট লাগে পোস্টে। ২৭তম মিনিটে সফল স্পট-কিকে সফরকারীদের এগিয়ে নেন ফার্নান্দেস। পর্তুগিজ এই মিডফিল্ডার নিজেই ফাউলের শিকার হলে পেনাল্টি দিয়েছিলেন রেফারি। প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন গ্রিনউড। অঁতনি মার্সিয়ালের সঙ্গে বল দেওয়া-নেওয়া করে ডি-বক্সের মুখ থেকে জোরালো শটে ঠিকানা খুঁজে নেন তরুণ ইংলিশ ফরোয়ার্ড। ৫৮তম মিনিটে দারুণ এক গোলে স্কোরলাইন ৩-০ করেন পগবা।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে