logo
  • Wed, 14 Nov, 2018

  ক্রীড়া ডেস্ক   ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০  

কলম্বিয়ার বিপক্ষে আজেির্ন্টনার গোলশূন্য ড্র

ব্রাজিলের জয়ে উজ্জ্বল রিচালির্সন

ব্রাজিলের জয়ে উজ্জ্বল রিচালির্সন
সতীথর্ নেইমারের সঙ্গে রিচালির্সনের গোল উদযাপন। বুধবার এল সালভাদরের বিপক্ষে জোড়া গোল করে ব্রাজিলের বড় জয়ে অবদান রাখেন এভারটনের এই ফরোয়াডর্ Ñওয়েবসাইট
ব্রাজিলের বড় তারকা নেইমার, ফিলিপ কুতিনহো। সেলেকাওদের জয়ে প্রত্যক্ষ কিংবা পরোক্ষভাবে অবদান থাকে তাদের। তবে বুধবার তাদের ছাপিয়ে খবরের শিরোনাম হয়েছেন ২১ বছর বয়সী রিচালির্সন। তার জোড়া গোলে প্রীতি ম্যাচে এল সালভাদরকে ৫-০ ব্যবধানে বিধ্বস্ত করেছে ব্রাজিল। সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে জিতেছে ইংল্যান্ডও। তবে কলম্বিয়ার সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করেছে মেসিহীন আজেির্ন্টনা।

যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে সপ্তাহের শুরুতে অভিষেক হয়েছিল এভারটন ফরোয়াডর্ রিচালির্সনের। ওই ম্যাচের শেষ পনের মিনিট খেলে গোশূন্য ছিলেন তিনি। তবে র‌্যাংকিংয়ের ৭২ নাম্বারে থাকা এল সালভাদরের বিপক্ষে শুরুর একাদশে সুযোগ পেয়েই জ্বলে উঠলেন এই উদীয়মান তারকা। নিজের পারফরম্যান্সে আত্মতৃপ্ত রিচালির্সন ম্যাচ শেষে বলেছেন, ‘সত্যিই আমি খুব খুশি। একটা স্বপ্ন সত্যি হয়েছে।’

যুক্তরাষ্ট্রের মেরিল্যান্ডে অনুষ্ঠিত ম্যাচটিতে অবশ্য ব্রাজিলকে প্রথম গোল এনে দিয়েছেন অধিনায়ক নেইমার। শুরুর বঁাশির মাত্র ৪ মিনিটের মাথায় পেনাল্টি থেকে ক্যারিয়ারের ৫৯তম গোলটি করেন পিএসজি তারকা। আর তিনটি গোল পেলেই নেইমার ছুয়ে ফেলবেন রোনালদোকে, ৬২ গোল নিয়ে ব্রাজিলের সবর্কালের সেরা গোলদাতার তালিকায় দুই নাম্বারে আছেন যিনি।

১৬ মিনিটে অভিষেক গোলের দেখা পান রিচালির্সন। ডান পায়ের দারুণ এক শটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে ফেলেন তিনি। এরপর কুতিনহোর কল্যাণে ৩-০ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে প্রথমাধর্ শেষ করে সেলেকাওরা। দ্বিতীয়াধের্র শুরুতেই নিজের দ্বিতীয় গোলের দেখা পান রিচালির্সন। ৯০ মিনিটে ব্রাজিলের জয়টাকে আরও বড় করে তুলেন মাকুর্ইনহস।

মেটলাইফ স্টেডিয়ামে আজের্ন্টাইন ভক্তরা হতাশই হয়েছেন। কলম্বিয়ার বিপক্ষে পুরো ৯০ মিনিট খেলেও যে তাদের একটা গোল উপহার দিতে পারলেন না দিবালা-ইকাদির্রা। অবশ্য মেসিহীন আজেির্ন্টনার পারফরম্যান্স খুব একটা খারাপ ছিল না। কলম্বিয়ার চেয়ে আক্রমণ বেশিই করেছে তারা। কিন্তু ফিনিশিং দিতে পারেননি কেউই।

ভারপ্রাপ্ত কোচ লিওনেল স্কালোনি গুয়েতেমালার বিপক্ষে ৩-০ ব্যবধানে জেতা দল নামাননি এই ম্যাচে। অনেকদিন বাদে শুরুর একাদশে সুযোগ পান ব্রাত্য হয়ে পড়া ইকাদির্। দ্বিতীয়াধের্ নামানো হয় দিবালা আর ক্রিশ্চিয়ান পাভোনকেও। তাদের পারফরম্যান্স নিয়ে ম্যাচ শেষে স্কালোনি বলেছেন, ‘আমরা প্রথমাধের্ই সেরা মুহূতর্ কাটিয়েছি। ছেলেরা ভালো খেলেছিল। অন্যতম সেরা একটা দলের বিপক্ষে তাদের লড়তে হয়েছে, যারা বিশ্বকাপে কোয়াটার্র ফাইনালে খেলেছে।’

বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ক্রোয়েশিয়া, তৃতীয় স্থান নিধার্রণী লড়াইয়ে বেলজিয়াম আর সবের্শষ উয়েফা নেশন্স লিগে ফ্রান্সের বিপক্ষে টানা তিনটি হার দেখেছিল ইংল্যান্ড। অবশেষে জয়ের ধারায় ফিরেছে গ্যারেথ সাউথগেটের দল। প্রীতি ম্যাচে মাকোর্স রাশফোডের্র একমাত্র গোলে তারা হারিয়েছে সুইজারল্যান্ডকে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
অাইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে