logo
বৃহস্পতিবার ২১ মার্চ, ২০১৯, ৭ চৈত্র ১৪২৫

  ক্রীড়া ডেস্ক   ১৩ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০  

রোহিতের সেঞ্চুরির পরও ভারতের হার

রোহিতের সেঞ্চুরির পরও ভারতের হার
অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে ১৩৩ রানের ইনিংস খেলার পথে রোহিত শমার্। তার ২২তম সেঞ্চুরিটিও অবশ্য জয় এনে দিতে পারেনি ভারতকে Ñওয়েবসাইট
সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে দারুণ একটা ইনিংস খেললেন ভারতীয় ওপেনার রোহিত শমার্। তবু আফসোস! তার ১৩৩ রানের ইনিংসটিও যে জয় এনে দিতে পারেনি ভারতকে। শনিবার সিডনিতে বিরাট কোহলির দলকে ৩৪ রানে হারিয়ে তিন ম্যাচের সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেছে অস্ট্রেলিয়া। টস জিতে ব্যাট করতে নেমে নিধাির্রত ৫০ ওভারে ৫ উইকেটে ২৮৮ রান সংগ্রহ করে অজিরা। জবাবে ৯ উইকেটে ২৫৪ রানে থামে ভারত।

ওয়ানডে সিরিজে শুধু জাসপ্রিত বুমরাকে বিশ্রাম দিয়েছে ভারত, সেখানে টেস্ট সিরিজে খেলা সব পেসারকেই বিশ্রাম দিয়েছে অস্ট্রেলিয়া, সুযোগ দিয়েছে নতুনদের। সেই নতুনরাই সবর্নাশ করেছে ভারতের। অভিষিক্ত জ্যাসন বেরেনডফর্ আর ঝাই রিচাডর্সন মিলে কঁাপিয়ে দিয়েছেন ভারতের টপঅডার্র। ২৮৯ রানের জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ৪ রানেই ৩ উইকেট খুইয়ে বসে অতিথিরা।

ইনিংসের প্রথম ওভারেই আউট হন শিখর ধাওয়ান। তাকে লেগবিফোরের ফঁাদে ফেলে বেরেনডফর্ পান ওয়ানডেতে প্রথম উইকেটের স্বাদ। চতুথর্ ওভারে বল করতে এসে রিচাডর্সন হানেন জোড়া আঘাত। প্রথমে অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে (৩) মাকার্স স্টয়নিসের ক্যাচ বানিয়ে ফেরান। এরপর তুলে নেন আম্বাতি রাইডুকে (০)। এরপর ক্রিজে এসে রোহিতের সঙ্গে দলের হাল ধরেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। নেমেই সিঙ্গেল নিয়ে ভারতের পঞ্চম ক্রিকেটার হিসেবে ওয়ানডের ‘দশ হাজারি’ ক্লাবে পা রাখেন তিনি।

মাইলফলক ছেঁায়ার দিনে দারুণ ধৈযের্র পরীক্ষা দিয়েছেন ধোনি। প্রথম ২৮ বল মোকাবিলায় মাত্র ৬ রান আসে তার ব্যাট থেকে। এ সময় রোহিতও খেলেছেন রয়ে-সয়ে। এতোটাই যে, ১৪তম ওভারে প্রথম ছক্কা এবং প্রথম চারের দেখা মেলে ইনিংসের ২১তম ওভারে। তবে সেট হয়ে যাওয়ার পর একটু আগ্রাসী হয়ে ওঠে রোহিত-ধোনি জুটি। শেষতক ৫১ রান করা ধোনিকে ফিরিয়ে ১৩৭ রানের জুটি ভাঙেন বেরেনডফর্।

ধোনির পর উইকেট এসে সুবিধা করে উঠতে পারেননি দিনেশ কাতির্ক। ২১ বলে ১২ রান করে আউট হন। তবে রোহিত ছিলেন অটল। ২২তম ওয়ানডে সেঞ্চুরি তুলে নেন এই ডানহাতি ওপেনার। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এটা রোহিতের সপ্তম সেঞ্চুরি, অস্ট্রেলিয়াতে চতুথর্। অজিদের মাঠে তাদেরই বিপক্ষে এত সেঞ্চুরি করতে পারেননি কেউ। শচিন টেন্ডুলকার, ভিভ রিচাডর্স, বায়ানর্ লারা কিংবা হালের বিরাট কোহলিও নন।

সেঞ্চুরির পর রোহিত ব্যাট চালাতে থাকেন সপাটে। কিন্তু একা একা আর কতক্ষণ দলকে টেনে নেয়া যায়? রবিন্দ্র জাদেজা (৮) আউট হওয়ার পর শেষ ৫ ওভারে ভারতের প্রয়োজন ছিল ৭৫ রান। ৪৬তম ওভারের চতুথর্ বলে স্টয়নিসের ফুলটসটা মিডঅফ দিয়ে সীমানার বাইরে পাঠান রোহিত। মারতে গিয়েছিলেন পরের বলেও। কিন্তু টাইমিং গড়বড় হলো, বল ওঠে যায় উপরে। মিডউইকেটে দঁাড়িয়ে থাকা গেøন ম্যাক্সওয়েল সেটি তালুবন্দি করতে কোনো রকম ভুল করেননি। ফেরার আগে ১২৯ বলে ১০টি চার আর ৬টি ছক্কায় ১৩৩ রান করেন রোহিত।

মূলত রোহিত আউট হওয়ার পর জয়টা অস্ট্রেলিয়ার হাতের মুঠোয় চলে আসে। পরের ব্যাটসম্যানরা কেবল ভারতের পরাজয়ের ব্যবধানটাই কমিয়েছেন যা। অজিদের পক্ষে ১০ ওভারের অসাধারণ এক স্পেলে ২৬ রানে ৪ উইকেট তুলে ম্যাচসেরা হন রিচাডর্সন। বেরেনডফর্ আর স্টয়নিস নিয়েছেন দুটি করে উইকেট। এর আগে উমান খাজা (৫৯), শন মাশর্ (৫৪) আর পিটার হ্যান্ডসকম্বের (৭৩) হাফসেঞ্চুরি আর স্টয়নিসের অপরাজিত ৪৭ রানে ভর করে ২৮৮ রান সংগ্রহ করে অস্ট্রেলিয়া।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
অাইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে