logo
রোববার ১৮ আগস্ট, ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০০:০০  

সংবাদ সংক্ষেপ

টাইগারদের ম্যাচ দেখাবে চ্যানেল নাইন

ক্রীড়া প্রতিবেদক

বিশ্বকাপের বছরে গুরুত্বপূণর্ সফরে বাংলাদেশ। জাতীয় দলের সদস্যরা বতর্মানে অবস্থান করছেন নিউজিল্যান্ডে। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) কারণে কয়েক ভাগে দেশ ছাড়তে হয়েছে মাশরাফি-তামিমদের।

এই সফরে তিন ম্যাচের ওয়ানডে ও টেস্ট সিরিজে মুখোমুখি হবে দুই দল। আগামী ১৩ তারিখ বুধবার থেকে শুরু হচ্ছে সীমিত ওভারের সিরিজ। নেপিয়ারে প্রথম ম্যাচটি বাংলাদেশ সময় সকাল ৭টায় শুরু হবে। ওয়ানডে সিরিজের দ্বিতীয় ও তৃতীয় ম্যাচগুলো যথাক্রমে ১৬ ফেব্রæয়ারি ক্রাইস্টচাচর্ ও ২০ ফেব্রæয়ারি ডানেডিনে হবে। সিরিজের বাকি দুই ম্যাচ শুরু হবে বাংলাদেশ সময় ভোর চারটায়।

বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড সিরিজের ম্যাচগুলো সরাসরি স¤প্রচার করবে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল নাইন। সোমবার চ্যানেল নাইনের পক্ষ থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানানো হয়েছে।

বিশ্বকাপের পর কোচিং ছাড়বেন ম্যাকমিলান

ক্রীড়া ডেস্ক

নিউজিল্যান্ডের ব্যাটিং কোচ হিসেবে পঁাচ বছর ধরে কাজ করছেন ক্রেইগ ম্যাকমিলান। তবে কাজটা আর বেশিদিন চালিয়ে যাচ্ছেন না তিনি। বিশ্বকাপের পরই দায়িত্ব ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছেন সাবেক এই কিউই ব্যাটসম্যান। ২০১৪ সালে মাইক হেসনের অনুরোধে এই দায়িত্ব পেয়েছিলেন তিনি।

দীঘির্দন দায়িত্ব পালন করার পর আচমকা ম্যাকমিলানের এমন সিদ্ধান্তের নেপথ্য কারণ নিউজিল্যান্ডের ব্যস্ত আন্তজাির্তক সূচি। দায়িত্ব সামলাতে গিয়ে পরিবারকে ঠিকভাবে সময়ই দিতে পারছেন না তিনি। বিষয়টা সামনে টেনে বললেন, ‘আমি পরিবারের সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলেছি। কারণ তারাই একমাত্র কাছের মানুষ, যারা গত পঁাচ বছর অনেক ত্যাগ স্বীকার করেছে। ইদানীং ক্রিকেটের যা ব্যস্ততা, বছরের পর বছর তা আরও বাড়ছে। একই সঙ্গে বয়সও ভাবাচ্ছে। নিজেকে যেহেতু জানি, পরিবতের্নর জন্য এটাই সঠিক সময় বলে মনে করছি।’

ম্যাকমিলান থাকার সময়েই ২০১৫ বিশ্বকাপের ফাইনাল খেলেছিল নিউজিল্যান্ড। যা তার ক্যারিয়ারের সবচেয়ে বড় অজর্ন। তার প্রস্থানের বিষয়ে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট নিবার্হী ডেভিড হোয়াইট জানিয়েছেন, নতুন ব্যাটিং কোচ আগস্টে শ্রীলংকা সফরের সময় নিয়োগ দেয়া হবে।

পাকিস্তান-অস্ট্রেলিয়া সিরিজের সূচি চ‚ড়ান্ত

ক্রীড়া ডেস্ক

চ‚ড়ান্ত হলো পাকিস্তান আর অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার পঁাচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের সূচি। এই সিরিজের অন্তত একটি ম্যাচ দেশের মাটিতে আয়োজনের আশা করেছিল পাকিস্তান ক্রিকেট বোডর্ (পিসিবি)। কিন্তু তাতে সায় দেয়নি ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ)। সংযুক্ত আরব আমিরাতেই সবগুলো ম্যাচ খেলবে তারা।

সিরিজের প্রথম দুটি ওয়ানডে হবে শারজা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। ২২ এবং ২৪ মাচর্ অনুষ্ঠেয় ওই দুই ম্যাচ দিয়েই এক বছরেরও বেশি সময় পর এই ফিরছে আন্তজাির্তক ক্রিকেটে। আবুধাবিতে ২৭ মাচর্ হবে তৃতীয় ওয়ানডে। ২৯ আর ৩১ মাচর্ দুবাইয়ে হবে সিরিজের শেষ দুটি ম্যাচ। বিশ্বকাপের আগে এই সিরিজকে প্রস্তুতির দারুণ উপলক্ষ হিসেবে দেখছেন পিসিবি পরিচালক জাকির খান, ‘অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন। এই সিরিজ দিয়ে নিজেদের বিশ্বকাপ প্রস্তুতি মূল্যায়ন করার দারুণ সুযোগ পাবে পাকিস্তান।’

সংযুক্ত আরব আমিরাতে গত অক্টোবরে পাকিস্তানের বিপক্ষে দুটি টেস্ট ও তিনটি টি২০ খেলেছিল অস্ট্রেলিয়া। দুটি সিরিজেই হেরে যায় তারা। সবের্শষ দুই দল ওয়ানডে সিরিজে মুখোমুখি হয়েছিল ২০১৭ সালে। সেবার স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া ৪-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতেছিল।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে