logo
রোববার ২৬ মে, ২০১৯, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

  ক্রীড়া প্রতিবেদক   ২৬ এপ্রিল ২০১৯, ০০:০০  

গ্রম্নপ সেরা হওয়ার লড়াই আজ স্বাগতিকদের

আমরা গতকালের ম্যাচটি টিভিতে দেখেছি। তারা ভালো টিম। তাদের দুর্বলতা-সবলতা সবকিছু নিয়েই স্যাররা (কোচ) আমাদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন। আমরা চেষ্টা করব ওই থিউরিগুলো মাথায় নিয়েই তাদের সঙ্গে ম্যাচ খেলার।অধিনায়ক মিশরাত জাহান মৌসুমী

গ্রম্নপ সেরা হওয়ার লড়াই আজ স্বাগতিকদের
'বঙ্গমাতা অনূর্ধ্ব ১৯ নারী আন্তর্জাতিক গোল্ডকাপ' ফুটবল টুর্নামেন্টে আজ স্বাগতিক বাংলাদেশের মুখোমুখি হবে কিরগিজস্তান। প্রথম ম্যাচ জিতে দুই দলেরই সেমিফাইনাল আগেই নিশ্চিত হয়ে গেছে। তাই আজ বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা ৬টায় দুই দলের যুদ্ধটা হবে 'বি' গ্রম্নপের চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লড়াই। পয়েন্ট এবং গোল পার্থক্যে এগিয়ে আছে স্বাগতিক বাংলাদেশ। তাই ড্র করলেও গ্রম্নপ চ্যাম্পিয়ন হবে মিশরাত জাহান মৌসুমীর দল। তবে বাংলাদেশের কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন সেসব না ভেবে চোখ রাখছেন জয়েই।

বয়সভিত্তিক পর্যায়ে এর আগে একবারই কিরগিজস্তানের বিপক্ষে খেলেছে বাংলাদেশ। সেটি ২০১৬ সালে এএফসি অনূর্ধ্ব ১৬ চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাই পর্বে। ওই ম্যাচে ১০-০ গোলে কিরগিজদের ধরাশায়ী করেছিল লাল-সবুজরা। তবে তিন বছরের ব্যবধানে দু'দেশের ফুটবলেই বেশ পার্থক্য দেখা দিয়েছে। উন্নতির জায়গাটাতে পিছিয়ে নেই কেউই। বুধবার কিরগিজস্তান-আরব আমীরাতের লড়াইটা দেখেছে টিম বাংলাদেশ। তাই ছোটন প্রতিপক্ষকে শক্তিধর হিসেবেই দেখছেন।

আজকের ম্যাচ প্রসঙ্গে কোচ ছোটন বলেছেন, 'অবশ্যই একটি প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ম্যাচ হবে। আমরা ইনশালস্নাহ জয়ের জন্যই মাঠে নামব। আমরা সবসময় যে ফুটবলটা খেলি সেই স্বাভাবিক ফুটবলটাই আগামীকালের ম্যাচে খেলতে চাই।' কোচ ছোটন আরও জানান, যেহেতু তারা শারীরিকভাবে একটু শক্তিধর তাই প্রতিপক্ষের সঙ্গে কোনো রকম শারীরিক লড়াইয়ে যেতে চায় না টিম বাংলাদেশ। দ্রম্নতগতির ফুটবল খেলে জয় আদায় করার লক্ষ্য বাংলাদেশের।

মাত্র একদিনের ব্যবধানেই কিরগিজস্তানকে খেলতে হচ্ছে দুটি ম্যাচ। যেখানে বাংলাদেশ বিশ্রাম পেয়েছে চারদিন। কোচ ছোটন জানালেন সেটিও বাড়তি অ্যাডভান্টেজ হিসেবে কাজ করবে বাংলাদেশের জন্য।

দলীয় অধিনায়ক মিশরাত জাহান মৌসুমী জানালেন প্রতিপক্ষ সম্পর্কে পূর্ণ ধারণা নিয়েই মাঠে নামতে যাচ্ছেন তারা, 'আমরা গতকালের ম্যাচটি টিভিতে দেখেছি। তারা ভালো টিম। তাদের দুর্বলতা-সবলতা সবকিছু নিয়েই স্যাররা (কোচ) আমাদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন। আমরা চেষ্টা করব ওই থিউরিগুলো মাথায় নিয়েই তাদের সঙ্গে ম্যাচ খেলার।'

যদিও বয়সভিত্তিক আসরে এর আগে ১৬ পর্যায়ে ১০ গোলের জয়ের কৃতিত্ব আছে বাংলাদেশের। কিন্তু তাই বলে অধিক আত্মবিশ্বাসী হচ্ছে না বাংলাদেশের মেয়েরা। বরং প্রতিপক্ষকে শক্তিধর হিসেবে সমীহ করে জয়ের লক্ষ্য নিয়েই মাঠে নামছেন তারা।

আরব আমীরাতের বিপক্ষে গোল আদায় করে নেয়া ফরোয়ার্ড বরনবেকভা আইজহান পুরো ম্যাচেই দারুণ পারফরম্যান্স করেছেন। ছিলেন গোলের পেছনের নায়িকাও। কিন্ত ম্যাচ শেষের কিছুক্ষণ আগেই লালকার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন এই ফুটবলার। তাই এই ম্যাচে থাকতে পারছেন না। দলের অন্যতম এই ফুটবলার না থাকাতে কিছুটা হলেও অ্যাডভান্টেজ পাচ্ছে বাংলাদেশ।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, 'শুধু একজন দলের ভাগ্য বদলে দেয় না। তবে যেহেতু সে ভালো করেছে সে অবশ্যই ভালো ফুটবলার ছিল। সে না থাকাতে বাড়তি কিছুটা অ্যাডভান্টেজ পাব আমরা।'

'এই গ্রম্নপ থেকে চ্যাম্পিয়ন হওয়াটাই বড় কথা। কয় গোল হতে পারে সেটা সময় বলে দিবে। তারা প্রথম থেকে শেষ পর্যন্তই ভালো খেলেছে। আমাদের কাছে প্রতিটি ম্যাচই গুরুত্বপূর্ণ। কিরগিজস্তানের ম্যাচটিকেও গুরুত্ব সহকারে নিয়েছি।' যোগ করেন মৌসুমী।

ডিফেন্ডার আঁখি খাতুন বলেছেন, 'কাল আমরা তাদের খেলা দেখেছি। তারা ফিজিক্যালি ও ট্যাকটিক্যালি ভালো। তারা যেহেতু সবদিক দিয়ে ভালো; আমরাও চেষ্টা করব সব দিক দিয়ে ভালো করার।' সহ অধিনায়ক মারিয়া মান্ডা বলেছেন, 'বিপক্ষ দলকে দুর্বল ভাবা যাবে না। তারা সবদিক দিয়েই শক্তিধর। তারাও এখানে এসেছে চ্যাম্পিয়ন হবার জন্য। তারা ২-১ গোলে জিতেছে। ভালো ফুটবল খেলেছে।'

প্রথম ম্যাচের সেরা খেলোয়াড় কৃষ্ণা রানী সরকার। প্রতি ম্যাচে ভালো করতে পারলে সুযোগ থাকছে টুর্নামেন্ট সেরা হবার। তবে নিজের থেকে দলের স্বার্থটাকেই আগে দেখছেন এই ফরোয়ার্ড। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, 'আমাদের প্রথম ম্যাচে অনেক ভুলত্রম্নটি হয়েছে। গোল মিস করেছি। গত ক'দিনে এ বিষয়গুলো নিয়েই স্যাররা কাজ করেছেন। আমি সবসময় মাথায় রাখি টিম জেতাতে হবে। তারপর নিজের চিন্তা ভাবনা।'
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে