logo
বুধবার ১৯ জুন, ২০১৯, ৫ আষাঢ় ১৪২৬

  ক্রীড়া ডেস্ক   ২৪ মে ২০১৯, ০০:০০  

রাসেলের বাউন্সারে হাসপাতালে খাজা

রাসেলের বাউন্সারে হাসপাতালে খাজা
বিশ্বকাপের অনানুষ্ঠানিক প্রস্তুতি ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের পেসার আন্দ্রে রাসেলের বাউন্সার আঘাত করেছিল উসমান খাজার হেলমেটে -ওয়েবসাইট
অস্ট্রেলিয়ানদের ঘাবড়ে দিয়েছিল সাউদাম্পটনে বিশ্বকাপের অনানুষ্ঠানিক প্রস্তুতি ম্যাচের দুর্ঘটনা। ওয়েস্ট ইন্ডিজের পেসার আন্দ্রে রাসেলের বাউন্সার আঘাত করেছিল উসমান খাজার হেলমেটে। চোয়ালে আঘাত নিয়ে তখনই হাসপাতালে যেতে হয় অস্ট্রেলিয়ার ওপেনারকে। চোয়ালের স্ক্যান করে খাজাকে আশঙ্কামুক্ত ঘোষণা করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এদিন মাঠে না নামলেও শনিবার ইংল্যান্ডের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ার পরের প্রস্তুতি ম্যাচের জন্য ফিট আছেন এই ব্যাটসম্যান। হ্যাম্পশায়ারের নার্সারি গ্রাউন্ডে রান তাড়া করতে নেমে দ্বিতীয় ওভারে আঘাত পান খাজা।

আন্দ্রে রাসেলের রেয়ার অফ লেন্থের বলটি সজোরে এসে খাজার হেলমেটের গ্রিলে আঘাত হানে। খাজা কিছুটা টলতে টলতে পেছনের দিকে যান। রাসেল দ্রম্নত দৌড়ে আসেন। ততক্ষণে খাজা হেলমেট খুলে ফেলেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজের অন্যান্য খেলোয়াড়, তার সতীর্থ এবং টিম ডাক্তার রিচার্ড শ'ও দৌড়ে আসেন। এরপর তিনি মাঠ ছাড়েন। আর সেখান থেকে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। যদিও স্ক্যানে মারাত্মক কিছু ধরা পড়েনি। বলা যায়, সৌভাগ্যবশত মারাত্মক ইনজুরির হাত থেকে রক্ষা পেয়েছেন ৩২ বছর বয়সি এই অজি ব্যাটসম্যান।

ভিডিওতে দেখা গেছে, মাথার ডান পাশে ব্যথার কথা বলছিলেন উসমান খাজা। পরে দলের চিকিৎসক রিচার্ড শ'র সহায়তায় মাঠ ছাড়েন তিনি। ৫ রানে রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে ফিরে যান এই ব্যাটসম্যান, পরে আর মাঠে নামেননি। আশঙ্কামুক্ত হওয়ার পর বিকালে মাঠে তাকে দেখা গিয়েছিল। তবে আঘাত পাওয়ার পর সবাই বেশ ভড়কে গিয়েছিল। যেমনটা বলেছেন সতীর্থ শন মার্শ, 'এটা খুবই ভয়ঙ্কর ব্যাপার ছিল। আমরা বেশ ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম। চেকবোনের পাশে বলটি আঘাত করে। তবে সুখকর বিষয় হচ্ছে না খাজা ঠিক আছে। তার বড় কোনো সমস্যা হয়নি। সে দ্রম্নতই ফিরবে। আসলে যখন বলের আঘাত লাগে তখন তাকে বেশ নড়বড়ে মনে হচ্ছিল। রীতিমতো টলতেছিল। তবে সে খুবই শক্ত-সামর্থ ক্রীড়াবিদ। আশা করছি শিগগিরই আবার মাঠে নামবে সে।'

প্রস্তুতি ম্যাচে উসমান খাজাকে টপ অর্ডারে ব্যাট করানো হচ্ছে। ডেভিড ওয়ার্নারের জায়গায় ব্যাট করছিলেন তিনি। খাজা মাঠ ছাড়লেও প্রস্তুতি ম্যাচে জয় নিয়েই মাঠ ছেড়েছে অস্ট্রেলিয়া। আর সেটা সম্ভব হয়েছে স্টিভেন স্মিথের ব্যাটিং দৃঢ়তায়। তিনি ৭৬ রানের ইনিংস খেলেছেন। এ ছাড়া অধিনায়ক অ্যারোন ফিঞ্চের সঙ্গে ৫৩ ও শন মার্শের সঙ্গে ১০৯ রানের জুটি গড়েন। তাতে ২৩০ রানের টার্গেট ১১.৩ ওভার হাতে রেখেই ছুঁয়ে ফেলে অস্ট্রেলিয়া।

আগামী ১ জুন থেকে অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বকাপ অভিযান শুরু হচ্ছে। ওই দিন আফগানিস্তানের বিপক্ষে নামবে অ্যারোন ফিঞ্চের দল। তার আগেই পুরোপুরি সুস্থ হয়ে উঠবেন উসমান খাজা।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে