logo
বুধবার ১৯ জুন, ২০১৯, ৫ আষাঢ় ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ২৭ মে ২০১৯, ০০:০০  

ইতিহাসের চাকা ঘুরবে : ইনজামাম

ইতিহাসের চাকা ঘুরবে : ইনজামাম
ক্রীড়া ডেস্ক

১৬ জুনে চোখ শত কোটি মানুষের। রাউন্ড রবিন লিগ পর্বের সবচেয়ে কাঙ্ক্ষিত ম্যাচে মুখোমুখি ভারত-পাকিস্তান! বিশ্ব ক্রিকেটের সেরা দ্বৈরথ। রাজনৈতিক দূরত্বের কারণে বিরল হয়ে উঠেছে প্রতিবেশী দুই দেশের লড়াই। এখন আইসিসি আর এসিসির টুর্নামেন্টই ভরসা। বিশ্বকাপে তাইতো ওল্ড ট্র্যাফোর্ডের ম্যাচটি নিয়ে এখনই শুরু হয়েছে আলোচনা।

যদিও বিশ্বকাপে চির প্রতিদ্বন্দ্বীর বিপক্ষে জয় সোনার হরিণ হয়েই আছে পাকিস্তানের। দেখা হয়েছে ৬বার। হেরেছে প্রতবারই। এমনকি আইসিসি টি২০ বিশ্বকাপেও একই অবস্থা। পাঁচবারের দেখায় পাঁচবারই জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে ভারত।

কিন্তু এবার সেই তিক্ত অতীত ভুলে জিততে চায় পাকিস্তান। ১৬ জুন ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে হাসিমুখে মাঠ ছাড়তে চায় সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। ইনজামাম উল হক জানাচ্ছিলেন ইতিহাসের চাকা ঘোরাতে প্রস্তুত তাদের দল। প্রধান নির্বাচক বলেন, 'ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ সবসময় আমাদের কাছে বিশেষ কিছু। কেউ বলেই ফেলেন এই ম্যাচটা জেত- বিশ্বকাপ না জিতলেও চলবে। ভারতকে হারাতে পারলেই খুশি আমরা। আশা করছি এবার ওদের হারাতে পারব। বিশ্বকাপে ভারতের কাছে হারের ইতিহাস বদলাতে চাই আমরা। ইতিহাসের চাকা ঘুরবে।'

অবশ্য সময়টা ভালো যাচ্ছে না পাকিস্তান দলের। কিছুদিন আগেই ইংল্যান্ডের কাছে সিরিজ হেরেছে। এরপর প্রস্তুতি ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে হারের তিক্ত স্বাদ নিয়ে মাঠ ছাড়ে দলটি। এ অবস্থায় ইনজি চোখ রাখছে সামনে। বলছিলেন, 'দেখুন, বিশ্বকাপে কোনো দলকেই ছোট করে দেখার সুযোগ নেই। আফগানিস্তান যে কোনো বড় দলকে হারানোর যোগ্যতা রাখে। কিন্তু এসব নিয়ে আমাদের ভাবলে চলবে না। বিশ্বকাপের ম্যাচেই চোখ ছেলেদের।'

এবার দল গড়তে গিয়ে বেশ বিপাকেই পড়তে হয়েছে ইনজামামকে। অনেক সমালোচনার মুখে শেষ পর্যন্ত বিশ্বকাপ দলে জায়গা দিয়েছেন মোহাম্মদ আমির ও ওয়াহাব রিয়াজকে। জুনায়েদ খানকে বাদ দেয়া নিয়েও হয়েছে ঢের সমালোচনা।

পুরো বিষয়টা নিয়ে ১৯৯২ সালের বিশ্বকাপজয়ী দলের এই ক্রিকেটার জানালেন, 'সবাই মনে করে ১৪ কিংবা ১৫ জন ক্রিকেটারের নাম লিখে ফেললেই একটা দল হয়ে যায়। কিন্তু ব্যাপারটা এমন নয়। অনেক চাপ নিয়ে সেরাদের বেছে নিতে হয় আমাদের। আমরা সততা রেখে সেই কাজটিই করেছি।'
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে