logo
সোমবার ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬

  আমিনুল ইসলাম লিটন   ১৩ জুন ২০১৯, ০০:০০  

ব্রিস্টলের হতাশার পর দুশ্চিন্তায় টন্টন

ব্রিস্টলের হতাশার পর দুশ্চিন্তায় টন্টন
ব্রিস্টলের হোটেল থেকে টন্টনে যাওয়ার পথে নিরাপত্তা কর্মীদের বেষ্টনী ঘেরা বাংলাদেশের পেসার মুস্তাফিজুর রহমান -বিসিবি
বাংলাদেশের মতো ইংল্যান্ডেও জুন-জুলাই মাসে ভরা বৃষ্টি মৌসুম। কিন্তু এই মৌসুমে কেন বিশ্বকাপ আয়োজন করতে গেলো আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সংস্থা আইসিসি এবং স্বাগতিক ইংল্যান্ড? বৃষ্টিতে বিশ্বকাপের ম্যাচ ভেসে যাওয়ার সম্ভাবনাটুকু বিবেচনা করে দেখেনি স্বাগতিকরা? আইসিসিও কেন বিষয়টি নিয়ে চিন্তা করেনি? আয়োজক কর্তাদের অদূরদর্শিতার কারণে আকর্ষণ হারাচ্ছে বিশ্বকাপের মতো সর্বোচ্চ ক্রিকেটের আসর। বৃষ্টির উপর যেহেতু মানুষের কোন হাত নেই, তাই আক্ষেপ ছাড়া আর কিছু করারও নেই।

বৃষ্টির কারণে শ্রীলংকার বিপক্ষে খেলা না হওয়ার কারণে বাংলাদেশ দল একরাশ হতাশা নিয়ে ব্রিস্টল ছেড়েছে বুধবার। এদিন স্থানীয় সময় দুপুরে টন্টনের উদ্দেশ্যে ব্রিস্টল ছাড়ে টিম বাংলাদেশ। টাইগারদের মিডিয়া ম্যানেজার রাবিদ ইমাম জানান, বুধবার বেলা ১টায় ব্রিস্টল থেকে যাত্রা করে প্রায় সোয়া ১ ঘন্টার ভ্রমণ শেষে টন্টনে টিম হোটেলে পৌঁছায় বাংলাদেশ দল।

শ্রীলংকার বিপক্ষে ম্যাচ পরিত্যক্ত হওয়ার পর রাতে ব্রিস্টলে অনেকটা আয়েশি সময় কাটিয়েছেন ক্রিকেটাররা। 'পঞ্চপান্ডবের' অন্যতম মাহমুদউলস্নাহ রাতের খাবার খেতে গিয়েছিলেন স্থানীয় বাংলাদেশি ও ভারতীয় প্রসিদ্ধ রেস্তোরায়। অন্যান্য ক্রিকেটাররাও বিভিন্ন বাংলাদেশি ও ভারতীয় রেস্টুরেন্টে রাতের খাবার গ্রহণ করেন।

ব্রিস্টলে দিনভর বৃষ্টির কারণে মঙ্গলবার খেলা না হলেও ক্রিকেটারদের ওপর মানসিক ও শারীরিক ধকল গেছে। বুধবার টন্টন যাত্রায় কেটে যায় অনেকটা সময়। আবার এক শহর থেকে অন্য শহরে যাবার প্রস্তুতিও ছিল। তাই বুধ ও বৃহস্পতিবার পুরো দলের ছুটি নির্ধারণ করা ছিল। খেলোয়াড়দের নিজেদের মতো করে সময় কাটানোরও সুযোগ ছিল। দুদিন বিরতি দিয়ে শুক্রবার থেকে টন্টনের সামারসেট কাউন্টি ক্রিকেট মাঠের কমিউনিটি ক্লিনিকে অনুশীলন শুরু করবে টাইগাররা।

এবার পরের ম্যাচের জন্য তৈরি হতে হবে মাশরাফিদের। প্রথম চার ম্যাচ থেকে তিন পয়েন্ট পাওয়া বাংলাদেশের সামনে এখন সেমিফাইনালের সমীকরণ বেশ কঠিন। বাকি পাঁচ ম্যাচ থেকে অন্তত ৮ পয়েন্ট না হলে নিশ্চিত হবে না পরের ধাপে যাওয়া। ১৭ জুন সোমবার টন্টনের মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়েই কি শুরু হবে পুরো পয়েন্ট অর্জনের পথচলা!

এদিকে ব্রিস্টলের হতাশার পর উইন্ডিজের বিপক্ষে টন্টনের ছোট মাঠ ভাবাচ্ছে টাইগারদের। স্বাভাবিকের তুলনায় টন্টনের মাঠ বেশ ছোট হওয়ায় কিছুটা হলেও দুশ্চিন্তায় আছেন টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা।

টন্টনের মাঠের এক পাশ বেজায় ছোট। সেখানে উইন্ডিজের খেলোয়াড়রা বাড়তি সুবিধা পেতে পারেন। কারণ শারীরিকভাবে সুঠাম দেহী এ খেলোয়াড়দের মিস হিটও ছয় হয়ে যেতে পারে। তাই বিষয়টি ভাবাচ্ছে মাশরাফিদের।

শ্রীলংকার বিপক্ষে ম্যাচের পর টন্টনের মাঠ নিয়ে উদ্বেগ ঝরে মাশরাফির কণ্ঠে, 'টন্টন অনেক ছোট একটা মাঠ এবং বিশেষ করে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সহজ হবে না। আমার ভালো খেলা এবং জয়ের কোনো বিকল্প নেই।'

শুধু টন্টনের মাঠ নিয়েই নয়, শ্রীলংকার বিপক্ষে ম্যাচ না হওয়ায়ও বেশ হতাশ অধিনায়ক, 'মাঠে আসার পর খেলতে না পারা সব দলের জন্যই হতাশার। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে আমরা জয়ের সুযোগ পেয়েছিলাম। ইংল্যান্ড ম্যাচে সুযোগ হয়নি। তবে ব্রিস্টলের দিনটা ছিল হতাশাজনক।'

বাংলাদেশের পরের ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের মুখোমুখি হবে। সে ম্যাচ নিয়ে বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেন, 'টনটন, খুব ছোট মাঠ। বিশেষ করে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচটি সহজ হবে না। আমাদের ভালো খেলার ও জয়ের কোনো বিকল্প নেই।'

বাংলাদেশ কোচ স্টিভ রোডস তার হতাশা চেপে রাখার কোনো চেষ্টাই করেননি- 'খুবই হতাশ আমরা। অন্তত আশায় ছিলাম যে কার্টেল ওভারের ম্যাচও যাতে হয়। কিন্তু বৃষ্টি তো সেই সুযোগই দিলো না। এই ম্যাচে আমাদের টার্গেট ছিলো দুই পয়েন্ট। আমরা জানি শ্রীলংকা ভালো দল। কিন্তু আমরা বৃষ্টিতে বাতিল হওয়া এই ম্যাচকে দেখছে এক পয়েন্ট হারানোর ম্যাচ হিসেবে!'

বিশ্বকাপের আগে প্রায় ২০ বছর কোন আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ক্রিকেট ম্যাচ হয়নি টন্টনে। মূলত মাঠের আকৃতির কারণেই এ মাঠে ম্যাচ তেমন হয়না। ১৯৮৩ সালে প্রথমবার এ মাঠ ব্যবহার করা হয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের জন্য। এরপর ১৯৯৯ বিশ্বকাপে হয় দুটি ম্যাচ। তবে মাঝে ২০১৭ সালে একটি টি২০ ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছিল। এরপর ৮ জুন নিউজিল্যান্ড ও আফগানিস্তানের ম্যাচ দিয়ে আবার ক্রিকেট ফেরে এ মাঠে। বুধবার পাকিস্তান ও অস্ট্রেলিয়াও খেলেছে এ মাঠে। আর আগামী সোমবার এ মাঠে ক্যারিবিয়ানদের বিপক্ষে নামছে মাশরাফিরা।

টাইগার ভক্তদের চাওয়া সেমিফাইনালে খেলার স্বপ্ন নিয়ে বিশ্বকাপে যাওয়া বাংলাদেশ দল ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে নিজেদের সেরা খেলার সবটুকু উজাড় করে দিবে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ বধের মধ্য দিয়েই বাংলাদেশ দল আবার জয়ের ধারাবাহিকতায় ফিরবে এটাই সবার প্রত্যাশা।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে