logo
শনিবার, ২৩ নভেম্বর ২০১৯, ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ১১ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০  

১৪০ কেজি ওজনের খেলোয়াড়!

১৪০ কেজি ওজনের খেলোয়াড়!
রাকিম কর্নওয়াল
ক্রীড়া ডেস্ক

শারীরিক গঠন যে সাফল্যের পথে কখনও বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারে না, তার উৎকৃষ্ট উদাহরণ রাকিম কর্নওয়াল। ১৪০ কেজি ওজনের শরীর নিয়ে তিনি দিব্যি খেলে চলেছেন ক্রিকেট। শুধু খেলছেন না, নিজের সামর্থ্যের প্রমাণ দিয়ে যাচ্ছেন প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে অভিষেক হওয়ার পর থেকে। যে সাফল্য খুলে দিলো তার ওয়েস্ট ইন্ডিজের টেস্ট দলের দরজা।

এই মুহূর্তে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে আছে ভারত। চলমান ওয়ানডে সিরিজের পর দল দুটি মুখোমুখি হবে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে। ২২ আগস্ট থেকে শুরু হতে যাওয়া এই সিরিজের জন্য ওয়েস্ট ইন্ডিজের ঘোষণা করা ১৩ সদস্যের দলে সুযোগ পেয়েছেন অলরাউন্ডার কর্নওয়াল। অফ স্পিনের সঙ্গে ব্যাটিংয়েও বেশ কার্যকরী তিনি।

অ্যান্টিগায় জন্ম নেওয়া ২৬ বছর বয়সী কর্নওয়াল অনেক আগে থেকেই আলোচনায় ক্রিকেট বিশ্বে। তবে যতটা না ক্রিকেট প্রতিভার জন্য, তারচেয়ে বেশি সামনে এসেছে তার শারীরিক গঠন। ১৪০ কেজি ওজনের সঙ্গে ৬ ফুট ৫ ইঞ্চি উচ্চতা নিয়ে দানবীয় শরীর তার। এই শরীর নিয়েও ২২ গজকে রাঙিয়ে যাওয়া কর্নওয়াল 'আদর্শ' হয়ে উঠেছেন অনেক তরুণ ক্রিকেটারের কাছে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের টেস্ট দলে প্রথমবার ডাক পেয়ে নিজেকে আরও ছড়িয়ে দেওয়ার অপেক্ষায় তিনি।

অন্তবর্তীকালীন নির্বাচক কমিটির প্রধান রবার্ট হেইন্স বলেছেন, 'দীর্ঘদিন ধরে রাকিম ধারাবাহিক পারফর্ম করে যাচ্ছে। নিজেকে ম্যাচ জেতানো খেলোয়াড় হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছে সে, তাই আমরা তাকে টেস্ট স্কোয়াডে রেখেছি। তার স্পিনের বাড়তি বাউন্স ও লোয়ার অর্ডারে ব্যাটিং করার সামর্থ্য আমাদের শক্তি বৃদ্ধি করবে।'

এদিকে বিদায়ী টেস্ট খেলার ইচ্ছা পূরণ হচ্ছে না ক্রিস গেইলের। ওয়েস্ট ইন্ডিজের ঘোষিত দলে জায়গা হয়নি গেইলের।

বয়স ৩৯। ব্যাট হাতেও সেই ছাপটাই প্রকাশ পাচ্ছে ক্রিস গেইলের। তাইতো গেল বিশ্বকাপের পরপরই অবসর নেয়ার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। সে সময় আবার এ বাঁহাতি ওপেনার জানিয়েছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের জার্সিতে অন্তত একটি টেস্ট খেলতে চান। কিন্তু সে ইচ্ছে পূরণ হচ্ছে না তার।

গেল বিশ্বকাপে গেইল যখন একটি টেস্ট খেলার সুযোগ চেয়েছিলেন, তখনই কিংবদন্তি কার্টলি অ্যামব্রোস সোজাসাপ্টা বলে দেন, এভাবে এক ম্যাচের জন্য গেইলকে দলে নেওয়া হলে সেটা দলকে ভুল বার্তা দেবে। অ্যামব্রোসের পক্ষে যুক্তিও আছে।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরে সর্বশেষ টেস্ট খেলেছিলেন গেইল। যে কারণে অ্যামব্রোস বলেছেন, ভারতের মতো দলের বিপক্ষে তার নেয়াটা হবে অহেতুক ঝুঁকি।

টেস্ট স্কোয়াড: জেসন হোল্ডার (অধিনায়ক), ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট, ড্যারেন ব্রাভো, শামার ব্রম্নকস, জন ক্যাম্পবেল, রোস্টন চেস, রাকিম কর্নওয়াল, শেন ডাওরিচ (উইকেটরক্ষক), শ্যানন গ্যাব্রিয়েল, শিমরন হেটমায়ার, শাই হোপ, কিমো পল, কেমার রোচ।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে