logo
রবিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

  ক্রীড়া প্রতিবেদক   ০৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

এসএ গেমস ফুটবল

ভুটানের কাছে হারে শুরু বাংলাদেশের

যেই ভুটান হতে পারত সব থেকে সহজ প্রতিপক্ষ। সোমবার উদ্বোধনী ম্যাচে সেই ভুটানের কাছেই ১-০ গোলে হেরেছে বাংলাদেশ।

ভুটানের কাছে হারে শুরু বাংলাদেশের
নেপালে অনুষ্ঠিত সাউথ এশিয়ান গেমসের ফুটবলে নিজেদের প্রথম ম্যাচে হতাশা উপহার দিয়েছে বাংলাদেশ ফুটবল দল। সোমবার ভুটানের কাছে হেরে যাওয়া ম্যাচে বল দখলের একটি মুহূর্ত -বাফুফে
ম্যাচে ফেভারিট ছিল বাংলাদেশ। কিন্তু ফেভারিটরা সব সময়ে জেতে না। সেই তত্ত্বকেই সত্য প্রমাণ করে এই ম্যাচে হারল বাংলাদেশ। স্বর্ণ পুনরুদ্ধারের মিশনে এবার এসএ গেমসে অংশ নিচ্ছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব ২৩ ফুটবল দল। কিন্তু শুরুটাই ভালো হয়নি তাদের। যেই ভুটান হতে পারত সব থেকে সহজ প্রতিপক্ষ। বাংলাদেশ দল প্রথম ম্যাচেই বড় ধাক্কা খেয়েছে। সোমবার উদ্বোধনী ম্যাচে সেই ভুটানের কাছেই ১-০ গোলে হেরেছে বাংলাদেশ। আজ মালদ্বীপের মুখোমুখি হবেন জামাল-সুফিলরা।

এসএ গেমসে এবারের আসরে নারী ফুটবলে দল পাঠায়নি বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন। স্বভাবতই দেশের সম্মান রক্ষার দায়িত্বটা বর্তায় পুরুষ ফুটবল দলের কাঁধে। সাম্প্রতিক সময়ে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করা বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের ১৬ ফুটবলারই আছে এবারের অলিম্পিক দলে। প্রতিপক্ষ আর দলের আত্মবিশ্বাস নিয়ে স্বর্ণ জয়ের স্বপ্ন ছিল লাল-সবুজদের। অথচ ভুটানের মতো দেশের বিপক্ষে নিজেদের সেরাটা মেলে ধরতে পারলেন না জামাল-রবিউলরা। স্কোরিংয়ের ব্যর্থতা তো ছিলই, সেই সঙ্গে ছিল রক্ষণের ভুল। আগের ম্যাচগুলোর মতোই একাধিক সুযোগ হাতছাড়া করে পয়েন্ট হারানোর দায় এড়াতে পারবেন না জেমির শিষ্যরা। যদিও ম্যাচে নামার আগে অসংখ্যবার পূর্বের ভুল আর না করার আশার বাণীই শুনিয়েছিলেন জীবন-সাদরা।

কিন্তু সোমবার ম্যাচে তার ছিটেফোঁটাও বোধ হয় মিলল না। ১৫ মিনিটে বক্সের বাইরে থেকে রবিউল হাসানের শট অল্পের জন্য জড়ায়নি জালে। এর কিছুক্ষণ পর সুযোগ এসেছিল ভুটানেরও। কিন্তু দলীয় অধিনায়ক চেঞ্চো গেইলশেনের শট জড়ায়নি জালে। ৩৮ মিনিটে সব থেকে সহজতম সুযোগটি হাতছাড়া করেছে এসএ গেমসে দুবার স্বর্ণ বিজয়ী বাংলাদেশ। এবার মোহাম্মদ ইব্রাহীমের ক্রসে ঠিক মতো হেড নিতে পারেননি তরুণ ফরোয়ার্ড সাদ উদ্দিন। প্রথমার্ধ ছিল গোলশূন্য।

কিন্তু গোল পেতে মরিয়া ভুটান চেষ্টা করতেই থাকে। বিরতির পর বাংলাদেশের রক্ষণের ভুলের সুযোগ কাজে লাগিয়ে এগিয়েও যায় তারা। ৬৫ মিনিটে ডিফেন্ডারের ভুলে বল পেয়ে যান ভুটান অধিনায়ক চেঞ্চো। বল নিয়ে বাঁ প্রান্ত দিয়ে আক্রমণে যান। পোস্ট ছেড়ে সামনে এগিয়ে এসেছিলেন বাংলাদেশের গোলরক্ষক আনিসুর রহমান জিকো। কিন্তু ততক্ষণে নিখুঁত শটে লক্ষ্যভেদ করেন ভুটানের রোনালদো খ্যাত চেঞ্চো গেইলশেন (১-০)। গোলশোধে মরিয়া হয়ে বাংলাদেশ চেষ্টা করেছে কয়েকবার। তবে সুফিল-আরিফুলরা বদলি হিসেবে নেমেও হার এড়াতে পারেননি। এই হারে ফাইনালে যাওয়ার রাস্তা কঠিন হয়ে গেল বাংলাদেশের। এসএ গেমসে বাংলাদেশের বিপক্ষে এটিই ভুটানের প্রথম জয়। এর আগে ১৯৮৪ সালে ভুটানের বিপক্ষে ২-০ গোলে জয় পায় বাংলাদেশ। এরপর ১৯৮৭ সালে ৩-০ এবং ২০১০ সালে ৪-০ গোলে ভুটানকে হারিয়েছিল লাল-সবুজের ছেলেরা। সর্বশেষ ২০১৬ সালে ১-১ গোলে ড্র করে দুই দল।

এবারের আসরে অংশ নিচ্ছে না ভারত। পাকিস্তানও নেই। তাই ফুটবলে বাংলাদেশের স্বর্ণ জয়ের সম্ভাবনাটা উজ্জ্বল ছিল। আর তাই মালদ্বীপ আর নেপালকেই বড় প্রতিপক্ষ মেনেছিলেন কোচ জেমি ডে। কিন্তু স্বর্ণ জয়ের মিশনে প্রথমেই ভুটানের মতো দলের কাছেই বড় ধাক্কা খেল বাংলাদেশ দল। নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে আজ সন্ধ্যা ৫টা ১৫ মিনিটে মালদ্বীপের মুখোমুখি হবে লাল-সবুজরা। স্বর্ণ জয়ের মিশনে টিকে থাকতে হলে আজ অবশ্যই ভালো কিছু করে দেখাতে হবে জামাল ভুইয়ার দলকে। এরপর ৫ ডিসেম্বর শ্রীলঙ্কা এবং ৮ ডিসেম্বর স্বাগতিক নেপালের বিপক্ষে খেলতে হবে বাংলাদেশকে।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে