logo
মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট ২০২০, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৬

  ক্রীড়া প্রতিবেদক   ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

দল বেশি হওয়ায় খুশি দুই ক্লাব

দল বেশি হওয়ায় খুশি দুই ক্লাব
ফেডারেশন কাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট মাঠে গড়াচ্ছে আগামী ১৮ ডিসেম্বর থেকে। রাউন্ড রবিন লিগ পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত এবারের আসরে অংশ নিচ্ছে প্রিমিয়ার লিগের ১৩টি দল। তাই তিন গ্রম্নপে তিনটি করে দল থাকলেও গ্রম্নপ 'ডি'তে আছে চারটি দল। কিন্তু দল বেশি থাকলেও এই গ্রম্নপকে ডেথগ্রম্নপ মানছে না মোহামেডান ও শেখ রাসেল। বরং দল বেশি হওয়াতে খুশিই হয়েছে এই দুই ক্লাব। কারণ মৌসুমের শুরুতেই বেশি ম্যাচ খেলার সুযোগ মিলছে এই গ্রম্নপের।

অন্য তিন গ্রম্নপে তিনটি করে দল। তাই 'ডি'গ্রম্নপের দলগুলোকে গ্রম্নপ পর্বে একটি করে ম্যাচ বেশি খেলতে হচ্ছে। কিন্তু এক ম্যাচ বেশি খেলাটাকে সমস্যা হিসেবে না দেখে বরং সুবিধা হিসেবেই নিয়েছে শেখ রাসেল ও মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। রাসেলের কোচ সাইফুল বারি টিটু বলেছেন, 'এটা আমাদের জন্য ভালো। কারণ অন্য গ্রম্নপের দলগুলো থেকে আমরা একটি ম্যাচ বেশি খেলার সুযোগ পাচ্ছি। শুধু দলের নাম দেখেই কোনো গ্রম্নপকে বিচার করা সম্ভব নয়। গত মৌসুমে প্রতিটি ম্যাচই কঠিন এবং প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হয়েছিল।'

টিটুর মতোই মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব লিমিটেডের কোচ শন লেনও সুবিধাই দেখছেন ৪ দলের গ্রম্নপে পড়াতে। এ প্রসঙ্গে অস্ট্রেলিয়ান এই কোচ বলেছেন, 'ভালোই হয়েছে। আমি খুব খুশি চার দলের গ্রম্নপে পড়ায়। কারণ আমরা অন্য ৯ দলের চেয়ে গ্রম্নপপর্বে একটি ম্যাচ বেশি খেলার সুযোগ পাব। মৌসুম শুরুতে ম্যাচ বেশি পাওয়া মানেই লিগের জন্য প্রস্তুতি ভালো হবে।'

সাদা-কালোদের ম্যানেজার ইমতিয়াজ আহমেদ নকিব আত্মবিশ্বাসী পরবর্তী রাউন্ডে যেতে, 'এই গ্রম্নপে পড়াতে আমরা খুশি। কারণ আমাদের তারুণ্যনির্ভর দলটি আত্মবিশ্বাসী পরবর্তী রাউন্ডে যেতে। ম্যাচ বেশি থাকায় সুযোগটাও বেশি থাকছে।'

ফেডারেশন কাপের চার গ্রম্নপের মধ্যে 'এ' গ্রম্নপে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ঢাকা আবাহনীর সঙ্গী হয়েছে নবাগত বাংলাদেশ পুলিশ ও আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ। গ্রম্নপ 'বি'তে রানার্স আপ দল বসুন্ধরা কিংস, চট্টগ্রাম আবাহনী এবং ব্রাদার্স ইউনিয়ন। গ্রম্নপ 'সি'তে সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব,শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব ও রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস সোসাইটি। 'ডি' গ্রম্নপে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়াচক্র, শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র ও উত্তর বারিধারা ক্লাব। রাউন্ড রবিন লিগ পদ্ধতিতে প্রতি গ্রম্নপের সেরা দুটি করে দল মিলে মোট আট দল খেলবে কোয়ার্টার ফাইনালে। সেখান থেকে বিজয়ী চার দল মুখোমুখি হবে সেমিফাইনালে। এরপর হবে ফাইনাল।

চ্যাম্পিয়ন দল পাবে ৫ লাখ টাকা পুরস্কার। রানার্স আপ দলের জন্য রয়েছে ৩ লাখ টাকা। এছাড়া অংশগ্রহণ ফি বাবদ প্রতিটি দল পাবে ১ লাখ টাকা করে। ফেডারেশন কাপ হয়ে আসছে ১৯৮০ সাল থেকে। এ পর্যন্ত মোট ৩০টি আসর অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৩১তম ফেডারেশন কাপ হতে যাচ্ছে আগামী ১৮ ডিসেম্বর থেকে। এবার টুর্নামেন্টের টাইটেল স্পন্সর হয়েছে 'টিভিএস'।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে