logo
মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই ২০২০, ৩০ আষাঢ় ১৪২৬

  ক্রীড়া ডেস্ক   ১৪ মে ২০২০, ০০:০০  

আইসিসির সিদ্ধান্তে স্বস্তিতে জাহানারা-রুমানারা

আইসিসির সিদ্ধান্তে স্বস্তিতে জাহানারা-রুমানারা
প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের কারণে পিছিয়ে গেছে মেয়েদের ২০২১ বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব। মঙ্গলবার এক প্রজ্ঞাপন জারি করে খবরটি জানিয়ে দিয়েছে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি। তারা এও জানিয়ে দিয়েছে যে পরবর্তীতে সূচি ঠিক করে জানিয়ে দেওয়া হবে আবার কবে তা পুনরায় অনুষ্ঠিত হবে। তবে এমন খবরে আহত বা হতাশ নন টাইগ্রেস ওয়ানডে দলপতি রুমানা আহমেদ। বরং তিনি খুশি। কেননা আইসিসির এই সিদ্ধান্তে আখেরে বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলই উপকৃত হবে বলে মনে করছেন তিনি।

সূচি অনুযায়ী জুলাইয়ে শ্রীলংকায় হওয়ার কথা ছিল এই বাছাই। কিন্তু বিশ্বজুড়ে করোনা মহামারিতে এই সেটি স্থগিত করেছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। তবে এই বাছাইপর্ব পিছিয়ে যাওয়াতে কোনো অসুবিধা দেখছেন না নারী দলের দুই ক্রিকেটার রুমানা আহমেদ ও জাহানারা আলম। দেখছেন সুযোগ হিসেবে। কারণ ওয়ানডে বিশ্বকাপে রুমানাদের এখনো খেলার সুযোগ হয়নি। আর তাই এই বিশ্বকাপকে ঘিরে দলের সবার স্বপ্নটা ছিল আকাশ ছোঁয়া। সেই লক্ষ্যে গত মাসের শুরু থেকেই প্রস্তুতি ক্যাম্পে থাকার কথা ছিল। কিন্তু সংক্রমণ বেড়ে যাওয়াতে স্থবির হয়ে আছে পুরো ক্রীড়াঙ্গন। এই অবস্থায় সূচি অনুযায়ী বাছাইপর্ব অনুষ্ঠিত হলে পর্যাপ্ত প্রস্তুতি নেওয়ার সুযোগ ছিল না। তাই ইভেন্টটি স্থগিত হওয়াতে সেটা আশীর্বাদ হয়েই এসেছে জাহানারাদের সামনে।

নারী ওয়ানডে অধিনায়ক রুমানা যেমন বললেন, 'করোনার কারণে বাছাইপর্ব স্থগিত হবে- এমনটা আমরা আগে থেকেই বুঝতে পারছিলাম। তবে যা হয়েছে, আমাদের জন্য ভালোই হয়েছে। এখন আমরা যতটা সম্ভব ঘরে বসেই ফিটনেসটা ধরে রাখতে চেষ্টা করব। যেন সব ঠিক হলে মাঠের খেলায় কোনো প্রভাব না পড়ে। এছাড়া নতুন সূচি যখন ঘোষণা করবে, তখন নিশ্চয়ই আমাদের প্রস্তুতির জন্য সময়ও দেবে। সবমিলিয়ে দুশ্চিন্তার কোনো কারণ দেখি না। আশা করছি আমরা যথেষ্ট প্রস্তুতি নিয়েই বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব খেলতে যেতে পারব।'

বাংলাদেশের জন্য হতাশার বিষয়টি হচ্ছে ওয়ানডে বিশ্বকাপে এখনো তাদের খেলার সুযোগ হয়নি। তাই সামনের আসরকে ঘিরে রুমানার চোখে-মুখে অনেক স্বপ্ন, 'আমরা প্রত্যেকে ওয়ানডে বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব নিয়ে সচেতন আছি। আমাদের লক্ষ্য একটাই বাছাইপর্ব পার হয়ে বিশ্বকাপ খেলা। গত টি২০ বিশ্বকাপে কিছু ভুল ছিল। সেইসব ওভারকাম করে অধিনায়ক হিসেবে বলতে চাই, আমাদের লক্ষ্য বিশ্বকাপে কোয়ালিফাই করা। আমরা সেই লক্ষ্য নিয়েই মানসিকভাবে প্রস্তুতি নিচ্ছি।'

বাংলাদেশ নারী দলের পেসার জাহানারা আলমও মনে করেন স্থগিত হওয়াতে এক অর্থে সেটা ভালোই হয়েছে। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, 'যেহেতু সার্বিক অবস্থা ভালো নয়, এই কারণে খেলাটা স্থগিত করা হয়েছে। দশটি দল দশটি দেশ থেকে আসবে, পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারত। আমার মনে হয় বাছাইপর্ব পিছিয়ে যাওয়াতে ভালো হয়েছে। আমি নিশ্চিত, নতুন করে ওরা যখন সূচি ঘোষণা করবে, তখন প্রস্তুতির জন্য যথেষ্ট সময়ও দেবে। সুতরাং প্রস্তুতি নেওয়ার জন্য আমরা সময় পাব। এই মুহূর্তে আসলে খেলার বাইরে থাকাটাই গুরুত্বপূর্ণ।'

করোনা পরিস্থিতিতে ক্রিকেটাররা এখন মাঠের বাইরেই রয়েছেন। দীর্ঘদিন ধরে মাঠের বাইরে থাকাতে কিছুটা বিরক্তি জেঁকে ধরেছে জাহানারাকে। মিরপুরের বাসায় গৃহবন্দি হয়ে আছেন। এই সময়টাতে বাসাতে ফিটনেস ঠিক রাখতে যতটা সম্ভব চেষ্টা করছেন। আক্ষেপ নিয়েই তিনি বললেন, 'কতদিন আর এভাবে থাকা যায়, খুব কষ্ট লাগে, ক্রিকেটকে খুব মিস করি। এই অবস্থা না হলে তো আমরা এখন প্রস্তুতিতে থাকতাম। শ্রীলংকার বিপক্ষে আমাদের একটি সিরিজ হওয়ার কথা ছিল। বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব ঘিরে কত পরিকল্পনা ছিল, কিছুই বাস্তবায়ন করা গেল না।'
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে