logo
রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

  অনলাইন ডেস্ক    ১৮ জুলাই ২০১৯, ০০:০০  

প্রধানমন্ত্রীকে স্মারকলিপি দেবেন বিনিয়োগকারীরা

যাযাদি রিপোর্ট

শেয়ারবাজারের চলমান দুরবস্থা কাটাতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনায় আজ বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে গিয়ে স্মারকলিপি দেবে বাংলাদেশ পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদ। সংগঠনটির সভাপতি মিজান-উর-রশিদ চৌধুরী এ তথ্য জানিয়েছেন।

মিজান চৌধুরী বলেন, শেয়ারবাজারের মন্দার কারণে আমরা দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করছি। নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান খায়রুল হোসেনের পদত্যাগ অথবা অপসারণসহ বেশি কিছু দাবি তুলে ধরেছি। কিন্তু আমাদের কোনো দাবিই মানা হচ্ছে না।

'পুঁজিবাজার ঠিক করতে এখন আমরা প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছে। আশা করি, প্রধানমন্ত্রী আমাদের ডাকা সাড়া দেবেন। তিনি দেশের উন্নয়নে যেমন ভূমিকা রাখছেন, তেমনি শেয়ারবাজারের ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের পুঁজি রক্ষায়ও এগিয়ে আসবেন। আগামীকাল বিকেল ৩টায় আমরা সচিবালয়ে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি দিয়ে আসবো।

স্মারকলিপিতে কী থাকবে-জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা বিএসইসির চেয়ারম্যান পদ থেকে খায়রুল হোসেনের আপসারণ চাইব। সেইসঙ্গে পুঁজিবাজারের উন্নয়নে আগে আমরা যেসব দাবি তুলে ধরেছি, সেগুলোও প্রধানমন্ত্রীর কাছে তুলে ধরব। আমাদের দাবিগুলো মানা হলে শেয়ারবাজার অবশ্যই ভালো হবে।

এদিকে গত কয়েকদিনের মতো বুধবারও ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সামনে মানববন্ধন করেছেন সাধারণ বিনিয়োগকারীরা। এ বিষয়ে মিজান রশিদ বলেন, আজও আমরা মানবন্ধন করেছি। তবে পুলিশ আজ আমাদের মাইক ব্যবহার করতে দেয়নি।

আজ তো বাজার ভালো ছিল তাহলে মানববন্ধন করলেন কেন? এমন প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, এটাকে ভালো বাজার বলে না। মূল্যসূচক সামান্য উঠেছে। লেনদেন তো তিনশ' কোটি টাকার ঘরেই রয়েছে। এই বাজার ভালো করতে হলে আমাদের দাবিগুলো মানতে হবে।

তিনি আরও বলেন, গতকাল বিএসইসি প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও) এর কোটা, শেয়ার লকিং এবং মিউচু্যয়াল ফান্ডের লভ্যাংশের বিষয়ে কিছু সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কিন্তু এ ক্ষেত্রেও আমাদের দাবি মানা হয়নি। আমরা আইপিওতে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের জন্য ৮০ শতাংশ কোটা চেয়েছিলাম এবং উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের শেয়ারে ৫ বছর লকিং চেয়েছিলাম। কিন্তু আমাদের এ দাবি মানা হয়নি।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে