logo
শুক্রবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৬ ফাল্গুন ১৪২৬

  যাযাদি ডেস্ক   ২০ জানুয়ারি ২০২০, ০০:০০  

ভারত-চীন দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য কমেছে ৩০০ কোটি ডলার

ভারত-চীন দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য কমেছে ৩০০ কোটি ডলার
গত বছর ভারত ও চীনের দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য ৩০০ কোটি ডলার কমেছে। এছাড়া চীনের সঙ্গে ভারতের বাণিজ্য ঘাটতি ৫ হাজার ৬৭৭ কোটি ডলারে দাঁড়িয়েছে। বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় দুই অর্থনীতিতেই শ্লথগতি বিরাজ করায় দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্যে প্রভাব ফেলেছে। চীনের জেনারেল অ্যাডমিনিস্ট্রেশন অব কাস্টমস অব চায়না (জিএসিসি) সম্প্রতি এক প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ করেছে। খবর পিটিআই।

এক সংবাদ বিবৃতিতে বার্ষিক বাণিজ্য উপাত্ত প্রকাশের সময় জিএসসিসির উপমন্ত্রী ঝু ঝিয়ু জানান, ভারত ও চীনের দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য বছরওয়ারি ১ দশমিক ৬০ শতাংশ বেড়ে ৬৩ হাজার ৯৫২ কোটি ইউয়ান বা ৯ হাজার ২৬৮ কোটি ডলারে দাঁড়িয়েছে। ২০১৮ সালের ৯ হাজার ৫৭০ কোটি ডলার থেকে যা প্রায় ৩০০ কোটি ডলার কম।

ভারতে চীনের রপ্তানি ২ দশমিক ১০ শতাংশ বেড়ে ৫১ হাজার ৫৬৩ কোটি ইউয়ানে দাঁড়িয়েছে। অন্যদিকে ভারত থেকে চীনের আমদানি শূন্য দশমিক ২০ শতাংশ হ্রাস পেয়ে ১২ হাজার ৩৮৯ কোটি ইউয়ানে দাঁড়িয়েছে। এতে ২০১৯ সালে ভারতের বাণিজ্য ঘাটতি দাঁড়িয়েছে প্রায় ৪০ হাজার কোটি ইউয়ান। ২০১৮ সালে উভয় দেশের দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য দাঁড়িয়েছিল ৯ হাজার ৫৭০ কোটি ডলার। তখন আশাবাদের সঞ্চার হয়েছিল ২০১৯ সালে দুই প্রতিবেশী দেশের দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য ১০ হাজার কোটি ডলারের সীমা অতিক্রম করবে। কিন্তু গত বছর দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য ২০১৮ সালের চেয়ে ৩০০ কোটি ডলার কমে ৯ হাজার ২৬৮ কোটি ডলারে দাঁড়িয়েছে। গত বছর ভারতে চীনের রপ্তানি হয়েছে ৭ হাজার ৪৭২ কোটি ডলারের পণ্য, ২০১৮ সালে যেখানে পণ্য রপ্তানি হয়েছিল ৭ হাজার ৬৮৭ কোটি ডলারের। অন্যদিকে ২০১৯ সালে চীনে ভারত থেকে রপ্তানি হয়েছে ১ হাজার ৭৯৫ কোটি ডলারের পণ্য, যেখানে ২০১৮ সালে হয়েছিল ১ হাজার ৮৮৩ কোটি ডলারের পণ্য।

দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য সংকোচনের জেরে বাণিজ্য ঘাটতি ২০১৮ সালের ৫ হাজার ৮০৪ কোটি ডলার থেকে কমে ৫ হাজার ৬৭৭ কোটি ডলারে দাঁড়িয়েছে। দুই দেশের মধ্যকার বাণিজ্য সংকোচনের পেছনে উভয় দেশের অর্থনীতিতে শ্লথগতিকে দায়ী করা হচ্ছে।

বেইজিংয়ে ভারতীয় দূতাবাসের ওয়েবসাইটে প্রদত্ত সর্বশেষ উপাত্ত অনুসারে, ২০১৯ সালের জানুয়ারি থেকে নভেম্বরে দুই দেশের দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য পূর্ববর্তী বছরের ১১ মাসের তুলনায় ৩ দশমিক ৭২ শতাংশ কমেছে। ভারত ও চীনের দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কে তিক্ততার বিষয় হিসেবে দাঁড়িয়েছে বাণিজ্য ঘাটতির বিষয়টি। ভারত চীনের প্রতি আহ্‌বান জানিয়ে আসছে তারা যেন তাদের তথ্যপ্রযুক্তি (আইটি) ও ওষুধ খাতকে উন্মুক্ত করে দেয়, যাতে রপ্তানি বাড়াতে পারে ভারত।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close

উপরে