পলাশবাড়ীতে ছুরিকাঘাতে ইউপি সদস্য খুন

প্রকাশ | ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১২:২২ | আপডেট: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১২:২৪

পলাশবাড়ী (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি

গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে যুবকের এলোপাতারি ছুরিকাঘাতে বাদশা মিয়া (৫০) নামে এক ইউনিয়ন পরিষদ ( ইউপি) সদস্য খুন হয়েছেন। 

এ সময় নিহতের ভাতিজা স্বপন (৩৩) ও সবুজ (৩৫) নামে দুই সহোদর আহত হয়েছেন।

সোমবার (২৫ সেপ্টেম্বর) দিনগত রাত ১২ টার দিকে উপজেলার বেতকাপা ইউনিয়নের পূর্ব নয়নপুর গ্রামে নিজ বাড়ির সামনের রাস্তার মোড়ে এ ঘটনা ঘটে।

বাদশা মিয়া বেতকাপা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ৮ নং ওয়ার্ড সদস্য। তিনি ওই গ্রামের আমির উদ্দীনের ছেলে। পাশাপাশি ৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন তিনি।

এলাকাবাসী জানান, এলাকায় রাতে ছিচকে চুরি আশঙ্কাজনক হারে বৃদ্ধি পাওয়ায় স্থানীয় কয়েকজন যুবককে প্রহরী নিয়োগ করা হয়।

ওই প্রহরীরা এলাকায় ঘোষণা করেন যে, বিনা প্রয়োজনে রাত দশটার পর বাড়ির বাইরে কাউকে অবস্থান করতে দেওয়া হবে না। 

তিনি আরো জানান, আজ রাত ১২ টার দিকে একই গ্রামের মোসলেম আকন্দ ভোলার ছেলে পাপুল আকন্দের পথরোধ করেন প্রহরী খায়রুল। এ নিয়ে দুজনের মধ্যে বাকবিতন্ডা শুরু হয়। খবর পেয়ে বিষয়টি মিমাংসার জন্য এগিয়ে যান ওয়ার্ড সদস্য বাদশাসহ অন্যান্যরা। উভয়পক্ষের কাটাকাটির এক পর্যায়ে পাপুল তার হাতে থাকা ছুরি দিয়ে বাদশা মিয়াসহ পাশের লোকজনকে এলোপাতারি আঘাত করে পালিয়ে যায়। এতে বাদশাসহ প্রতিবেশী দুই সহোদর গুরুতর আহত হন। 

স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে পলাশবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক বাদশা মিয়াকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত দুই ভাই সেখানে চিকিৎসাধীন আছেন।

খবর পেয়ে রাতেই পলাশবাড়ী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এ কে এম মোকছেদ চৌধুরীর বিদ্যুৎ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার কামরুল হাসান, সহকারি পুলিশ সুপার (সি-সার্কেল) উদয় কুমার সাহা,  উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুল মন্ডল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে পলাশবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ( ওসি- তদন্ত) দীবাকর অধিকারী জানান, মঙ্গলবার দুপুরে নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে হত্যা মামলা দায়েরের চেষ্টা চলছে।

যাযাদি/ এস