প্লাস্টিকের ব্যবহার বন্ধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার : পরিবেশ মন্ত্রী

প্রকাশ | ১৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১৯:৪১ | আপডেট: ১৩ ডিসেম্বর ২০২০, ২১:১১

যাযাদি ডেস্ক

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন এমপি বলেছেন, সরকার মানবদেহ ও পরিবেশের ওপর ক্ষতিকর প্রভাব বিবেচনা করে প্লাস্টিকের ব্যবহার বন্ধের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে।

 

তিনি রোববার তার সরকারি বাসভবন থেকে অনলাইনে এনভায়রনমেন্ট এন্ড সোস্যাল ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন (এসডো)’র উদ্যোগে আয়োজিত ‘হাই লেভেল পলিসি ডায়ালগ অন স্টপিং টক্সিক প্লাস্টিক ওয়েস্ট ট্রেড এন্ড ইটস ট্রান্সবাউন্ডারী মুভমেন্ট’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

 

মো. শাহাব উদ্দিন বলেন, ফেলে দেওয়া প্লাস্টিক পণ্য মাটি ও পানিতে বছরের পর বছর পরিবেশের জন্য মারাত্মক হুমকির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। আবার, খাদ্যচক্রের সঙ্গে মিশে মারাত্মকভাবে মানব স্বাস্থ্যের ক্ষতি করে।

 

সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় সিঙ্গেল ইউজ প্লাস্টিক মুক্ত বাংলাদেশ গড়া সম্ভব হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, জনস্বাস্থ্য ও পরিবেশ রক্ষায় বর্তমান সরকার ২০১০ সালে প্লাস্টিকের ব্যবহার বন্ধ করতে জুট প্যাকেজিং আইন পাশ করে। সিঙ্গেল ইউজ প্লাস্টিকের ব্যবহাররোধ করতে একটি রীট আবেদনের প্রেক্ষিতে হাইকোর্ট চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে আগামী এক বছরের মধ্যে সিঙ্গেল ইউজ প্লাস্টিকের ব্যবহার বন্ধ করার নির্দেশ দেয়।

 

পরিবেশ মন্ত্রী বলেন, ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে খাবার ও ব্যক্তিগত পণ্যের মোড়ক, পানির বোতল, শ্যাম্পুর বোতলসহ সিঙ্গেল ইউজ প্লাস্টিকের ব্যবহার বন্ধে সংশ্লিষ্ট সকলকে একযোগে কাজ করতে হবে।

 

সেমিনারে বাংলাদেশে নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত নাওকি ইতো, জাইকার প্রতিনিধি কোজি মিতোমোরি, পরিবেশ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. এ. কে. এম রফিক আহমদ, এসডোর সভাপতি ও সাবেক সচিব সৈয়দ মার্গুব মোর্শেদ প্রমূখ বক্তব্য রাখেন। সূত্র-বাসস

 

যাযাদি/এমডি/৮:০৮পিএম