আজও গ্যাস নেই বিভিন্ন এলাকায়

প্রকাশ | ২৪ মার্চ ২০২১, ১৮:০৪

যাযাদি ডেস্ক

 

সাভারের আমিন বাজারে সড়কে কাজ করার সময় তিতাসের ফিডার লাইন মেরামতের কাজ শেষ না হওয়ায় আজও (২৪ মার্চ) রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ আছে। পাশাপাশি গ্যাসের স্বল্প চাপ পাওয়া যাচ্ছে অনেক এলাকাতে। এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন গ্রাহকরা।

 

ফিডার লাইন ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) সারাদিনই রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ ছিল। এ সময় অন্যান্য এলাকাতেও দিনব্যাপী গ্যাসের স্বল্প চাপ ছিল।

 

এ বিষয়ে তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের উপ-মহাব্যবস্থাপক প্রকৌশলী সাখাওয়াত হোসেন বুধবার বলেন, সড়ক ও মহাসড়ক বিভাগ সাভারের আমিন বাজারে কাজ করার সময় তিতাসের ফিডার লাইন ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় গতকাল তাৎক্ষণিকভাবে গ্যাস শাটডাউন (বন্ধ) করে দেওয়া হয়েছিল। সেখানকার কাজ এখনও শেষ হয়নি। ফলে গ্যাসের সরবরাহ স্বাভাবিক করা যাচ্ছে না। এখানে আরও সময় লাগবে। আমাদের টিম সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। সবকিছু পজিটিভ থাকলে সন্ধ্যার মধ্যে গ্যাস সরবরাহ ঠিক হতে পারে।

 

এদিকে কলাবাগান, ধানমন্ডি, মোহাম্মদপুর, কল্যাণপুর, টোলারবাগ, গ্রিনরোড কলাবাগান এলাকায় গতকাল থেকেই গ্যাস সরবরাহ বিঘ্নিত হয়েছে। অন্য এলাকাগুলোতেও গ্যাসের স্বল্প চাপ রয়েছে, যা দিয়ে রান্নার কার্যক্রম পরিচালনা করা সম্ভব হচ্ছে না। এতে করে ভোগান্তিতে পড়েছেন ওইসব এলাকার বাসিন্দারা। রান্না করতে হলে অবলম্বন করতে হচ্ছে ভিন্ন উপায়ের।

 

রাজধানীর কল্যাণপুরের জিনাত আরা বলেন, গতকাল সারাদিন গ্যাস ছিল না। সে কারণে রান্না হয়নি। হোটেল থেকে খাবার কিনতে গেলে সেখানেও অতিরিক্ত ভিড়। অনেক হোটেলের খাবারও শেষ হয়ে গিয়েছিল। এ বিষয়ে তিতাসের হেল্প লাইনে কল করা হলে, তারাও সঠিকভাবে কিছু বলতে পারছে না।

 

তিতাস সূত্রে জানা গেছে, গ্যাস লাইনের ত্রুটি মেরামতের কাজ করা কঠিন হয়ে পড়েছে। আমিনবাজারে সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগ বালু ফেলে পাইলিং করতে গিয়ে তিতাসের পাইপলাইন ছিদ্র করে ফেলে। এখন এক্সকাভেটর দিয়ে বালু সরাতে গেলেই সেখানে পানি চলে আসছে। গতকাল একাধিকবার চেষ্টা করেও কোনো ফল আসেনি। অন্যদিকে ডেমরা, যাত্রাবাড়ী পয়েন্ট দিয়েও গ্যাসের সরবরাহ কিছুটা বিঘ্নিত হচ্ছে। যে কারণে রাজধানীবাসীর গ্যাস নিয়ে ভোগান্তি আরও কিছুটা বাড়তে পারে।

 

যাযাদি/এসআই