বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারি ২০২১, ৬ মাঘ ১৪২৭

দ্বিতীয় বিয়ের একাধিক প্রস্তাব পাচ্ছেন শবনম ফারিয়া!

দ্বিতীয় বিয়ের একাধিক প্রস্তাব পাচ্ছেন শবনম ফারিয়া!

অভিনেত্রী শবনম ফারিয়ার সংসারটা টিকলো মাত্র ৬৬৫ দিন। বিয়ের এক বছর ৯ মাসের মাথায় স্বামী হারুন অর রশীদ অপুর সঙ্গে ফারিয়ার ঘর ভাঙার খবর এলো। হঠাৎ এমন খবরে গোটা শোবিজ অঙ্গন যেন ভূমিকম্পের মতো কেঁপে উঠলো। গেল ২৭ নভেম্বর আনুষ্ঠানিকভাবে বিচ্ছেদ পেপারে সই করেন এই দম্পতি।

এদিকে বিচ্ছেদের পরপরই একের পর এক বিয়ের প্রস্তাব পাচ্ছেন রূপে-গুণে অনন্যা ছোট পর্দার পরিচ্ছন্ন এ অভিনেত্রী। টিভি সিরিয়াল ‘ফ্যামিলি ক্রাইসিস’ ও ‘দেবী’ চলচ্চিত্রে দুর্দান্ত অভিনয় করে ভক্তদের মনে ঠাঁই করে নেয়া ফারিয়ার কারছে ডিভোর্স বিষয়টি কোনও ‘ক্রাইসিস’ নয়। বরং এটিকে ইতিবাচকভাবেই দেখছেন তিনি। এ-ও জানিয়েছেন, অপুর সঙ্গে তার বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক অটুট থাকবে।

বিচ্ছেদের পরপরই ফেসবুকে এক যৌথ বিবৃতিতে এই দম্পতি জানিয়েছিলেন, ‘যে সুখের জন্য আলাদা হলাম, সেই সুখ যেন আমরা খুঁজে পাই।’

শবনম ফারিয়ার বিচ্ছেদের খবরে তাকে বিয়ে করার জন্য প্রস্তাবের লাইন লেগে গেছে। অনেকেই প্রস্তাব দিয়ে বলছেন, ‘আমাকেই বিয়ে করো। তোমার জন্য অপেক্ষা করছি।’ কেউ বলছেন, ‘যদি দ্বিতীয় বিয়ে করতে চাও তবে আমিই তোমাকে বিয়ে করবো।’

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিবাহের এমন সব লিখিত প্রস্তাবের ছবি স্ক্রিনশট দিয়ে প্রকাশ করেছেন ফারিয়া।

বিচ্ছেদের দুদিন পরই গেল রবিবার (২৯ নভেম্বর) এক স্ট্যাটাসে ফারিয়া লিখেন- ‘আমার বিচ্ছেদের সংবাদ প্রকাশের পর থেকে মানুষ আমাকে দোষ দিচ্ছেন, গালিগালাজ করছেন। তবে কি আমি জানবো, মানুষকে ছোট করা পছন্দ করে মানুষ! আমি কেন স্ট্যাটাসে লিখেছি বিচ্ছেদ সুন্দর হবে। কেন বলছি আমরা বিচ্ছেদের পরও বন্ধু থাকবো।’

ওই স্ট্যাটাসের পরই ফারিয়ার উধাও হয়ে যাওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়ে। সোস্যাল মিডিয়া থেকে মুখ লুকোলেও এখন যুবকদের দ্বিতীয় বিয়ের প্রস্তাব থেকে রেহাই মিলছে না এ অভিনেত্রীর।

২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে হারুনের সঙ্গে আংটি বদল হয় ফারিয়ার। ২০১৯ সালের ১ ফেব্রুয়ারি জমকালো আয়োজনে বিয়ে করেছিলেন তারা।

যাযাদি/এমএস/১১:১৮

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে