ঠাকুরগাঁওয়ে বিলুপ্ত প্রায় নীলগাই উদ্ধার

ঠাকুরগাঁওয়ে বিলুপ্ত প্রায় নীলগাই উদ্ধার

জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার সীমান্তবর্তী পাড়িয়া নাগর নদীর তীর এলাকায় বিরল প্রজাতির একটি নীলগাই (গরু) আটক করেছেন স্থানীয়রা।

মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার পাড়িয়া শালডাঙ্গা এলাকায় পথচারীরা বিরল প্রজাতির নীলগাইটি দেখতে পান। পরে তারা সেটিকে আটক করে নাক ও গলায় দড়ি দিয়ে বেঁধে রাখেন।

খবর পেয়ে বালয়িাডাঙ্গী উপজেলার পারিয়া ইউপি চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমান ও স্থানীয় কান্তিভিটা বিজিবি ক্যাম্পের সদস্যরা সেখানে উপস্থিত হন। পরে বিজিবি সদস্যরা নীলগাইটি নিজেদের হেফাজতে নেন।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী আব্দুল মজিদ বলেন, ‘দ্রুতগতিতে আসা নীলগাইটিকে কয়েকজন মিলে উদ্ধার করে পা বেঁধে নিরাপদে রাখে। পরে স্থানীয় চেয়ারম্যান ও বিজিবির কাছে হস্তাস্তর করা হয়।’

খবর পেয়ে বালয়িাডাঙ্গী উপজেলার পারিয়া ইউপি চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমান ও স্থানীয় কান্তিভিটা বিজিবি ক্যাম্পের সদস্যরা সেখানে উপস্থিত হন। পরে বিজিবি সদস্যরা নীলগাইটি নিজেদের হেফাজতে নেন।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী তুষার চৌধুরী বলেন, ‘দ্রুতগতিতে আসা নীলগাইটিকে কয়েকজন মিলে উদ্ধার করে পা বেঁধে নিরাপদে রাখে। পরে স্থানীয় চেয়ারম্যান ও বিজিবির কাছে হস্তাস্তর করা হয়।’ পাড়িয়া শালডাঙ্গা এলাকার শাহাবুদ্দিন আহমেদ বলেন, এ এলাকার ধানক্ষেতগুলোতে কয়েকদিন ধরেই একটা রহস্যজনক প্রাণির পায়ের ছাপ দেখা যাচ্ছিল। তাতে করে ধারণা করা যায়, কয়েকদিন ধরে এই নীল গাইটি নিকটবর্তী জঙ্গলে অবস্থান করছিলো। সীমান্তবর্তী নাগর নদী পাড় হয়ে এটি ভারত থেকে এদেশে আসতে পারে বলে আমরা ধারণা করছি।

এ ব্যাপারে ঠাকুরগাঁও বন বিভাগের রেঞ্জ কর্মকর্তা হরিপদ দেবনাথ জানান, ‘বিলুপ্তপ্রায় নীলগাইটি বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় পারিয়া শালডাঙ্গা এলাকায় উদ্ধারের কথা শুনেছি। বর্তমানে স্থানীয় বিজিবির কাছে রয়েছে। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। নীলগাইটির যেন কোনো সমস্যা না হয়, সেদিকে বিশেষ লক্ষ্য রাখা হচ্ছে। দিনাজপুর উদ্যানে নীলগাইটিকে নিয়ে যাওয়া হবে।’

এর আগেও একটা নীল গাই ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলার সীমান্ত এলাকায় এমন একটা নীল গাই উদ্ধার করে দিনাজপুর উদ্যানে রাখা হয়।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে