শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২০ মাঘ ১৪২৯
walton1

নবীন লিখিয়েদের স্বপ্নের পস্ন্যাটফর্ম 'স্বপ্নসাথী'

নতুনধারা
  ০৬ নভেম্বর ২০২২, ০০:০০
লিটল ম্যাগাজিন বা সাহিত্য পত্রিকা সাহিত্য অনুশীলন ও প্রচারের অন্যতম এক মাধ্যম। সাহিত্যেরও ভালো-মন্দ দুটো দিক আছে। 'সাহিত্য' একটি সুন্দরের নাম। সব সৌন্দর্য ভালোর জন্যই হওয়া উচিত। এই সময়ে শুদ্ধ সাহিত্য চর্চার গুরুত্ব অপরিসীম। দূষিত সাহিত্যের প্রতি পাঠকের ঝোঁক কমিয়ে আনতে ইসলামি ভাবধারার সাহিত্য চর্চার জুড়ি নেই। নবীন লেখক তৈরিতে লিটল ম্যাগের অবদান অনস্বীকার্য। সে উপলব্ধি থেকেই তরুণ কবি সাইফুলস্নাহ ইবনে ইব্রাহিম নতুন একটি ম্যাগাজিন প্রকাশের কাজ শুরু করেন এ বছর। তার সম্পাদিত এই ম্যাগাজিনটির নাম 'স্বপ্নসাথী'। হঁ্যা! স্বপ্নেরই সাথী! নবীন লিখিয়েদের স্বপ্নের সাথী। লেখালিখির স্বপ্নপূরণে একটি সুন্দর পস্নাটফর্ম। এখানে একদল নবীন লিখিয়েদের লেখা ছাপা হয়; সঙ্গে প্রবীণদেরও। এতে নবীন লিখিয়েরা নিজেদের লেখার সঙ্গে সঙ্গে একই পস্নাটফর্মে প্রবীণদের লেখাও পড়তে পারে। তাদের লেখা পড়ে আরও অনুপ্রাণিত হয়। এভাবে আশা করা যায় তারাও একদিন প্রতিষ্ঠিত লেখক হয়ে উঠবে। আলহামদুলিলস্নাহ, এপর্যন্ত স্বপ্নসাথীর চারটে সংখ্যা প্রকাশিত হয়েছে। সবই পড়ার সুযোগ হয়েছে আমার। স্বপ্নসাথীর উত্তরোত্তর উন্নতিও লক্ষ্য করছি। এবার স্বপ্নসাথী ৪র্থ তথা সর্বশেষ সংখ্যাটি নিয়ে একটু পর্যালোচনা করি। স্বপ্নসাথীর এ সংখ্যায় একেবারে নবীন লিখিয়েদেরও অনেক সুন্দর সুন্দর কবিতা, ভ্রমণকাহিনী ছাপা হয়েছে। যেমন-শিব্বীর আহমদ শিবলী, তাওহিদুল ইসলাম, আবু দারদা ফাহিম; তিনজনই এই জগতে নতুন। জেনেছি তারা এতটাই নবীন লেখক যে, এই লেখাগুলোই তাদের ছাপা হওয়া প্রথম লেখা। কিন্তু মাশাআলস্নাহ, প্রত্যেকের লেখাই খুব সুন্দর ও প্রশংসনীয়। নিয়মিত সাহিত্যচর্চা করলে প্রত্যেকেই জীবনে প্রতিষ্ঠিত লেখক হতে পারবে বলে আশা করা যায়। নবীন কবিরাও পিছিয়ে নেই তাদের কবিতা নিয়ে। যেমন- শিফতা শহীদ যুলফা 'বই' নিয়ে চমৎকার একটি ছড়া লিখেছেন। যার চারটে লাইন এই- 'বইকে যদি বন্ধু বানাও/পাবে আলোর পথ/দেখবে জীবন বাঁকে বাঁকে/বইবে জ্ঞানের নদ।' আরও কিছু ছড়া ভালো লেগেছে। যেমন, শিশুদের নিয়ে মিজানুর রহমানের লেখা সুন্দর একটি ছড়ার একাংশ- 'শিশুরা থাকে খুব/কোমলমতি/ইচ্ছায় কারও কোনো/করে না ক্ষতি।' নূরুল ইসলাম নাযীফের ছড়াগুচ্ছের একটি- 'সঙ্গ ছাড় মন্দ লোকের/সঙ্গী থাক ভালোর/জীবন মাঝে পাবে তবে/দেখা সঠিক আলোর।' আমাদের সম্পাদক সাহেবের ছড়াটিও ছিল অনবদ্য। ফুল-পাখি নিয়ে কত সুন্দর ছড়াই না লিখেছেন কবি! চারটি লাইন উদ্ধৃতি না করে বোঝাই কী করে! 'ফুল ছুঁয়ে ঘ্রাণ নিই/চোখ মেলে দেখি/তবু মন ভরে না তো/অপরূপা সে কী!' পুরো ছড়াটা পড়লে নিশ্চয় যে কোনো পাঠক মুগ্ধ হবেন। স্বপ্নসাথীর এ সংখ্যায় প্রকাশিত গল্পগুলোও খুব সুন্দর। গল্পের চরিত্রে উঠে এসেছে সমাজের বাস্তবতার চিত্র। শিক্ষণীয় উপদেশ। যা পাঠক পড়লেই বুঝতে পারবেন। সম্পাদক সাহেবের লেখা 'খালিদ ও একটি ইঁদুর' এবং হুমায়রা আফরিনের লেখা 'ঈদ, কিশোরী খাদিজার জীবনসংগ্রাম' শিরোনামে গল্প দুটো সত্যিই ভালো লেগেছে! জসীম উদ্দীন মুহম্মদ রচিত 'বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠায় হজরত মুহম্মদ (সা.)-এর জীবন দর্শন' প্রবন্ধটিও ছিল অসাধারণ। যাতে মানুষের মধ্যে শান্তি প্রতিষ্ঠায় নবিজি সালস্নালস্নাহু আলাইহি ওয়াসালস্নামের আদর্শ ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। এককথায় যদি লিটল ম্যাগ স্বপ্নসাথী সম্পর্কে কিছু বলতে হয়, তাহলে বলব লেখায় শালীনতা, সৌন্দর্য ও ইসলামের সঙ্গে সম্পৃক্ততা বজায় রাখে, এমন সাহিত্য ম্যাগাজিনগুলোর মধ্যে এটি অন্যতম। যা শিশু-কিশোরসহ সব শ্রেণির পাঠকের জন্য উপযোগী। আবু হুরায়রা সোহান
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে