তুমি সুখী হও সুখী রও

তুমি সুখী হও সুখী রও

কাজী নজরুল ইসলাম লিখেছিলেন- 'কবিরা কাউকে আঘাত করে না। আঘাত করলেও ফুল দিয়ে আঘাত করে।' গুরুর কথাটা আমার প্রায়ই মনে পড়ে। কারণ, ফাঁক পেলে টুকটাক লেখালেখি করি; দেখে তুমি তো আমাকে মাঝে মাঝে 'কবি'-ই ডাকতে। এই কবির ভেতরের সর্বোত্তম ভালোবাসার প্রতিদানে তুমি তাকে যে আঘাত দিয়েছ তার বিপরীতে তুমি কঠিন থেকে কঠিনতম শাস্তি পাওয়ার যোগ্য। কিন্তু আমি তোমাকে তো তা দেইনি বরং দেওয়ার কথা একবার ভাবিওনি। স্রষ্টার কাছে বিচারের দাবি জানানো তো বহু দূরের কথা। তোমার এমন নিষ্ঠুরতার পরও আমি তোমাকে ফুল দিয়েও আঘাত করিনি, করার চিন্তাও কখনো করিনি। তার সব থেকে বড় উদাহরণ, বহুবার কাছে পেয়েও আমি তোমাকে একবারের জন্যও জিজ্ঞেসও করলাম না তুমি কেন আমার সঙ্গে এরকম প্রতারণা, ছলনা, বিশ্বাসঘাতকতা করলে? বরং তুমি-ই আমাকে বহু, বহুবার প্রশ্ন করে জানতে চেয়েছ, তোমার নষ্ট-নোংরা আচরণের বিপরীতে তোমার বিরুদ্ধে আমি কিছু করিনি কেন? কিছু বলিনি কেন? আমি তোমার এমন প্রশ্ন প্রায় সব সময়ই দক্ষতার সঙ্গে এড়িয়ে গেছি। যাতে বিষয়টা কালের গহিনে তলিয়ে যায়। জানি, যাবে না, তবুও কিছুটা যদি যায়! তোমার জোরাজুরিতে মাঝে মাঝে এ ধরনের প্রশ্নের উত্তরে শুধু বলেছি- যা হয়েছে তা আমার কপালের লিখন হিসেবে মেনে নিলাম। কখনো বলেছি, আমি হয়তো এরকম আচরণেরই যোগ্য, সেজন্যই তুমি এরকম করেছ। তুমি নির্দোষ, আমি শত দোষে দোষী। এসব উত্তরে তুমি কখনোই সন্তুষ্ট হওনি, হওয়ার কথাও না। একবার যখন বললাম, তোমার সব ভুল, অন্যায়, অবিচার, ছলনা, প্রতারণা, বিশ্বাসঘাতকতা আমি ক্ষমা করে দিলাম। এই ক্ষমাই আমার পক্ষ থেকে তোমার জন্য শ্রেষ্ঠ আর চূড়ান্ত শাস্তি। তখন সঙ্গে সঙ্গেই তোমার নয়ন থেকে অশ্রম্ন ঝরতে দেখেছি। হাউ মাউ করে কেঁদে দিয়েছিলে তুমি। শত চেষ্টা করেও তোমার কান্না থামাতে পারছিলাম না। কান্নার কারণে তুমি কথা পর্যন্ত বলতে পারছিলে না। এক সময় যখন তোমার কান্না কিছুটা থামলো তখন তুমি কান্নারত কণ্ঠেই বলেছিলে, 'তুমি ক্ষমা করে দিয়েছ বলেই হয়তো আজ আমি এতটা কষ্ট আর যন্ত্রণায় জ্বলছি। তুমি যদি আমাকে কোনো শাস্তি দিতে তাহলে হয়তো এতটা দুঃখানলে আমাকে পুড়তে হতো না।'

বিশ্বাস কর হাফিজা, ওই কথাগুলো আমার সত্যিই খুব খারাপ লেগেছিল। কেউ না জানুক, হৃদয়ের স্রষ্টা জানে, আমার হৃদয় তোমাকে কতটা সুখী দেখতে চায়। তুমি সুখী হও, সুখী রও অনন্তকাল ধরে- এ আমার অন্তরের চাওয়া। পরম করুণাময়ের কাছে এ আমার পরম প্রার্থনা।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে