২০২১ সালে প্রথিতযশা ছয় আইনজীবীর প্রয়াণ

২০২১ সালে প্রথিতযশা ছয় আইনজীবীর প্রয়াণ

বিদায় নিয়েছে ২০২১। নতুন বছর ২০২২ বরণপূর্বক পুরনোকে ভুলে নবসূচনা হয়েছে সব ক্ষেত্রে। তবে পুরনো বলে সব কিছু ফেলে আসার সুযোগ ক্ষেত্রবিশেষে নেই। ২০২১ শুধু বছর হিসেবে বিদায় নেয়নি, নিয়ে গেছে প্রখ্যাত ছয় আইনজীবীকেও। খ্যাতিমান এসব আইনজীবীর প্রয়াণ আইনাঙ্গনে নামিয়েছে শোকের ছায়া।

আবদুল বাসেত মজুমদার

গত ২৭ অক্টোবর বার কাউন্সিলের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি প্রবীণ আইনজীবী আবদুল বাসেত মজুমদার মৃতু্যবরণ করেন। মৃতু্যকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর। মৃতু্যকালে দুই ছেলে, দুই মেয়ে, আত্মীয়স্বজন ও অসংখ্য শুভাকাঙ্ক্ষী রেখে গেছেন তিনি।

মওদুদ আহমদ

বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ ও প্রথিতযশা আইনজীবী মওদুদ আহমদ ১৬ মার্চ সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃতু্যবরণ করেন। তিনি দেশের উপরাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী ও সাবেক আইনমন্ত্রী ছিলেন। তার বয়স হয়েছিল ৮২ বছর। বর্ণাঢ্য রাজনীতিক জীবনের অধিকারী বীর মুক্তিযোদ্ধা মওদুদ আহমেদ মৃতু্যকালে স্ত্রী ও এক কন্যাসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

আবদুল মতিন খসরু

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক আইনমন্ত্রী, কুমিলস্না-৫ আসনের সংসদ সদস্য ও সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি আবদুল মতিন খসরু করোনায় আক্রান্ত হয়ে গত ১৪ এপ্রিল ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। তার বয়স হয়েছিল ৭১ বছর। কুমিলস্নায় জন্মগ্রহণ করা মতিন খসরু ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করেন।

পরিমল চন্দ্র গুহ

সুপ্রিম কোর্টের জ্যেষ্ঠ আইনজীবী বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সাবেক ফাইন্যান্স কমিটি ও হাউস কমিটির চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিমল চন্দ্র গুহ (পি সি গুহ) গত ১৬ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। মৃতু্যকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর।

জেয়াদ আল মালুম

সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ও আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবু্যনালের প্রসিকিউটর এবং বীর মুক্তিযোদ্ধা জেয়াদ আল মালুম গত ২৬ জুন দিবাগত রাত ১২টা ৩৫ মিনিটে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচে) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। মৃতু্যকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৭ বছর।

জিয়াউর রহমান খান

সুপ্রিম কোর্টের জ্যেষ্ঠ আইনজীবী এবং সাবেক সংসদ সদস্য ও বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য জিয়াউর রহমান খান করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ এপ্রিল রাত ১০টায় রাজধানীর ইমপালস হাসপাতালে মৃতু্যবরণ করেন। মৃতু্যকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর। জিয়াউর রহমান খানের বাবা আতাউর রহমান খান ১৯৫৬ সালে পূর্ব পাকিস্তানের মুখ্যমন্ত্রী ও ১৯৮৪ সালে এরশাদ সরকারের সময় প্রধানমন্ত্রী ছিলেন।

উলেস্নখ্য, বিখ্যাত এই ছয় আইনজীবী ছাড়াও সুপ্রিম কোর্টের বেশ কয়েকজন আইনজীবী মৃতু্যবরণ করেছেন ২০২১ সালে। এছাড়া সহকর্মী হারানোর বেদনায় ভেসেছে জেলা আইনজীবী সমিতিগুলোও। এর মধ্যে উলেস্নখযোগ্য সংখ্যক আইনজীবী মারা গেছেন ঢাকার অধস্তন আদালতের। ২০২১ সালের প্রথম চার মাসেই ঢাকা আইনজীবী সমিতির ৩২ জন সদস্য মারা গেছেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

সকল ফিচার

ক্যাম্পাস
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
হাট্টি মা টিম টিম
কৃষি ও সম্ভাবনা
রঙ বেরঙ

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে