বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯
walton1

হাইকোর্ট পারমিশন লিখিত পরীক্ষার অনলাইন ফরম পূরণ শুরু

আইন ও বিচার ডেস্ক
  ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ০০:০০
বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের পরবর্তী হাইকোর্ট পারমিশন লিখিত পরীক্ষার অনলাইন ফরম পূরণ কার্যক্রম শুরু হয়েছে। অনলাইনে ফরম পূরণ সংক্রান্ত দিকনির্দেশনা সংবলিত বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে সংস্থাটি। বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) থেকে ফরম পূরণ কার্যক্রম শুরু হয়েছে, চলবে আগামী ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত। আর হাইকোর্ট পারমিশন লিখিত পরীক্ষার সম্ভাব্য সময় আগামী বছর অর্থাৎ ২০২৩ সালের মধ্য জানুয়ারি। প্রয়োজনীয় তথ্যাবলি দিয়ে নির্ধারিত ওয়েবসাইটে (যঃঃঢ়://নধৎ.ঃবষবঃধষশ.পড়স.নফ) ফরম পূরণ করা যাবে। এক্ষেত্রে নিয়মিত প্রার্থীদের (জবমঁষধৎ ঈধহফরফধঃব) হাইকোর্ট পারমিশন ফি, পরীক্ষা ফি ও অনলাইন সার্ভিস চার্জ মিলে ১২ হাজার ৯৬০ টাকা প্রিপেইড টেলিটক নাম্বার থেকে পরিশোধ করতে হবে। এছাড়া যেসব অনিয়মিত প্রার্থীদের (জব-ধঢ়ঢ়বধৎ ঈধহফরফধঃব) রেজিস্ট্রেশন কার্ডের মেয়াদ ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বলবত আছে তারা একই ওয়েবসাইটে (যঃঃঢ়://নধৎ.ঃবষবঃধষশ.পড়স.নফ) ফরম পূরণ করতে পারবেন। আর এজন্য তাদের পরীক্ষা ফি ও অনলাইন সার্ভিস চার্জসহ ২ হাজার ১৬০ টাকা প্রিপেইড টেলিটক নাম্বার থেকে পরিশোধ করতে হবে। পাশাপাশি যেসব প্রার্থী হাইকোর্ট পারমিশনের পূর্বের কোনো পরীক্ষায় অকৃতকার্য হয়েছেন এবং যাদের রেজিস্ট্রেশন কার্ডের মেয়াদ ৩১ ডিসেম্বর শেষ হচ্ছে তাদের বার কাউন্সিলের রেজিস্ট্রেশন ডিপার্টমেন্ট থেকে নতুন রেজিস্ট্রেশন নম্বর সংগ্রহ করতে হবে ও নির্ধারিত ওয়েবসাইটে (যঃঃঢ়://নধৎ.ঃবষবঃধষশ.পড়স.নফ) ফরম পূরণ করতে হবে। পুনরায় রেজিস্ট্রেশন (জব-ৎবমরংঃৎধঃরড়হ) নম্বরপ্রাপ্ত প্রার্থীরা পিউপিলেজ ডিউরেশন পর্যন্ত নিয়মিত প্রার্থী (জবমঁষধৎ ঈধহফরফধঃব) হিসেবে বিবেচিত হবেন। এক্ষেত্রে প্রার্থীদের হাইকোর্ট পারমিশন ফি, পরীক্ষা ফি ও অনলাইন সার্ভিস চার্জ মিলে ১২ হাজার ৯৬০ টাকা প্রিপেইড টেলিটক নাম্বার থেকে পরিশোধ করতে হবে। অনলাইন ফরম পূরণ প্রক্রিয়া শুরু করতে প্রার্থীদের ভ্যালিড রেজিস্ট্রেশন নম্বর প্রয়োজন হবে। ভ্যালিড রেজিস্ট্রেশন নম্বর ব্যতীত ছাড়া কোনো আবেদন সাবমিট করা যাবে না। সব উপযুক্ত প্রার্থীকে নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে অনলাইনে ফরম পূরণ ও ফি জমা দিতে হবে। নির্ধারিত তারিখ ও সময় অতিবাহিত হওয়ার পর অনলাইন ফরম পূরণ প্রোগ্রাম স্বয়ংক্রিয়ভাবে বন্ধ হয়ে যাবে। সময় শেষ হওয়ার পর লিখিত পরীক্ষার ফরম দাখিলের জন্য নতুন করে কোনোরূপ আবেদন/নিবেদন গ্রহণ করা হবে না।
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে