• মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারি ২০২১, ১২ মাঘ ১৪২৭

অ স্ট্রে লি য়া

বন্দি শরণার্থীরা আত্মহত্যার চেষ্টা করছে

বন্দি শরণার্থীরা আত্মহত্যার চেষ্টা করছে

অস্ট্রেলিয়ায় ঢুকতে না পারার হতাশা থেকে নাউরু আর ম্যানাস দ্বীপে বন্দি শরণার্থীরা আত্মহত্যার চেষ্টা করছে। অস্ট্রেলিয়ায় নির্বাচনের পর সে দেশে ঢুকতে না পারার হতাশাজনিত কারণে বেশ কয়েকজন আটক অভিবাসনকামী শরণার্থী আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন বলে জানাচ্ছেন মানবাধিকার কর্মীরা।

জাহাজে চেপে যেসব অভিবাসী অস্ট্রেলিয়ায় যাওয়ার চেষ্টা করেছেন ২০১৩ সালের পর থেকে এদের আটক করে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে পাশের দ্বীপ নাউরু এবং পাপুয়া নিউ গিনির অধীন ম্যানাস আইল্যান্ডে। অস্ট্রেলিয়ার ক্ষমতাসীন এবং বিরোধী দল উভয়েই অভিবাসীদের দ্বীপান্তরে পাঠানোর নীতিমালায় সমর্থন দিয়েছে।

তবে অভিবাসীরা ভেবেছিলেন সে দেশের নির্বাচনের পর সরকারের নীতিমালায় পরিবর্তন ঘটবে। কিন্তু সে আশার গুড়ে বালি। তবে এখন পর্যন্ত মোট কতজন আত্মহত্যার প্রচেষ্টা চালিয়েছে তার সঠিক সংখ্যা জানা যাচ্ছে না।

ম্যানাস আইল্যান্ড পুলিশের কর্মকর্তা ডেভিড ইয়াপু বার্তা সংস্থা এএফপিকে জানিয়েছেন, শুধু চলতি সপ্তাহান্তেই চারজন সুইসাইড করার চেষ্টা করেছে বলে তিনি জানেন। গত শনিবার থেকে পাপুয়া নিউ গিনিতে অন্তত ১২ জন আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

অস্ট্রেলিয়ার সরকার এই ঘটনার ওপর সরাসরি কোনো মন্তব্য করেনি। তবে এক বিবৃতিতে তারা বলছে, নাউরু এবং পাপুয়া নিউ গিনিতে যেসব লোক রয়েছে তাদের স্বাস্থ্য এবং ভালোমন্দের দিকে নজর রাখার দায়িত্বকে তারা গুরুত্বের সঙ্গে নিয়ে থাকে।

নির্বাচনের আগে অস্ট্রেলিয়ার বিরোধীদল লেবার পার্টি ঘোষণা করেছিল, তারা জয়লাভ করলে আটক হওয়া অভিবাসনকামীদের মধ্যে থেকে ১৫০ জনকে তারা নিউজিল্যান্ডে বসবাসের জন্য পাঠিয়ে দেবে। কিন্তু তারা নির্বাচনে পরাজিত হয়েছে।

পাপুয়া নিউ গিনি এবং নাউরুতে এখন যারা আটক রয়েছে তাদের সামনে এখন তিনটি পথ খোলা: ১. ওই দ্বীপেই স্থায়ীভাবে থেকে যাওয়া ২. যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসনের জন্য সীমিত সুযোগের জন্য আবেদন করা, অথবা ৩. নিজ দেশে ফিরে যাওয়া।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে