শনিবার, ১৬ জানুয়ারি ২০২১, ২ মাঘ ১৪২৭

সৌরভ ছড়াচ্ছেন লুইপা

সৌরভ ছড়াচ্ছেন লুইপা
জিনিয়া জাফরিন লুইপা

কণ্ঠশিল্পী লুইপা। পুরো নাম জিনিয়া জাফরিন লুইপা। এটাই তার পরিচয়। ছোটবেলা থেকেই গানের সঙ্গে বসবাস। গানের সেই সুপ্ত প্রতিভা দেশব্যাপী ছড়িয়ে পড়ে ২০১০ সালের 'চ্যানেল আই সেরা কণ্ঠ' প্রতিযোগিতার মাধ্যমে। যদিও প্রতিযোগিতা চলাকালীন একপর্যায়ে এসে লুইপা বাদ পড়ে গিয়েছিলেন। কিন্তু পরে আবার তিনি চাষি নজরুল ইসলাম পরিচালিত 'দেবদাস' চলচ্চিত্রে রুনা লায়লার গাওয়া 'পায়েরই নূপুর আমার জাদু জানে' গানটি গেয়ে লুইপা আবার ফিরে আসেন 'সেরাকণ্ঠ-২০১০' প্রতিযোগিতায়। তারপরই বদলে যায় লুইপার ধ্যানধারণা। গান নিয়ে নতুন আশা জাগে মনের মধ্যে। চ্যানেল আই সেরাকণ্ঠ খেতাব পাওয়ার পর থেকে ব্যস্ততা বাড়তে থাকে তার। একক অ্যালবাম প্রকাশ পাওয়ার আগেই অসংখ্য প্রস্তাব আসতে থাকে, গায়কির প্রশংসায় ভাসতে থাকেন তিনি। স্টেইজ শোর পাশাপাশি বিভিন্ন চ্যানেলে লাইভ অনুষ্ঠানে গান গাওয়ার ডাক পড়ে লুইপার। গানের মাঝেই আসে উপস্থাপনার প্রস্তাব। লুফেও নেন সেই প্রস্তাব। চ্যানেল আই'র 'গানে গানে সকাল শুরু'সহ একই চ্যানেলের বিভিন্ন অনুষ্ঠানেরও নিয়মিত উপস্থাপনা করেন তিনি। গান এবং উপস্থাপনা দুই মাধ্যমেই সফলভাবে পথ চলতে থাকেন লুইপা। শুধু তাই নয়, অভিনয়ের সঙ্গেও জড়িয়ে যান তিনি। বেশ কয়েকটি নাটকে অভিনয় করেছেন লুইপা। তবে অভিনয় কিংবা উপস্থাপনা- যাই হোক না কেন, গানই তার একমাত্র ভালোলাগা, ভালোবাসা। গানে তার উন্মাদনা, দর্শকের করতালি, প্রশংসা- সবকিছুর মধ্যেই অন্যরকম মাধুর্য খুঁজে পান এ গায়িকা। লুইপা বলেন, 'ছোটবেলা থেকে গানই বেশি ভালোলাগে আমার। তবে যেহেতু স্কুলে পড়াশুনাকালীন আবৃত্তি করতাম, তাই উপস্থাপনাও ভীষণ ভালোলাগে আমার। তবে সবাই দোয়া করবেন যেন গানেই নিজেকে ভালোভাবে প্রতিষ্ঠিত করতে পারি।'

গান দিয়ে এরই মধ্যে অনেকখানি এগিয়ে গেছেন লুইপা। এ সময়ের যে কজন প্রতিষ্ঠিত কণ্ঠশিল্পী আছেন, তাদের দলে অন্যতম কণ্ঠশিল্পীর তকমা পেয়েছেন তিনি। ভক্তও তৈরি হয়েছে অসংখ্য। ভক্তদের ভালোবাসায় প্রতিনিয়ত গান গেয়ে যাচ্ছেন সময়ের এ ব্যস্ত গায়িকা।

গত ১৭ নভেম্বর উপমহাদেশের আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন সংগীতশিল্পী ও সুরকার রুনা লায়লার সুরে লুইপার কণ্ঠে ইউটিউবে প্রকাশিত হয় 'এই দেখা শেষ দেখা' গানটি। গানটি লিখেছেন বরেণ্য গীতিকার গাজী মাজহারুল আনোয়ার, সুর করেছেন রুনা লায়লা। সংগীতায়োজন করেছেন লন্ডনের রাজা ক্যাশেফ। গানটির মিউজিক ভিডিও নির্মাণ করেছেন চন্দন রায় চৌধুরী। গানটি প্রকাশের প্রথম দিন থেকে রুনা লায়লার সুরে অসাধারণ গায়কি এবং মিউজিক ভিডিওতে আবেগঘন দৃশ্যে লুইপা তার অনবদ্য অভিনয়ের জন্য ভূয়সী প্রশংসিত হন। ইউটিউবে গানটি প্রকাশের পর থেকে এখন পর্যন্ত গানটি উপভোগ করেছেন ত্রিশ হাজারেরও বেশি ভিউয়ার্স। রুনা লায়লার সুরে যখন পাঁচটি গান নিয়ে এই প্রজেক্টের কাজ শুরু

হয় তখন রুনা লায়লার প্রথম পছন্দ ছিল লুইপা। কারণ লুইপার কণ্ঠে রুনা লায়লা তখন বেগম আখতারের গাওয়া

'জোছনা করেছেন আড়ি' গানটি শুনে মুগ্ধ হয়েছিলেন। তখন থেকেই রুনা লায়লার পরিকল্পনা ছিল যে লুইপাকে দিয়ে একটি গান করাবেন তিনি। সেই ভাবনা থেকেই মূলত লুইপাকে দিয়ে 'এই দেখা শেষ দেখা' গানটি করানো হয়। লুইপার গায়কিতে ভীষণ মুগ্ধ হন রুনা লায়লা।

গানটি নিয়ে লুইপা বলেন, 'অবশ্যই কৃতজ্ঞতা শ্রদ্ধেয় রুনা লায়লা ম্যাডামের প্রতি। কারণ তার আগ্রহের কারণেই এই গান আমার কণ্ঠে স্থান পেল। তিনি আমাকে স্নেহ করে ভালোবেসে এই গান উপহার দিয়েছেন। আমি তার সুরে গাইতে পেরেছি এর চেয়ে বড় পাওয়া এক জীবনে আর কী-ই বা হতে পারে। আমার সৌভাগ্য যে তারই জন্মদিনে তারই সুর করা গান শ্রোতা দর্শককে উপহার দিতে পেরেছি। গানটির জন্য প্রতিনিয়তই আমি বেশ সাড়া পাচ্ছি। শুধু গায়কির জন্যই নয়, গানটিতে আমার অভিনয়েরও অনেকেই প্রশংসা করছেন। সত্যি বলতে চন্দন দা আমাকে যেভাবে নিজেকে উপস্থাপন করতে বলেছেন, আমি সেভাবেই নিজেকে উপস্থাপন করেছি। দর্শকের ভালোলাগছে, এটাই আমার অনেক বড় প্রাপ্তি।'

এদিকে গত ১৮ নভেম্বর সকালে চ্যানেল আইতে 'গান দিয়ে শুরু' অনুষ্ঠানে অন্যান্য গানের পাশাপাশি রুনা লায়লার নিজের সুর করা গাওয়া 'ফেরাতে পারিনি আর' গানটি পরিবেশন করেন লুইপা। গানটি লিখেছেন কবির বকুল এবং সংগীতায়োজন করেছেন রাজা ক্যাশেফ। একই গান লুইপা গত বছর রুনা লায়লার জন্মদিনে বাংলা টিভিতে গেয়েছিলেন। ২৮ নভেম্বর লুইপা বিটিভির 'স্মৃতি জাগানিয়া' অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন। আর ২৬ নভেম্বর এটিএন বাংলার 'মিউজিক লাউঞ্জ' অনুষ্ঠানে সরাসরি সংগীত পরিবেশন করেন লুইপা। সব মিলিয়ে দারুণ ব্যস্ত সময় কাটছে তার।

বগুড়ার মেয়ে লুইপার ছোটবেলায় গান শিখেছেন এস এম বেলাল হোসেন, মো. রেজওয়ানুল ইসলাম ও আব্দুল মজিদের কাছে। তার প্রিয় শিল্পী ফেরদৌসী রহমান। তবে রুনা লায়লা, সাবিনা ইয়াসমিন, লতা মুঙ্গেশকর, আশা ভোঁসলে ও শ্রেয়া ঘোষালের গান তিনি বেশি শুনেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে