উচ্চাশা শেষে হতাশা

উচ্চাশা শেষে হতাশা
আলিয়া ভাট

বলিউডের এ সময়ের অন্যতম আলোচিত তারকা আলিয়া ভাট। গত দুই বছর বলিউডের বেশ কয়েকজন নামকরা পরিচালকের সিনেমায় কাজ করেছেন। মুক্তির কথাও ছিল কয়েকটি সিনেমার; যেগুলোর মাধ্যমে নতুন করে দু্যতি ছড়াতে চেয়েছিলেন ভক্ত-অনুরাগীর মধ্যে। কিন্তু করোনার কারণে অনেক সিনেমার মুক্তি যেমন স্থগিত হয়ে গেছে, তেমনি শুটিংও বাতিল হয়ে যায় কয়েকটির। তবে বছরজুড়েই রণবীর কাপুরের সঙ্গে প্রেম ও বিয়ে নিয়ে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে ছিলেন এই অভিনেত্রী। দফায় দফায় বিয়ের গুজব শোনা গেলেও শেষমেশ কোনোটাই বাস্তবে পরিণত হয়নি। সর্বশেষ গুঞ্জন উঠেছিল বছরের শেষে অর্থাৎ ২০২১ সালের ডিসেম্বরেই সাত পাকে বাঁধা পড়বেন রণবীর-আলিয়া জুটি। সেটাও মিথ্যা প্রমাণিত হয়। তবে বিয়ের গুঞ্জন-গুজবকে আপাতত দূরে রেখে নতুন বছরের শুরুতেই বেশ ফুরফুরে মেজাজে রয়েছেন মহেশভাটকন্যা আলিয়া। কারণ বছরের শুরুতেই প্রকাশ প্রায় তার অভিনীত বহুল প্রতীক্ষিত 'গাঙ্গুবাই কাটিয়াদি' সিনেমার ফার্স্ট লুক। আর ফার্স্ট লুক প্রকাশের পর থেকেই দিন গুনতে শুরু করেছেন আলিয়া- কবে তিনি আবার বড় পর্দার দর্শকের মুখোমুখি হবেন! এরই মধ্যে সিনেমাটির মুক্তির তারিখও ঘোষিত হয়েছে। আগামী ১৮ ফেব্রম্নয়ারি মুক্তি পাচ্ছে 'গাঙ্গুবাই কাটিয়াদি'। বিষয়টি নিয়ে দারুণ উচ্ছ্বসিত এ নায়িকা। ফার্স্ট লুক প্রকাশের পর আলিয়া ভাট বলেন, 'গাঙ্গুবাই কাটিয়াদি' সিনেমাটি শুধু নির্মাতার কাছে নয়, আমার কাছেও বিশেষ। কারণ করোনা মহামারির মধ্যে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজটি শেষ করেছি। অসাধারণ একটি গল্পকে বাস্তব রূপ দিয়েছেন নির্মাতা এবং এতে নিজের সেরাটা দিয়ে অভিনয় করার চেষ্টা করেছি সবাই। যা দর্শকের সঙ্গে শেয়ার করার অপেক্ষায় আমিও ছিলাম। অবশেষে সিনেমাটি মুক্তি পাচ্ছে, এটা খুবই আনন্দের খবর। আশা করছি, অনেক প্রতীক্ষার পর ভালো একটি সিনেমা দেখতে পাবেন আপনারা।' কিন্তু সময় যত ঘনিয়ে আসছে ততই মনের সব উচ্ছ্বাস পরিণত হচ্ছে উৎকণ্ঠায়। কারণ আবার সেই করোনার প্রকোপ। সর্বগ্রাসী এই ভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন বিশ্বজুড়ে আবারও মহামারিকে ডেকে আনছে। ইতোমধ্যে বেশ কিছু দেশে ওমিক্রন বাজেভাবে প্রভাব ফেলেছে। ভারতেও প্রতিদিন বাড়ছে ওমিক্রন আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। এরই মধ্যে ভারতের বেশ কয়েকটি রাজ্যের সরকার ভাইরাসের বিস্তার রোধে নানা রকম বিধিনিষেধ জারি করছে। বিধিনিষেধের মুখে পড়ছে সেইসব রাজ্যের সিনেমা হলগুলোও। বছরের শুরুতেই হারিয়ানা সরকার ঘোষণা দিয়েছে, গুরুগ্রাম এবং ফরিদাবাদসহ পাঁচটি জেলায় সিনেমা হল, মাল্টিপেস্নক্স, স্পোর্টস কমপেস্নক্স বন্ধ থাকবে। ফরিদাবাদ এবং গুরুগ্রাম ছাড়াও হরিয়ানার আম্বালা, পঞ্চকুলা এবং সোনিপতে এই নিষেধাজ্ঞা প্রযোজ্য হবে। রাত ১১টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত নাইট কারফিউ ঘোষণা করেছে রাজ্যটি। দিলিস্ন সরকার রাজধানীতে সিনেমা হল সম্পূর্ণ বন্ধ করার নির্দেশ দেওয়ার কয়েকদিন পরেই এই আদেশ এলো। এদিকে দিলিস্নতে সিনেমা হল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় সিনেমার ব্যবসায় বেশ প্রভাব পড়েছে। দিলিস্ন সরকার তার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করার পর শহিদ কাপুরের 'জার্সি'র টিম ঘোষণা করেছে যে, তাদের সিনেমাটি অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত করা হলো। বিগ বাজেটের 'আরআরআর' সিনেমার মুক্তিও পিছিয়ে নেওয়া হয়েছে। আর এই 'আরআরআর' সিনেমাতেও গুরুত্বপূর্ণ একটি চরিত্রে অভিনয় করছেন আলিয়া ভাট। যে কারণে আগামী ১৮ ফেব্রম্নয়ারির আগে পরিস্থিতি কোন দিকে মোড় নেবে- তা যেমন আন্দাজ করা যাচ্ছে না, তেমনি আলিয়ার 'গাঙ্গুবাই কাটিয়াদি' সিনেমাটি মুক্তি পাবে কি না- সেটাও অনিশ্চিত হয়ে পড়ছে। পরিশ্রমের পাশাপাশি সিনেমাটি নিয়ে অনেক ঝক্কি-ঝামেলাও পোহাতে হয়েছে এই অভিনেত্রীকে। তাছাড়া গল্প, চিত্রনাট্য, চরিত্র ও গান- সবকিছু মিলিয়ে বছরের শুরুতেই এই সিনেমাটির মাধ্যমে বড় একটা ঝলক দেখানোর প্রত্যয়ও ব্যক্ত করেছিলেন আলিয়া। কিন্তু করোনা এবং নতুন আতঙ্ক ওমিক্রন এসে সবকিছু এলোমেলা করে দিয়ে যাবে কি না- এ নিয়ে ভীষণ হতাশ 'স্টুডেন্ট অব দ্য ইয়ার'খ্যাত এ তারকা। 'গাঙ্গুবাই কাটিয়াদি' ছাড়াও এ বছরে আলিয়া ভাট অভিনীত আরও কয়েকটি বিগ বাজেটের সিনেমা মুক্তির তালিকায় রয়েছে। পাশাপাশি বেশ কয়েকজন খ্যাতিমান নির্মাতার সিনেমায় কাজ করারও কথা রয়েছে তার। সবকিছু ভেবে মানসিকভাবে কিছুটা ভেঙে পড়েছেন বলেও উলেস্নখ করেছেন এই অভিনেত্রী। তবে বছরের শুরুতেই এমন ধাক্কার মুখে পড়তে হবে, এমনটি ভাবেননি তিনি। বলিউডের বহুল আলোচিত 'গাঙ্গুবাই কাটিয়াদি' সিনেমাটিতে কাজ করতে গিয়ে আইনি ঝামেলায় পড়েছিলেন এর নির্মাতা, নায়িকা ও গল্পকার। সিনেমাটির গল্প গড়ে উঠেছে এক মাফিয়া কুইনের জীবনের গল্প নিয়ে। যার কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন আলিয়া ভাট। সিনেমাটি নির্মাণ করেছেন সঞ্জয় লীলা বানশালি। কিছু দিন আগে ছবির শুটিং শেষ হওয়ার কথা ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছিলেন আলিয়া ভাট। জানিয়েছিলেন করোনা, লকডাউন, সাইক্লোনের চোখ রাঙানির পরও ছবির শুটিং শেষ করেছেন তারা। আলিয়ার পোস্টে উঠে আসে গত দুই বছর ধরে তাদের এই ছবির আড়ালে থাকা নানা কথা। একাধিক বাধা পেরিয়ে যেভাবে ছবির শুটিং শেষ হয়, সে কথা মনে করতে গিয়ে আবেগঘন হয়ে পড়েছিলেন আলিয়া। ২০১৯ সালে শুটিং শেষ হওয়া 'গাঙ্গুবাই কাটিয়াদি' সিনেমার টিজার মুক্তি পায়। যেখানে আলিয়া ভাটকে একেবারে অন্য এক অবতারে দেখা যায়।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

সকল ফিচার

ক্যাম্পাস
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
হাট্টি মা টিম টিম
কৃষি ও সম্ভাবনা
রঙ বেরঙ

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে