'বাঙালি বিউটি' টয়া

'বাঙালি বিউটি' টয়া
মুমতাহিনা চৌধুরী টয়া

ছোটপর্দার দর্শকপ্রিয় অভিনেত্রী মুমতাহিনা চৌধুরী টয়া- যিনি দর্শকের কাছে টয়া নামেই পরিচিত। অভিনয়ের শুরু থেকেই নিজের স্বাতন্ত্র্যের পরিচয় দিতে সক্ষম হয়েছেন। কাজ করেছেন 'বাঙালি বিউটি' নামে একটি সিনেমায়ও। এক সিনেমাতেই বাজিমাত। সিনেমাটি তাকে বড়পর্দায় আরও বড় কিছু করার সুযোগ করে দিয়েছিল। কিন্তু এরপর তার আর কোনো সিনেমায় অভিনয় করা হয়নি। 'বাঙালি বিউটি'র মতো এমন সাড়া জাগানো ছবিতে কাজ করেও তার নতুন কোনো ছবিতে কাজ না করার কারণ কি? তারার মেলার পক্ষ থেকে মুমতাহিনার কাছে এমনটি জানতে চাওয়া হলে বলেন, 'সিনেমা আমার কাছে আসলে বিশাল একটি ব্যাপার। তবে আমি বাণিজ্যিক সিনেমায় কাজ করতে চাই না। সিনেমায় কখনো কারো বাণিজ্যের অংশও হতে চাই না। আমি চাই এমন একটা ভালো গল্প ও চরিত্র, যে গল্প ও চরিত্রেরই অংশ হয়ে যেতে পারি আমি। সেরকম কোনো ভালো গল্প ও চরিত্র হাতে না আসাতে নতুন কোনো সিনেমায় কাজ করতে পারিনি আমি। আমি অবশ্যই চলচ্চিত্রের বিষয়ে ভীষণ আগ্রহী এবং তাতে নিয়মিত অভিনয় করে যেতে চাই। সেরকম ভালো মানের গল্প নিয়ে কেউ প্রস্তাব নিয়ে এলে অবশ্যই আমি চলচ্চিত্রে অভিনয় করব। প্রস্তাব তো আসেই তবে সেরকম ভালো গল্প হাতে না পড়ায় নতুন কোনো চলচ্চিত্রে অভিনয় করতে পারছি না।'

যদি সেরকম পছন্দের সিনেমায় অভিনয়ের সুযোগ আসে এবং সেটা নিয়মিতই হতে থাকে তাহলে ছোটপর্দায় থাকবেন? এমন প্রশ্নে মুমতাহিনা বলেন, 'আমরা আসলে অভিনয় শিল্পী। কোন মাধ্যম থেকে ডাক এলো সেটা আমার কাছে বড় বিষয় নয়। গল্প বা কাজ ভালো হলে সব মাধ্যমেই কাজ করে যাব। আমার এটা দেখার দরকার নেই সেটা কোথায় দেখানো হবে। যেখান থেকেই ডাক আসুক ভালো হলে আমি সব মাধ্যমেই কাজ করে যাব।' ভালো গল্পের অভাব এরকম কথা অহরহ শোনা গেলেও আমরা তো সম্প্রতি একটানা বেশ কিছু দর্শকনন্দিত নতুন সিনেমাও দেখেছি; এতেও কি মনে হয় এখন ভালো গল্পের নতুন সিনেমা আসছে? এমন কথায় টয়া বলেন, 'এটা অবশ্যই ভালো একটা দিক। এখন যেসব নতুন সিনেমা মুক্তি পাচ্ছে এগুলো দেখে আমারও এ ধরনের চলচ্চিত্রে অভিনয় করার ইচ্ছে হয়। নতুন এসব সিনেমায় অনেক ভিন্ন মাত্রার গল্পনির্ভর কাজ আছে। ভিন্ন মাত্রার সিনেমা আসছেও। এসব দেখে দর্শকও হলমুখী হচ্ছে। আমাদের সিনেমা কমার্শিয়াল ধারা থেকে গল্পভিত্তিক সিনেমায় ঝুঁকছে এটা খুবই ইতিবাচক। কমার্শিয়াল সিনেমায় অভিনয় করব না বলে ঠিক করেছিলাম সেটার পরিবর্তন খুব দ্রম্নতই শুরু হয়ে গেছে দেখে এটা আমার খুবই ভালো লাগছে। অপেক্ষায় আছি, কবে আমিও এরকম ভালো সিনেমার অংশ হতে পারব।' মুমতাহিনা টয়া ছোটপর্দা বা বড়পর্দাই নয়- ওটিটিতেও কাজ করেছেন; যদিও খুব বেশি নয়। ওটিটি বড়পর্দার পরিপূরক হতে পারে কিনা এ বিষয়ে টয়ার দৃষ্টি আকর্ষণ করলে তিনি বলেন, 'ওটিটিতে আমিও কাজ করেছি। তবে কন্টেন্টের এবং ব্যাপ্তির দিক থেকে আমি চলচ্চিত্রকেই এগিয়ে রাখব। কারণ, অন্য যে কোনো মাধ্যমের তুলনায় চলচ্চিত্র অনেক বড় একটি মাধ্যম; এটা বড় একটা ক্যানভাসের বিষয়। চলচ্চিত্রে ভালো পারফর্ম করতে পারলে একজন শিল্পীকে আজীবন বাঁচিয়ে রাখে- অন্তত আমার কাছে তাই মনে হয়। যেটা অন্য কোনো মাধ্যম করে না। সে বিবেচনায় ওটিটি চলচ্চিত্রের পরিপূরক হওয়ার মতো নয় বলেই আমি মনে করি।' নাটক বা চলচ্চিত্র যা-ই হোক ভালো গল্প হলেই হবে না- ভালো নির্মাতাও প্রয়োজন; আমাদের দেশে সেরকম ভালো নির্মাতা আছে কিনা এমন কথায় মুমতাহিনা চৌধুরী টয়া বলেন, 'অবশ্যই আমি ভালো একটি নাটক বা চলচ্চিত্রের জন্য সবার আগে গুরুত্ব দেব নির্মাতাকেই। কারণ যিনি ভালো নির্মাতা তিনি অবশ্যই ভালো গল্প নিয়েই কাজ করেন। একটি সাধারণ মানের গল্পকেও অসাধারণ করে দেখানোও কিন্তু একজন ভালো নির্মাতার কাজ। শুধু শিল্পীর অভিনয়ই নয়, সঠিক পাত্রপাত্রী নির্বাচন, লোকেশন নির্বাচন, ক্যানভাস নির্বাচন, শুটিং, পোস্ট প্রোডাকশনের যাবতীয় কাজ সবকিছুরই ভালো একটা সমন্বিত রূপ একজন ভালো নির্মাতার ওপরই নির্ভর করে। শিল্পীর সব কৃতিত্বের মূলে নির্মাতার অবদানই সবচেয়ে বেশি। নির্মাতা ভালো না হলে একজন ভালো শিল্পীও ভালো অভিনয় করতে পারবেন না।' তারপরও এখানে নায়ক-নায়িকারাই বেশি হাই লাইটেড হচ্ছেন নির্মাতারা নয়- এটাকে কীভাবে দেখছেন? এমন প্রশ্নে টয়া বলেন, 'আমি তো মনে করি এখন আমাদের দেশেও নির্মাতারা বেশ হাই লাইটেট হচ্ছেন। শুধু নায়ক-নায়িকারাই হাই লাইটের হচ্ছেন- এমন নয়।'

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে