টিকার নতুন চালান এ মাসেই পাওয়া যাবে : স্বাস্থ্যামন্ত্রী

টিকার নতুন চালান এ মাসেই পাওয়া যাবে : স্বাস্থ্যামন্ত্রী

করোনাভাইরাস প্রতিরোধী টিকার নতুন চালানের বিষয় দুই-এক দিনের মধ্যে নিশ্চিত তথ্য পাওয়া যাবে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। চলতি এপ্রিলের মধ্যেই ভারত থেকে এ চালান আসবে বলেও আশা করছেন তিনি।

মহাখালীতে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মার্কেটে নির্মিত কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতাল পরিদর্শন শেষে মঙ্গলবার বিকেলে এ তথ্য জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউটের কাছ থেকে ৩ কোটি ডোজ করোনাভাইরাসের টিকা কিনতে গত বছর নভেম্বরে চুক্তি করে বাংলাদেশ। চুক্তির আওতায় দুই চালানে ৭০ লাখ ডোজ ইতোমধ্যে বাংলাদেশ হাতে পেয়েছে। ভারত সরকারের দুই দফা উপহারের ৩২ লাখ ডোজ মিলে ১ কোটি ২ লাখ ডোজ টিকা আসে দেশে।

তবে সম্প্রতি ভারতে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সিরামের কাছ থেকে টিকার নতুন চালান পাওয়া নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক মঙ্গলবার বলেন, ‘টিকা কার্যক্রম চলমান থাকছে। আগামী বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় ডোজ দেয়া শুরু হচ্ছে। আশা করি টিকা এ মাসেই পেয়ে যাব। দু-একদিনের মধ্যেই হয়তো কনফার্ম নিউজ পাওয়া যাবে। ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউট থেকে বেক্সিমকোর মাধ্যমে টিকা আনা হচ্ছে। তাদের সঙ্গে আমাদের সার্বক্ষণিক যোগাযোগ হচ্ছে।’

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘গত ফেব্রুয়ারি ও মার্চ মাসে টিকা আসার কথা থাকলেও আসেনি। তবে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ১২ লাখ টিকা উপহার হিসেবে নিয়ে এসেছেন। এই টিকা দিয়ে দ্বিতীয় ডোজের কার্যক্রম চলমান থাকবে। ’

তিনি বলেন, ‘করেনা টিকা দেশে উৎপাদনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিদর্শনা দিয়েছে। সে অনুযায়ী আমরা কাজ করছি। বিভিন্ন ওষুধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানের যোগাযোগ করা হচ্ছে। তাদের সক্ষমতা যাচাইয়ে বিভিন্ন কারখানা পরিদর্শন করা হয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অনুমোদন পেলে আমরা হয়ত কাজ শুরু করতে পারব।’

সিরাম ইনস্টিটিউট ছাড়াও টিকা পেতে অন্য দেশের প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা চলছে বলেও জানান মন্ত্রী।

যাযাদি/এস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে