​ওমিক্রন : চিনবেন কি করে ?

​ওমিক্রন : চিনবেন কি করে ?

দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রথম মাথাচাড়া দেবার পর এবার যুক্তরাজ্যেও করোনা ভাইরাসের নতুন রূপ ওমিক্রনের দেখা মিলেছে।

Omicron সনাক্ত করতে কি পরীক্ষা করা হয়?

পিসিআর টেস্ট মারফত সোয়াব সংগ্রহ করে তা বিশ্লেষণের জন্য একটি ল্যাবে পাঠানো হয়, কোনো ব্যক্তি করোনা ভাইরাসের দ্বারা সংক্রমিত কিনা তা এই পরীক্ষা মারফত জানা যায়।

সোয়াব বিশ্লেষণ করে বিজ্ঞানীরা দেখতে পারেন যে সংক্রমণের কারণটি ডেল্টা বা ওমিক্রন বা অন্য কিছুর মতো দেখাচ্ছে কিনা।

যুক্তরাজ্যের এক তৃতীয়াংশ ল্যাবে এই ধরণের বিশেষ প্রযুক্তি ব্যবহার করে সনাক্তকরণের প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করা হয়।

উপসর্গ দেখা দিলে সরকারি ওয়েবসাইট থেকে বিনামূল্যে অথবা কোনো বেসরকারি কোম্পানি থেকে পিসিআর পরীক্ষার ব্যবস্থা রয়েছে ।

আমরা কিভাবে জানি যে Omicron যুক্তরাজ্যে আছে?

জিনোমিক সিকোয়েন্সিং নামে পরিচিত একটি প্রক্রিয়া ব্যবহার করে সম্পূর্ণ জেনেটিক বিশ্লেষণের পর পিসিআর পরীক্ষার ফলাফলগুলি দেখে শনাক্ত করা হয় ভ্যারিয়ান্টটি ওমিক্রন কিনা।

NHS টেস্ট-এর মত ট্রেসিং সিস্টেমের মাধ্যমেও জানা যায় কোনো ব্যক্তি এই নতুন ভ্যারিয়ান্টটির দ্বারা আক্রান্ত কিনা

সম্ভবত যুক্তরাজ্যে ইতিমধ্যেই ভেরিয়েন্টের আরও অনেক কেস রয়েছে, যা এখনও শনাক্ত করা যায়নি। কারণ এই প্রক্রিয়াটি সম্পূর্ণ হতে কয়েক সপ্তাহ পর্যন্ত সময় লাগতে পারে।

তবে করোনভাইরাসটির প্রভাবশালী রূপটি এখনও ডেল্টা, যার দ্বারা যুক্তরাজ্যে প্রতিদিন প্রায় ৪০ হাজার মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন ।

পার্শ্বীয় প্রবাহ পরীক্ষা কি ওমিক্রন শনাক্ত করে?

দ্রুত বা পার্শ্বীয় প্রবাহ পরীক্ষা বাড়িতেই করা যায়। এর দ্বারা আপনি বুঝতে পারবেন আপনি করোনা ভাইরাসের দ্বারা সংক্রামিত হয়েছেন কিনা। কিন্তু এই পরীক্ষা মারফত এটা জানা যায় না আপনি করোনার কোন ভেরিয়েন্ট দ্বারা আক্রান্ত।

ওমিক্রন এবং অন্যান্য ভেরিয়েন্টগুলির মধ্যে পার্থক্য কি?

ওমিক্রন ভেরিয়েন্টে অনেকগুলি মিউটেশন দেখা গেছে যা আগে মেলেনি। তাদের মধ্যে একটি বড় সংখ্যক ভাইরাসের স্পাইক প্রোটিন রয়েছে, যা বেশিরভাগ ভ্যাকসিনের টার্গেট এবং এটিই প্রধান উদ্বেগের বিষয়।

স্ট্যান্ডার্ড পরীক্ষায়, ওমিক্রন "এস-জিন ড্রপআউট" নামে পরিচিত (যা ডেল্টার থেকে আলাদা ) এবং এর থেকেই বোঝা যায় এটি করোনার সম্পূর্ণ নতুন একটি রূপ।

তবে এটাও ঠিক সমস্ত "এস-জিন ড্রপআউট" ওমিক্রন হবে না - নিশ্চিত হওয়ার জন্য সম্পূর্ণ জিনোমিক সিকোয়েন্সিং প্রয়োজন।

জিনোমিক সিকোয়েন্সিং কি ভূমিকা পালন করে?

ইউকে-তে প্রতি সপ্তাহে কোভিড পজিটিভ পরীক্ষার ফলাফল থেকে ৬০ হাজারটি কেস (২০%) জিনোমিক সিকোয়েন্সিংয়ের জন্য পাঠানো হয়।

প্রদত্ত জেনেটিক উপাদানগুলি ঘনিষ্ঠভাবে দেখে, বিজ্ঞানীরা নিশ্চিত করতে পারেন যে কেউ ওমিক্রন বা ডেল্টার দ্বারা আক্রান্ত কিনা।

এই প্রক্রিয়াটি শুধুমাত্র সোয়াব বিশ্লেষণ করে তথ্য প্রদান করে- তবে এর ফলাফল দেখে বিজ্ঞানীরা বুঝতে পারেন নতুন ভ্যারিয়ান্টটি কি অনুপাতে ছড়িয়ে পড়েছে।

যুক্তরাজ্য এবং দক্ষিণ আফ্রিকার বিজ্ঞানীরা এই প্রযুক্তি ব্যবহারের ক্ষেত্রে অগ্রভাগে রয়েছেন, যে কারণে এই দেশগুলিতে বেশিরভাগ নতুন রূপ শনাক্ত করা হয়েছে।

আমরা Omicron সম্পর্কে কতটা জানি?

ভ্যারিয়ান্টটি কীভাবে কাজ করে বা এটি কতটা হুমকির মুখে ফেলতে পারে সে সম্পর্কে এখনো পর্যন্ত খুব কমই জানা গেছে ।

উদাহরণস্বরূপ বলা যেতে পারে- এটা স্পষ্ট নয় যে এই ভ্যারিয়ান্টটি কতটা সংক্রামক। এটি মানুষকে আরো বেশি অসুস্থ করে তোলে কিনা বা ভ্যাকসিন এর ওপর কাজ করে কিনা।

কিন্তু কাগজে-কলমে এটিকে উদ্বেগজনক বলে মনে করা হচ্ছে, এবং সে কারণেই সরকার দ্রুত পদক্ষেপ করছে।

Omicron এর উপসর্গ কি?

এখনও অবধি দক্ষিণ আফ্রিকায় ওমিক্রনের দ্বারা সংক্রামিত বেশিরভাগ লোক অল্পবয়সী এবং তাদের লক্ষণগুলি মৃদু ছিল।

ডেল্টার থেকে ওমিক্রনের উপসর্গের কিছু পার্থক্য রয়েছে। যেমন - শরীরে ব্যাথা, স্বাদ-গন্ধ অবিকৃত থাকা,তবে এখনই নিশ্চিতভাবে বলা খুব মুশকিল ।

এই মুহুর্তে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলেছে যে ওমিক্রনের লক্ষণগুলি অন্যান্য রূপগুলির থেকে আলাদা হওয়ার কোনও প্রমাণ নেই৷

তার মানে কাশি, জ্বর এবং স্বাদ বা গন্ধ হারানো- এখনও প্রধান এই তিনটি উপসর্গের দিকে আমাদের নজর দিতে হবে।

দক্ষিণ আফ্রিকার হাসপাতালগুলি আরও গুরুতর উপসর্গ নিয়ে ভর্তি হওয়া অনেক তরুণ-তরুণীকে দেখছে- যদিও তাদের অনেকেই টিকা নেয়নি বা শুধুমাত্র একটি ডোজ নিয়েছে।

এর দ্বারা এই বোঝা যায় যে ভ্যাকসিনের দুটি ডোজ এবং একটি বুস্টার ডোজ অন্যান্য ভ্যারিয়ান্টগুলির মতোই এই নতুন ভ্যারিয়ান্ট থেকে আমাদের সুরক্ষা দিতে পারে ।

সূত্র : বিবিসি

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

সকল ফিচার

ক্যাম্পাস
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
হাট্টি মা টিম টিম
কৃষি ও সম্ভাবনা
রঙ বেরঙ

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে