ফার্স্ট লেডি হিসেবে কতটা জনপ্রিয় মেলানিয়া

ফার্স্ট লেডি হিসেবে কতটা জনপ্রিয় মেলানিয়া

যুক্তরাষ্ট্রের ফার্স্ট লেডি হিসেবে সবচেয়ে কম জনপ্রিয়তা নিয়ে হোয়াইট হাউস ছেড়ে যাচ্ছেন মেলানিয়া ট্রাম্প। সিএনএনের নতুন জরিপে এ তথ্য জানা গেছে।

সিএনএনের গতকাল রোববারের খবরে জানা যায়, ২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারির জরিপের তুলনায় ৪৭ শতাংশ বেশি মানুষ মেলানিয়াকে অপছন্দ করার কথা জানিয়েছেন।

সিএনএনের এসএসআর পরিচালিত জরিপ বলছে, ট্রাম্পকে পছন্দ করেন ৪২ শতাংশ মানুষ। আর ১২ শতাংশ মানুষ জানাননি মেলানিয়ার মতো তাঁদের দৃষ্টিভঙ্গি কেমন।

সিএনএনের জরিপে আরও দেখা যায়, ২০১৮ সালের মে মাস পর্যন্ত ৫৭ শতাংশ মানুষ মেলানিয়াকে পছন্দ করেন বলে জানান। সে সময় টেক্সাসে মেলানিয়া প্রয়াত ফার্স্ট লেডি বারবারা বুশের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় অংশ নেন।

মেলানিয়া আফ্রিকায় একা সফর করার পর ওই বছরের ডিসেম্বর মাসে তাঁর জনপ্রিয়তা কমে যায়। সিএনএনের জনমত জরিপে সে সময় ৪৩ শতাংশ মেলানিয়াকে পছন্দ করেন বলে জানান। আর ৩৬ শতাংশ জানান, তাঁরা মেলানিয়াকে পছন্দ করেন না।

রিপাবলিকানদের মধ্যে ট্রাম্পের তুলনায় মেলানিয়া ট্রাম্পের জনপ্রিয়তা ৩৩ শতাংশ বেশি। সিএনএনের জরিপ অনুসারে ২০১৭ সালের জানুয়ারি মাসে হোয়াইট হাউস ছেড়ে যাওয়ার সময় মিশেল ওবামার জনপ্রিয়তা ছিল ৬৯ শতাংশ। আট বছর আগে ফার্স্ট লেডি হওয়ার সময়ও মিশেলের জনপ্রিয়তা একই ছিল।

স্বামী জর্জ ডব্লিউ বুশের জনপ্রিয়তা কম থাকলেও ফার্স্ট লেডি লরা বুশের জনপ্রিয়তা বেশি ছিল। ২০০৯ সালে সিএনএনের জরিপে জানা যায়, লরা বুশের জনপ্রিয়তা ছিল ৬৭ শতাংশ। ওই সময় জর্জ ডব্লিউ বুশের জনপ্রিয়তা ছিল ৩৫ শতাংশ। হিলারি ক্লিনটনও জনপ্রিয় ফার্স্ট লেডি ছিলেন। ২০০০ সালের নভেম্বর মাসে সিএনএন, ইউএসএ টুডে ও গ্যালাপের জরিপে জানা যায়, ক্ষমতা ছাড়ার আগে হিলারি ক্লিনটনের জনপ্রিয়তা ছিল ৫৬ শতাংশ। ট্রাম্পের তুলনায় জনপ্রিয়তা ছিল ১৪ শতাংশ বেশি।

সিএনএনের জরিপের পদ্ধতি আগের চেয়ে পরিবর্তন করা হয়েছে। আগেকার জরিপে যেখানে ৬৫ শতাংশ মোবাইলে সাক্ষাৎকার নেওয়া হতো, সেখানে এই জরিপে ৭৫ শতাংশ সাক্ষাৎকার মোবাইলে নেওয়া হয়।

জরিপে অনেক বেশি মানুষকে আওতাভুক্ত করার জন্য চার দিনের বদলে ছয় দিন ধরে এসব সাক্ষাৎকার নেওয়া হয়। শিক্ষা ও ভৌগোলিক এলাকা অনুসারে জনগণকে ভাগ করা হয়।

৯ জানুয়ারি থেকে ১৪ জানুয়ারি পর্যন্ত এসএসআরএসের মাধ্যমে সিএনএন জরিপ পরিচালনা করে। ল্যান্ডলাইন ও সেলফোনের মাধ্যমে ১ হাজার ৩ জন প্রাপ্তবয়স্কের কাছ থেকে তথ্য নেওয়া হয়। তবে জরিপের ফলাফল ৩ দশমিক ৭ শতাংশ এদিক-ওদিক হতে পারে।

যাযাদি/ এমএস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে