​মাকামে ইব্রাহিমের স্বচ্ছ ছবি প্রকাশ

​মাকামে ইব্রাহিমের স্বচ্ছ ছবি প্রকাশ

কিছুদিন আগে পবিত্র কাবা প্রাঙ্গণে থাকা ‘হাজরে আসওয়াদ’ এর স্বচ্ছ ছবি প্রকাশ করেছিলো সৌদি আরব। এবার ‘মাকামে ইব্রাহিম’ এর ছবি প্রকাশ করলো দেশটি। মসজিদুল হারামে এই পবিত্র পাথরটি রয়েছে। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে আল আরাবিয়া।

জানা যায়, নতুন কৌশল ব্যবহার করে মাকামে ইব্রাহিমের বিস্তৃত ছবি তুলেছে মক্কা ও মদিনার দুই পবিত্র মসজিদের দায়িত্বে থাকা জেনারেল প্রেসিডেন্সি।

মাকামে ইব্রাহিম বলতে সেই পাথরকে বুঝানো হয় যা কাবা শরিফ নির্মাণের সময় হযরত ইসমাইল (আ.) নিয়ে এসেছিলেন, যার উপর তার পিতা হযরত ইব্রাহিম (আ.) পা রেখে কাবা ঘর নির্মাণ করতে পারেন।

ইসমাইল (আ.) পাথর এনে দিতেন, ইব্রাহিম (আ.) তার পবিত্র হাতে তা কাবার দেওয়ালে রাখতেন। ওপরে উঠার প্রয়োজন হলে পাথরটি অলৌকিকভাবে ওপরের দিকে উঠে যেত।

বর্তমানে মাকামে ইব্রাহিম পাথরটি স্বর্ণ, রূপা ও গ্লাসের ফ্রেমে আবদ্ধ করে দেয়া হয়েছে। হাজরে আসওয়াদ থেকে যার দূরত্ব মাত্র ১৪ দশমিক পাঁচ মিটার।

তাওয়াফ শেষে মাকামে ইব্রাহিমের পেছনে দুরাকাত নামাজ আদায় করতে হয় হাজিদের। জায়গা না পেলে অন্য কোথাও সেই নামাজ আদায় করা যায়।

কিছুদিন আগ ‘হাজরে আসওয়াদ’ এর স্বচ্ছ ছবি প্রকাশ করেছিলো সৌদি আরবের জেনারেল প্রেসিডেন্সি। এর আভিধানিক অর্থ কালো পাথর। মুসলমানদের কাছে এটি অতি মূল্যবান ও পবিত্র একটি পাথর। অতীতে এটি ছিলো আস্ত একটি পাথর।

‘হাজরে আসওয়াদ’ কাবাঘরের দেয়ালে বিশেষভাবে স্থাপনকৃত একটি পাথরের নাম। আরবি ‘হাজর’ শব্দের অর্থ পাথর আর ‘আসওয়াদ’ শব্দের অর্থ কালো। অর্থাৎ কালো পাথর। ‘হাজরে আসওয়াদ’ বেহেশতের মর্যাদাপূর্ণ একটি পাথর। হজযাত্রীরা হজ করতে গিয়ে এতে সরাসরি বা ইশারার মাধ্যমে চুম্বন দিয়ে থাকেন।

রাসুলের নবুয়তপূর্ব সময়ে কাবা পুনর্নির্মাণের পর হাজরে আসওয়াদ আগের স্থানে কে বসাবেন—এটি নিয়ে কোরাইশদের মধ্যে দ্বন্দ্ব বেধেছিল। তখন মহানবী (সা.) নিজের গায়ের চাদর খুলে তাতে হাজরে আসওয়াদ রেখে সব গোত্রপ্রধানকে চাদর ধরতে বলেন।

গোত্রপ্রধানরা চাদরটি ধরে কাবা চত্বর পর্যন্ত নিয়ে গেলে নবী করিম (সা.) নিজ হাতে তা কাবার দেয়ালে স্থাপন করেন এবং দ্বন্দ্বের পরিসমাপ্তি ঘটান।

আবদুল্লাহ ইবনে জুবাইর (রা.)-এর শাসনামলে হাজরে আসওয়াদ ভেঙে তিন টুকরো হয়ে গিয়েছিল। ফলে তিনি তা রূপা দিয়ে বাঁধাই করেছেন। আর তিনিই সর্বপ্রথম হাজরে আসওয়াদকে রূপা দিয়ে বাঁধানোর সৌভাগ্য অর্জনকারী। এই পবিত্র পাথরের দৈর্ঘ্য ৮ ইঞ্চি ও প্রস্থ ৭ ইঞ্চি। বর্তমানে এটি আট টুকরো।

যাযাদি/ এমডি

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে