বাবার যেসব বৈশিষ্ট্য পায় সন্তান

বাবার যেসব বৈশিষ্ট্য পায় সন্তান

একটি পরিবারে নতুন শিশুর আগমনের পরই আত্মীয়-স্বজনরা বলতে শুরু করেন শিশুটি কার মতো হয়েছে- এ নিয়ে চলে নানা আলোচনা। কেউ বলে মায়ের মতো হয়েছে, কেউ বলে বাবার মতো হয়েছে আবার কেউ কেউ বলতে থাকে নাকটা একদম বাবার মতো। অবাক করার বিষয় হচ্ছে একটি শিশু জিনগতভাবে পরিবারের নিকটদের মতোই হয়ে থাকে। তবে সন্তানের চেহারা সব থেকে বেশি বাবার মতো হয়ে থাকে। এছাড়াও বেশ কিছু বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা সব সময় বাবার থেকে পেয়ে থাকে শিশু। এবার তাহলে নির্দিষ্ট সেই সব বিষয়ে জেনে নেয়া যাক-

বিশেষজ্ঞদের মতে শিশুর সঙ্গে সব থেকে বেশি তার বাবার চেহারা মিল থাকে। সন্তান জন্মের পর সে দেখতে কার মতো হবে তার ৬০ শতাংশ নির্ভর করে বাবার জিনের ওপর এবং ৪০ শতাংশ নির্ভর করে মায়ের জিনের ওপর। এ কারণে সন্তান জন্মের পর অধিকাংশ শিশুই তার বাবার মতো হয়ে থাকে।

সন্তানের উচ্চতা কেমন হবে এটাও নির্ভর করে বাবার উচ্চতার উপর নির্ভর করে। বাবা যদি খাটো হয় তাহলে সন্তানও খাটো হবে। আবার বাবা যদি উচ্চতায় লম্বা হয় তাহলে শিশুও উচ্চতায় লম্বা হবে। অনেক ক্ষেত্রে মা বেটে হওয়ার পরও এ কারণে সন্তান লম্বা হয়ে থাকে।

শিশুর দাঁতের গঠন তার বাবার মতো হয়ে থাকে। সাধারণত শিশুর বাবার যদি দাঁতের সমস্যা থাকে তাহলে শিশুরও সেই সমস্যা থেকে যায়। শিশুর বাবার দাঁত ফাঁকা ফাঁকা থাকলে সন্তানের দাঁতও ফাঁকা ফাঁকা হবে। এছাড়াও বাবার আঙুলের গঠনপ্রণালীর মতোই সন্তানের আঙুলের গঠনপ্রণালী হয়ে থাকে।

অনেক শিশুরই দেখা যায় তার ঘুমের ধরন তার বাবার মতো। তার বাবা যেদিক ফিরে ঘুমায় শিশুও সেদিকে ফিরে ঘুমায়। আবার কিছু কিছু শিশু হাসলে তার গালে টোল পড়ে। এসব শিশুদের বাবার গালেও টোল পড়ে। তাই সন্তান হাসলে গালে টোল পড়ে। সূত্র : ইন্ডিয়া টাইমস

যাযাদি/ এমডি

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে