গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ রোধে যা করণীয়

গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ রোধে যা করণীয়

রান্না করার সময় প্রায়ই গ্যাস সংকটে পড়তে হয়। কোনও কোনও এলাকায় দিনের অধিকাংশ সময়ই গ্যাস থাকে না। এমন পরিস্থিতিতে গ্যাস সংকট থেকে সমাধান পেতে অনেকে এলপি গ্যাসের দিকে ঝুঁকছেন। বাসা-বাড়ি, হোটেল-রেস্তোরাঁ ও রান্নার কাজ ছাড়াও আজকাল যানবাহনে ব্যবহার করা হচ্ছে এই গ্যাস।

সিলিন্ডার গ্যাসে সামান্য একটু ত্রুটি থাকলেও তা থেকে ঘটে যায় দুর্ঘটনা। এক্ষেত্রে জনসাধারণ ও ব্যবহারকারীদের একটু সতর্ক ও সচেতন হলেই এলপি গ্যাস বিস্ফোরণজনিত দুর্ঘটনা শূন্যের কোটায় নামা সম্ভব। এবার তাহলে এই সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক-

গ্যাস এজেন্টদের কাছ থেকে গ্যাস বুঝে নেয়ার সময় অবশ্যই গ্যাস সিলিন্ডারের এক্সপায়ারি ডেট দেখে নিন। নিয়মিত গ্যাস সিলিন্ডারের পাইপ ও রেগুলেটর চেক করুন।

গ্যাস সিলিন্ডার সোজা রাখা প্রয়োজন। উঁচু-নিচু জায়গায় না রেখে সমান জায়গায় রাখুন। এতে করে সিলিন্ডার পড়ে কোনও দুর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা থাকে না। এছাড়াও কখনোই সিলিন্ডার ধরে ঘষা-টানা করবেন না। এতে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

রান্নাঘরে গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহারে সতর্ক থাকবেন যেন ঘরে বায়ু চলাচলের যথেষ্ট ব্যবস্থা থাকে। রান্না বা গ্যাস সরবরাহের সময় দরজা জানালা খোলা রাখুন। এসময় চুলা বা সিলিন্ডারের পাশে দাহ্য জিনিসপত্র রাখা উচিত নয়। এমনকি প্লাস্টিকের জিনিসপত্রও দূরে রাখার চেষ্টা করুন।

নিয়মিত গ্যাস সিলিন্ডারের পাইপ পরিবর্তন করুন। কখনোই টাকার অভাবে জোড়াতালি দিয়ে ব্যবহার করবেন না। এতে করে হঠাৎই দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

গ্যাস বা গ্যাস সিলিন্ডার বদলের সময় রেগুলেটরটি ঠিক মতো লাগানো হয়েছে কিনা তা ভালো করে দেখে নিন। তা না হলে বিপদের আশঙ্কা হতে পারে।

অনেক বাড়িই গ্যাস ভর্তি অতিরিক্ত সিলিন্ডার রাখা হয়। একটি শেষ হলেই অন্যটি প্রয়োজনে সেট করা হয়। মনে রাখা উচিত যে, ভর্তি সিলিন্ডার কখনোই ঘরের ভেতরে রাখা উচিত নয়। ভর্তি সিলিন্ডার সবসময় খোলামেলা এবং ছায়াযুক্ত জায়গায় রাখুন। সূত্র : ডিএমপি

যাযাদি/ এমডি

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে