টেকনাফে র‌্যাবের সঙ্গে গোলাগুলিতে ৩ রোহিঙ্গা ‘ডাকাত’ নিহত

টেকনাফে র‌্যাবের সঙ্গে গোলাগুলিতে ৩ রোহিঙ্গা ‘ডাকাত’ নিহত

আবারও কক্সবাজারের টেকনাফে র‌্যাবের সঙ্গে গোলাগুলিতে রোহিঙ্গা শীর্ষ ডাকাত সর্দার জকি বাহিনীর প্রধান জকিসহ তিনজন রোহিঙ্গা ‘ডাকাত’ নিহত হয়েছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের শালবন ও জাদিমুরা রোহিঙ্গা ক্যাম্পের পাশের একটি পাহাড়ে এ গোলাগুলির ঘটনা ঘটে।

এ সময় ঘটনাস্থল থেকে ২টি পিস্তল, ২টি বন্দুক, ৫টি ওয়ান শুটারসহ ২৫ রাউন্ড বন্দুক ও পিস্তলের গুলি উদ্ধার হয়েছে।

র‌্যাবের দাবি ,নিহত জকি ডাকাতের বিরুদ্ধে হত্যা, ধর্ষণ, অপহরণ এবং মাদকসহ ২০টির বেশী মামলা রয়েছে। এ ঘটনায় র‌্যাবের এক সদস্য হাতে গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হয়েছে।

কক্সবাজার র‌্যাব-১৫ এর অধিনায়ক উইং কমান্ডার আজিম আহমেদ জানিয়েছেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাবের একটি দল টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের শালবন এবং জাদিমুরা ২৬নং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের পাশের একটি পাহাড়ে কুখ্যাত ডাকাত জকি বাহিনীর অবস্থানের খবরে অভিযান চালান। এ সময় রোহিঙ্গা ডাকাত গ্রুপের সদস্যদের সঙ্গে র‌্যাব সদস্যরা গোলাগুলিতে জড়িয়ে পড়ে। এভাবে ঘণ্টাব্যাপী গোলাগুলির একপর্যায়ে জকির বাহিনীর প্রধান জকিসহ ২ জনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। তবে তাদের পরিচয় জানাতে পারেনি র‌্যাব।

এদিকে, টেকনাফ থানার ওসি মো. হাফিজুর রহমান জানান, র‌্যাবের সঙ্গে রোহিঙ্গা ডাকাতদলের গোলাগুলির ঘটনায় জকির বাহিনীর প্রধান জকি (৩৫) ও মনির (৩০) নামের দুজনকে চিহ্নিত করতে পেরেছেন।

অন্যজনের পরিচয় এখনো পাওয়া যায়নি। র‌্যাব সদস্যরা ঘটনাস্থল এখনো ঘিরে রেখেছেন। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে