সৈকতে নামতে পর্যটকদের জন্য ১০ সর্তকবার্তা

সৈকতে নামতে পর্যটকদের জন্য ১০ সর্তকবার্তা

‘সতর্কতাই নিরাপত্তার পূর্বশর্ত’ এই স্লোগানে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে গোসল করতে নামার আগে পর্যটকদের নিরাপত্তার স্বার্থে ১০ নিন্দেশনা দিয়েছে জেলা প্রশাসন। এর মধ্যে সমুদ্রে গুপ্ত খাল ও তীব্র ¯্রােতপ্রবণ এলাকা চিহ্নিত করা সাইনবোর্ড টাঙ্গানো এলাকায় সমুদ্রে নামতে সতর্কতা অবলম্বন করতে বলা হয়েছে। ১০ দিনব্যাপী ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন করেছে কক্সবাজার জেলা প্রশাসক।

শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টায় সৈকতের সুগন্ধা পয়েন্টে এই ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মো মামুনুর রশীদ।

শুক্রবার থেকে শুরু করে আগামী দশ দিন পর্যন্ত কলাতলী,সুগন্ধা এবং লাবণী বিশেষ করে এই তিনটা পযেেন্ট এরকম প্রচার অভিযান চলবে। বিশেষ করে পর্যটকরা সমুদ্র গোসলের জন্য পানিতে নামার আগে প্রশাসনের দেওয়া নিন্দেশনা ও সময়সূচি মেনে সমুদ্র সৈকতে নামতে হবে। ১০ নিন্দেশনা হলো, সৈকত এলাকায় সবসময় লাইফগার্ডের নিন্দেশনা মানতে হবে, লাইফগার্ড নিন্দেশিত নির্ধারিত স্থান ছাড়া অন্যকোনো পয়েন্ট থেকে সমুদ্রে নামা যাবে না, সাঁতার না জানলে সমুদ্রের পানিতে নামার সময় লাইফ জ্যাকেট ব্যবহার করতে হবে, সৈকতে লাল পতাকায় চিহ্নিত করা পয়েন্টে কোনোভাবে নামা যাবে না, বিকেল ৫টার পর সমুদ্রে নামা যাবে না, সমুদ্রে নামার আগে জোয়ার-ভাটাসহ আবাহাওয়ার বর্তমান অবস্থা জেনে নিতে হবে, সমুদ্রে যেকোনো সময় তীব্র ¯্রােত এবং গর্ত সৃষ্টির বিষয়ে জানতে হবে, যেকোনো ভাসমান বস্তু নিয়ে পানিতে নামার আগে বাতাসের গতি সম্পর্কে জেনে নিতে হবে, শিশুকে সৈকতে সব সময় সঙ্গে রাখতে হবে ও শিশুকে একা সমন্দ্রে নামতে দেওয়া যাবে না, অসুস্থ অথবা দুর্বল শরীর নিয়ে সমুদ্রে হাটু পানির বেশি নামা যাবে না।

জেলা প্রশাসক মো মামুনুর রশীদ বলেন, সমুদ্র সৈকতে পানিতে নামার আগে যে ১০ সর্তকবার্তা দিয়েছি, তা দশ দিন আমরা প্রচার করতে চাই। আত্মীয-স্বজন, বন্ধু বান্ধব পরিবার পরিজন নিয়ে যারা কক্সবাজার সাগর সৈকতে বেড়াতে আসেন তারা অনেক সময সিগনালগুলো খেযাল করতে পারে না। ফলে তাদের অবগতির জন্য এই আয়োজন করা হয়েছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন.অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আবু সুফিয়ান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক), জাহিদ ইকবাল, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (মানব সম্পদ) নাসিম আহমেদ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি), বিভীষণ কান্তি দাশ, জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট (পর্যটন সেল) সৈয়দ মুরাদ ইসলামসহ ট্যুর অপারেটর, ফায়ার সার্ভিস ও বিভিন্ন সংগঠনের কর্মকর্তারা।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে