রূপগঞ্জে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগকর্মীকে কুপিয়ে হত্যা

প্রকাশ | ২২ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১১:১২

যাযাদি ডেস্ক

রূপগঞ্জের গোলাকান্দাইলে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে রাকিব হাসান (২২) নামের এক ছাত্রলীগকর্মীকে কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষের সন্ত্রাসীরা।বুধবার রাত ৯টায় উপজেলার গোলাকান্দাইল হাট-সংলগ্ন কাঠপট্রি এলাকায় এ হত্যাকাণ্ড ঘটে। রাকিব গোলাকান্দাইল এলাকার হারুন মিয়ার ছেলে। তিনি গোলাকান্দাইল ইউনিয়ন ছাত্রলীগকর্মী।

এদিকে, রাকিবের হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবিতে ছাত্রলীগকর্মীরা এলাকায় বিক্ষোভ করেছেন। হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ভুলতা গোলাকান্দাইল এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। এছাড়া হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় হামলাকারীদের বাড়িতে অগ্নিসংযোগ করায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ছে পুরো এলাকায় ।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে এবং প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে ভুলতা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর মাহাবুবুর রহমান জানান, রাত ৯টার দিকে গোলাকান্দাইল হাট-সংলগ্ন কাঠপট্রি এলাকায় একদল সন্ত্রাসী ধারালো অস্ত্রেশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে রাকিবের ওপর হামলা চালায়। ধারালো অস্ত্রের আঘাতে রাকিবের বাম হাতটি প্রায় বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। এছাড়া শরীরের বিভিন্ন স্থানে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে পরিবার ও স্থানীয়রা রাকিবকে উদ্ধার করে স্থানীয় ক্লিনিকে এবং পরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

স্থানীয় সূত্র জানায়, এলাকার চাঁদাবাজি, মাদক ব্যবসা, পরিবহনের চাঁদাবাজিসহ আধিপত্য বিস্তার নিয়ে গোলাকান্দাইল ইউনিয়ন শ্রমিক লীগ নেতা দেলোয়ার হোসেনের সাথে ছাত্রলীগকর্মী রাকিবের বিরোধ চলে আসছিল। ওই বিরোধের জের ধরেই রাত ৯টার দিকে দেলোয়ার হোসেনসহ তার বাহিনীর আট থেকে ১০ জন মিলে মোটরসাইকেলযোগে এসে প্রকাশ্যে এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে।

রুপগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক দফতর সম্পাদক মঈন জানান, ‘রাকিব হাসান আমার সাথে ছাত্রলীগ কর্মী হিসেবে কাজ করে আসছে। নির্মমভাবে কুপিয়ে হত্যা করা হয় তাকে। হত্যাকারীদের গ্রেফতারের দাবি জানান তিনি।’

রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ এফ এম সায়েদ জানান, হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযানে নেমেছে পুলিশ।

যাযাদি/ এস